বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

শোনা যাচ্ছে রাশিয়া সেদেশে লিঙ্কডইন নিষিদ্ধ করতে যাচ্ছে

The end of LinkedIn in Russia?

রাশিয়ায় কী লিঙ্কডইনের ইতি ঘটতে যাচ্ছে?

বিশ্বের সবচেয়ে বৃহৎ পেশাদার নেটওয়ার্ক সংস্থা লিঙ্কডইন নামক ওয়েবসাইট রাশিয়ার বন্ধ হয়ে যাওয়ার মত ঝুঁকির মুখে রয়েছে, যেখানে কেন্দ্রীয় সেন্সরশীপ প্রতিষ্ঠান মস্কোর একটি আদালতকে বোঝাতে সক্ষম হয় যে, রাশিয়ায় প্রতিষ্ঠানটিকে নিষিদ্ধ করা হয়।

একজন বিচারক আবিস্কার করেন যে লিঙ্কডইনের নন ইউজার পারসোনাল ডাটা শেয়ারের (সক্রিয় ব্যবহারকারী নয় এমন ব্যবহার কারী তথ্য শেয়ার করা) বিষয়টি অবৈধ যা ব্যবহারকারীর অনুমতি ছাড়াই করা হয়েছে। এই বিষয়টি সবচেয়ে খারাপ দিকে গড়ানোর আগে, মস্কোর আদালত একই সাথে নির্দেশ জারি করেছে যে লিঙ্কডইন নামক সাইটটি রুশ ব্যবহাকারীদের সংগৃহীত ব্যক্তিগত তথ্য রাশিয়ায় অবস্থিত তার সার্ভারে নয়, অন্যখানে ডাটা সংরক্ষণ করেছে।

সংবাদপত্র কোমেরসান্ট–এর সংবাদ অনুসারে কেন্দ্রীয় সেন্সর বোর্ড সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে বার বার ব্যবহারকারীদের তথ্য ফাঁস হয়ে যাওয়া তারা এর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করবে। এ বছরের শুরুতে, ২০১২ সালে তথ্য চুরি হওয়ার ঘটনায় কোম্পানি ১৬৭ মিলিয়ন একাউন্টের (১৬ কোটি ৭০ লক্ষ) গ্রহণযোগ্যতা হারিয়েছে, প্রথমে যা ভাবা হয়েছিল ৬৫ লক্ষ (৬.৫ মিলিয়ন) একাউন্ট। মূল একাউন্টের সংখ্যা ধারনার চেয়ে অনেক বেশি।

কেন্দ্রীয় সেন্সরশীপ সংস্থা বলছে যে তারা আদালতের শরণাপন্ন হয়েছে, কারণ রাশিয়া লিঙ্কডইনের নিজস্ব কোন প্রতিনিধ নেই। রাশিয়ার এই নেটওয়ার্কের আনুমানিক ৫ মিলিয়ন (৫০ লক্ষ) নিবন্ধিত ব্যবহারকারী রয়েছে (ধারনা করা যে এর অর্ধকে সক্রিয়) আর সারা বিশ্বে এই সাইটের ৪০০ মিলিয়ন ব্যবহারকারী রয়েছে।

এই মামলায় রাশিয়ার সেন্সরশিপ প্রতিষ্ঠান যুক্তি প্রদানের সংবাদ করেছে যে লিঙ্কড ইন রাশিয়া থেকে দেশটির নাগরিকদের অধিকারে থাকা ডাটা সংগ্রহ করে লিঙ্কডইন অন্য কোথাও সংরক্ষণ করেছে। তার মধ্যে সেই সকল রুশ নাগরিকও রয়েছে যারা কোন ওয়েবসাইটের সদস্য নয়, আর এই ঘটনার মধ্যে দিয়ে লিঙ্কডইন দেশটির বেশ কিছু ব্যক্তিগত গোপনীয়তা আইন ভঙ্গ করেছে। ৪ আগস্ট তারিখে আদালত সরকারের পক্ষে রায় প্রদান করে। তারা পুলিশকে আদেশ প্রদান করে, এখন থেকে সারা দেশে আর কেউ যেন লিঙ্কডইনে প্রবেশ করতে না পারে।

তবে এই লেখাটি শেষ করার সময়ও, রাশিয়ার বেশীর ভাগ ইন্টারনেট ব্যবহারকারী লিঙ্কডইনে ঢুকতে সক্ষম হয়েছিল।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .