বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

ইরানের গায়ক হাবিব মোহেবিয়ানকে সোশ্যাল মিডিয়ায় স্মরণ করা হচ্ছে

হাবিব মোহেবিয়ান। ছবি উইকিমিডিয়া কমন্স থেকে নেওয়া হয়েছে। সিসি বাই-এসএ ৪.০ ।

ইরানের মেহর নিউজ সংবাদ প্রদান করছে উত্তর ইরানে হঠাৎ এক হার্ট অ্যাটাকে ইরানের গায়ক এবং গীত রচিয়তা হাবিব মোহেবিয়ান মৃত্যু বরণ করেছেন। মোহেবিয়ান, যিনি তাঁর নামের প্রথম অংশের দ্বারা সবার কাছে পরিচিত ছিল, তিনি ৬৩ বছর বয়সে মৃত্যু বরণ করেছেন।

১৯৮০-এর দশকে হাবিব ইরান ত্যাগ করেন, ঘটনাক্রমে ২০০৯ সালে আবার ইরানে ফিরে আসে। ২০১১ সালে কদোওমকে প্রদান করা এক সাক্ষাৎকারে তাঁর পুত্র মোহাম্মদ ব্যাখ্যা করেন:

দীর্ঘ দিন ধরে হাবিব ইরানে ফিরে আসার ইচ্ছে পোষণ করছিলেন, তিনি তাঁর স্বদেশের অভাব অনুভব করছিলেন এবং সেখানে কাজ করতে না পারার কোন কারণ খুঁজে পাচ্ছিলেন না। একই সাথে লস এ্যাঞ্জেলসে ফার্সী বিনোদন ব্যবসায় তিনি ক্রমশ ক্লান্ত হয়ে পড়ছিলেন।

তাঁর ভারী কণ্ঠ এবং আঞ্চলিক স্বর তার সমসাময়িক অনেকের থেকে তাকে আলাদা করে তুলেছিল। তবে ইরানী শ্রোতাদের বাইরে হাবিব খুব একটা জনপ্রিয় ছিল না, তাঁর সঙ্গীত ফার্সী ঐতিহ্যের সাথে জনপ্রিয় পশ্চিমা সঙ্গীতের মাঝে এক সেতু বন্ধন গড়ে তুলেছিল। অন্য অনেকের সাথে তিনি জিমি হেনড্রিক্স এবং জন লেলনের দ্বারা অনুপ্রাণিত হয়েছিলেন।

#حبیب (#হাবিব) নামক হ্য্যশট্যাগের মাধ্যমে তিনি সোশ্যাল মিডিয়ায় তাকে সবাই স্মরণ করছে।  

হাবিবের অন্যতম এক জনপ্রিয় গান হচ্ছে “রাতের একাকি পুরুষ”। টুইটার ব্যবহার কারী @পারসিস_ডিজাইন প্রায়ত এই গায়ককে স্মরণ করতে গিয়ে তাঁর এই গানের কথা উল্লেখ করেছে:

নিঃসঙ্গ মানুষ, আপনাকে বিদায়

নিজেকে আমির হুইস্কি নামে পরিচয় প্রদানকারী একজন টুইটার ব্যবহার কারী কাফনের কাপড় দিয়ে হাবিবের ঢাকা দেহের ছবি প্রকাশ হতে দেখে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। এই সকল ছবি ইরানের রাষ্ট্রীয় প্রচার মাধ্যমে প্রকাশিত হয়ছে। তিনি মনে করেন তাদের এই প্রকাশনা আক্রমণাত্মক এবং অনৈতিক।

ইরান সংবাদ সংস্থাসমূহ কাফনের কাপড়ে ঢাকা হাবিবের ছবি প্রকাশ করেছে! 😑 আমি জানি ন্যায়ের প্রতি তাদের কোন শ্রদ্ধা নেই, কিন্তু তাদের কোন পেশাগত দায়বদ্ধতা নেই? কোন বোধ নেই।

আজাদেহ টুইট করেছে, হাবিবের মৃত্যুতে তাঁর কণ্ঠ নীরব হয়ে যাবে না:

এমনকি একজন শিল্পীর মৃত্যু হয়, কিন্তু তাঁর শিল্পের নয়।

স্বয়ং আমি নিজে হাবিবের গানের কথা স্মরণ না করে থাকতে পারলাম না :

এমনকি আমার মনে আছে হাবিবের কথা, যখন আমি তেহরান থেকে গাড়ি চালিয়ে আহওয়াজ যাচ্ছিলাম, তখন গাড়িতে একটাই গানের ক্যাসেট বার বার বাজাচ্ছিলামঃ ক্যাসেটের সবচেয়ে সেরা অংশটা ছিল হাবিব মোহেবিয়ানের গান।

হাবিব-এর পুত্র মোহাম্মদ নিজেও একজন গায়ক । তারা দুজনে মিলে ২০০৩ সালে জাভুনি (যৌবন) নামের একটি গানের ক্যাসেট বের করে, যা ইরান এবং ইরানের বাইরের ইরানী জনগোষ্ঠীর মাঝে জনপ্রিয় হয়ে উঠেছিল।

আমরা স্বয়ং হাবিবের কণ্ঠের এক গান শুনিয়ে এই লেখার উপসংহার টানব।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .