- Global Voices বাংলা ভার্সন - https://bn.globalvoices.org -

রাশিয়ায় বাধ্যতামূলকভাবে সেনাবাহীনিতে যোগ দেওয়া সেনাদের অধিকার রক্ষায় এক মোবাইল এ্যাপ

বিষয়বস্তু: আইন, ডিজিটাল অ্যাক্টিভিজম, নাগরিক মাধ্যম, মানবাধিকার, রুনেট ইকো
রুশ সামরিক বাহিনীতে বাধ্যতামূলক ভাবে যোগ দেওয়া সেনারা। ছবি মিল.রু-এর সৌজন্য

রুশ সামরিক বাহিনীতে বাধ্যতামূলক ভাবে যোগ দেওয়া সেনারা। ছবি মিল.রু-এর সৌজন্য

মানবাধিকার একটিভিস্ট রাশিয়ায় বাধ্যতামূলক ভাবে যোগ দেওয়া সেনাদের জন্য এক মোবাইল এ্যাপস চালু করেছে যা সামরিক বাহিনীর সবচেয়ে আলোচিত বিষয় সম্বন্ধে প্রয়োজনীয় তথ্য প্রদান করবে এবং স্বতন্ত্রভাবে ভাবে তাদের অধিকার রক্ষায় সুযোগ প্রদান করবে।

ড্রাফটি অনলাইন [1]-এর সূচনা করেন “সোলজার্স মাদার অফ সেন্ট পিটার্সবার্গ [2]” নামক এক অলাভজনক প্রতিষ্ঠান। এটি প্রতিষ্ঠা করেছে সেই সকল তরুণদের মা যাদের রাশিয়ার সামরিক বাহিনীতে বাধ্যতামূলক ভাবে যোগ দিতে হয়েছে। এই সংগঠনের উদ্দেশ্য এই সকল সেনাদের নির্যাতন এবং অধিকার লঙ্ঘন প্রতিরোধ করা, প্রশিক্ষনার্থী হিসেবে এই সকল সেনারা প্রায়শঃ এসবের মুখোমুখি হয়।

এই এ্যাপ যা যে কোন সেনা, যার মধ্যে সেই সমস্ত ব্যক্তিও অর্ন্তভুক্ত যারা সামরিক বাহিনীর যে কোন কাজে যুক্ত হওয়ার ইচ্ছে পোষণ করে এবং তারা এক সামরিক বাহিনী থেকে অব্যহতি পেতে চায়, তারা দ্রুত আইনগত উপদেশ পেতে পারবে এবং এই সকল সেনাদের অধিকার লঙ্ঘনের ক্ষেত্রে সাধারণত যে সব ব্যাপক প্রচলিত পদ্ধতি রয়েছে সেসবের উদাহরণ সম্বন্ধে জানতে পারবে। যদি এই ধরণের লঙ্ঘনের ঘটনা ঘটে সেক্ষেত্রে ব্যবহারকারী প্রয়োজনীয় ঘোষণার টেম্পলেট বা নির্দেশনা পেতে পারে এবং সংশ্লিষ্ট সুপারভাইজার বডিতে অভিযোগ অথবা তথ্যের জন্য যোগাযোগ করতে পারবে, একই সাথে মানবাধিকার সংস্থা সমূহের হটলাইন নাম্বার পেতে পারে। এক বিশেষ চুক্তি স্বাক্ষরের মাধ্যমে বাধ্যতামূলক ভাবে যোগ দেওয়ে এই সব সেনার একই সাথে এই এ্যাপ ব্যবহার করে সামরিক সংগঠনের নিজস্ব আইনজীবীর সাথে যোগাযোগ করতে পারবে।

ড্রাফটি অনলাইন এ্যাপের এক গুরুত্বপূর্ণ ফিচার হচ্ছে “এমার্জেন্সি বাটন”। এটি এক বিশেষ ফিচার যা ব্যবহারকারীদের কর্তৃপক্ষের অগোচরে তাদের পরিবারের কাছে এক বিশেষ ম্যাসেজ পাঠিয়ে দেবে এই ঘটনা তাদের অবৈধ ভাবে আটকে রাখা হয়েছে এবং জোর করে সামরিক বাহিনীতে ভর্তি করা হয়েছে।

সম্প্রতি এই এ্যাপস এ্যান্ড্রয়েড-এর গুগলপ্লেতে [3] পাওয়া যাচ্ছে।

দি সোলজার্স মাদার্স অফ সেন্ট পিটার্সবার্গ নামক সংগঠনটির জন্ম ১৯৯১ সালে, যার উদ্দেশ্য সামরিক বাহিনীতে যে নির্যাতন এবং রাশিয়ায় বাধ্যতামূলক ভাবে সামরিক বাহিনীতে সেবা প্রদান করতে আসা সৈনিক ও তাদের পরিবারের জন্য আইনগত সহায়তা প্রদান করে। আগস্ট ২০১৪ তারিখে, রাশিয়ার ২০১২ আইনের অধীনে এই এনজিওকে “বিদেশী এজেন্ট” হিসেবে অভিহিত করা হয় যে আইনের অধীনে রাশিয়ার অলাভজনক সংগঠন সমুহকে বিদেশী সাহায্য গ্রহণ করার ক্ষেত্রে এই অভিধা বা লেবেল গ্রহণ করতে হবে এবং নিশ্চিতভাবে রাজনৈতিক কর্মকাণ্ডে যুক্ত থাকতে হবে। এই এনজিও দাবী করছে যে “বিদেশী এজেন্ট” হিসেবে অভিহিত হওয়ার পূর্বে তারা বিদেশ থেকে অনুদান গ্রহণ বন্ধ করে দিয়েছে। অক্টোবর ২০১৫-এ রাশিয়ার বিচারমন্ত্রী “সোলজার্স মাদার্স অফ সেন্ট পিটার্সবার্গ” নামক সংগঠনকে “বিদেশী এজেন্টের” তালিকা থেকে অব্যহতি প্রদান করেছেন।