বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

ভিড়ে পরিপূর্ণ এক সমাজের মাঝে থাই নাগরিকেরা বিশ্বের প্রথম আয়তাকার নয় এমন মাঠে ফুটবল খেলছে

A non-rectangular football field in Khlong Toei, Bangkok. Source: YouTube

ব্যাংককের খোলাং টোয়েই এলাকায় অবস্থিত এক আয়তাকার নয় এমন ফুটবল মাঠ, সুত্রঃ ইউটিউব

আয়তাকার নয় এমন ফুটবল মাঠ? বেশ, যদি খেলার জন্য যথেষ্ট জায়গা না পাওয়া যায়, তাহলে কেন নয়?

থাইল্যান্ডের এক গৃহ নির্মাণ সংস্থা একটি “অস্বাভাবিক” ফুটবল মাঠের ধারণা প্রদান করে যা মূলত থাইল্যান্ডের রাজধানী ব্যাংককের কেন্দ্রীয় এক ঘনবসতি পূর্ণ এলাকায় খেলার মাঠের জন্য জায়গার সঙ্কটের সমাধান হিসেবে এই প্রকল্প তৈরি করে।

এপি থাইল্যান্ড কোম্পানি বন্দরের সুবিধাদি রয়েছে এর নিকটে শ্রমিক শ্রেণীর নাগরিকদের বাস এমন এক এলাকা খোলং টোয়েই-তে আয়তকার নয় এমন ফুটবল মাঠ তৈরি করে। সংবাদ অনুসারে এটাই পৃথিবীর প্রথম আয়তকার নয় এমন ফুটবল মাঠ।

কোম্পানি আশা করছে যে ফুটবল খেলার মধ্যে দিয়ে খোলং তোয়েই এলাকার বাসিন্দাদের মাঝে এক শক্তিশালী বন্ধন গড়ে উঠবে, যে খেলা দেশটিতে বেশ জনপ্রিয়। একই সাথে এটার উদ্দেশ্য থাই নাগরিকদের উৎসাহিত করা যেন তারা এলাকায় পড়ে থাকা জায়গা নিয়ে নতুন ভাবে চিন্তা করে এবং সেটার উন্নয়ন ঘটানো:

এই অস্বাভাবিক ফুটবল মাঠ প্রমাণ করেছে যে প্রচলিত চিন্তার বাইরে গিয়ে করা নকশা সৃষ্টিশীলতার চর্চাকে সাহায্য করে যা এই সকল প্রয়োজনীয় জায়গাকে কাজে লাগায়।

আমরা আশা করি যে অন্য সম্প্রদায় তাদের এ রকম পড়ে থাকা অস্বাভাবিক এলাকা বিভিন্ন কর্মকাণ্ড আয়জনে কাজে লাগানোর জন্য-এ রকম চিন্তা গ্রহণ করবে, এই ধারনার বাস্তবতায় যে “যে কোন পরিত্যক্ত জায়গা সর্বোচ্চ সুবিধা অর্জনে কাজে লাগানো যেতে পারে”।

An unusual football field in Bangkok. Source: YouTube

ব্যাংককের এক অস্বাভাবিক ফুটবল মাঠ। সূত্রঃইউটিউব

বর্তমানে, খোলং-এর শিশুদের আর ফুটবল খেলার জন্য অনেক দূর যেতে হয় না। খেলাধুলার মাধ্যমে পরস্পরের সাথে মেশার এক সুযোগ প্রদান করে এবং একটি পড়ে থাকা জায়গাকে সম্প্রদায়ের জন্য এক মূল্যবান সম্পদে পরিণত করে, এই প্রকল্প অন্য সব উদ্যোগের জন্য এক আদর্শ হতে পারে যা শহুরে ঘন বসতি এলাকায় বাস করা নাগিরকদের জীবনের গুণগত মান উন্নত করার অনুসন্ধান করছে।

সিজি ওরক্স নামক এক ডিজিটাল এজেন্সির দ্বারা প্রস্তুকৃত এই ভিডিওর মাধ্যমে এই প্রকল্প সম্বন্ধে আরো জানুন।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .