বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

মস্কো পুলিশকে সামাজিক মিডিয়াতে তাদের কাজ নিয়ে আলোচনা করতে নিষেধ করা হয়েছে

Photo of Russian police officers, 2013, by Vitaly V. Kuzmin on Wikimedia Commons, CC BY-SA 3.0.

রাশিয়ার একজন পুলিশ অফিসার। ছবি ভিতালি ভি কুজমিনের, উইকিমিডিয়া কমন্সের সৌজন্যে – বাই-এসএ ৩.০ লাইসেন্সের আওতায় প্রকাশিত।

রাশিয়ার রাজধানী মস্কোতে পুলিশ কর্মকর্তারা এখন থেকে সামাজিক নেটওয়ার্ক এবং মেসেজিং অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহার করে কাজ সংক্রান্ত কোন তথ্য আদান-প্রদান করতে পারবেন না এই মর্মে আনুষ্ঠানিক নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। আইন প্রয়োগকারী কর্মকর্তাদের বলা হয়েছে যে তারা যেন সরকারি যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহার করে নিরাপদ নেটওয়ার্কের মাধ্যমে অফিসিয়াল যোগাযোগ সম্পন্ন করে।

রুশ সরকারের সরকারী সংবাদ সংস্থা রসিস্কিয়া গ্যাজেটা রিপোর্ট করেছে যে মস্কোর আইন প্রয়োগকারীরা ভিকনটাক্টে, অডনোক্লাসিনিকি, ফেসবুক, ইন্সটাগ্রাম, বা টুইটারের মতো সামাজিক নেটওয়ার্ক ব্যবহার করে পেশাদারী কার্যকলাপ সংক্রান্ত কোন তথ্য আদান প্রদান করতে পারবেন না এমন নিষেধাজ্ঞা এসেছে। উপরন্তু আরও তালিকায় রয়েছে টেলিগ্রাম, ভাইবার, হোয়াটসঅ্যাপ এবং ভিডিও কনফারেন্সিং /ভিওআইপি সফটওয়্যার স্কাইপ ইত্যাদি ব্যক্তিগত মেসেজিং অ্যাপ। এগুলো ব্যবহার করে তাদের কোন কাজ নিয়ে আলোচনা করতে নিষেধ করা হয়েছে।

ওই রিপোর্ট অনুযায়ী অবশ্য শহরের পুলিশ অফিসাররা এই সকল প্ল্যাটফর্ম এবং অ্যাপস ব্যবহার করে ব্যক্তিগত যোগাযোগ বজায় রাখতে পারবেন এমন বলা হয়েছে।

সকল কাজ-সম্পর্কিত আলোচনায় এবং সরকারি কোন দলিল বা কাগজপত্র এখন সরকারী স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ইমেইল সিস্টেমের মাধ্যমে বিনিময় করতে হবে। রাজধানীর পুলিশ কর্তৃপক্ষ অনুযায়ী, একমাত্র ওটাতেই নিরাপত্তা এবং তথ্য সুরক্ষা “সর্বোচ্চ মানের” রয়েছে।

রসিস্কিয়া গ্যাজেটার মতে পুলিশ কর্মকর্তারা সরকারি যোগাযোগ মাধ্যম এর চেয়ে বাণিজ্যিক যোগাযোগ প্রযুক্তি ব্যবহার করতে বেশী পছন্দ করে। কারণ এগুলো আরও দক্ষ, দ্রুতগতির, এবং ব্যবহার করা সহজ। উদাহরণস্বরুপ রাস্তার পুলিশ টহল অফিসাররা তাদের নির্দিষ্ট রেডিও ফ্রিকোয়েন্সি বা নিরাপদ সংযোগ ব্যবহার করার বদলে সামাজিক নেটওয়ার্ক এবং তাদের মেসেজিং ফাংশন ব্যবহার করে ট্রাফিক দুর্ঘটনা ও অন্যান্য ঘটনা সম্পর্কে তথ্য আদান প্রদান করে থাকে।

В столичном полицейском главке подчеркнули, что полиция — не общественная организация, служебной информацией сотрудники должны обмениваться через закрытую сеть, которая определенным образом защищена. Когда они начинают слать служебные документы через бытовые соцсети, мессенджеры — это неправильно.

রাজধানীর পুলিশ অধিদপ্তর বলেছে যে পুলিশ বাহিনীর কোন সুশীল সমাজের সংগঠন নয়। তাই তার কর্মচারীদের উচিৎ একটি নিরাপদ ও বদ্ধ নেটওয়ার্কের মধ্যে তথ্য বিনিময় করা যাতে তার সংরক্ষণ এবং সুরক্ষা নিশ্চিত করা যায়। যখন তারা সাধারণ সামাজিক নেটওয়ার্ক ব্যবহার করে কাজ-সংক্রান্ত নথি পাঠায় – তা নিশ্চয় ভুল পদক্ষেপ।

এ বছর জানুয়ারী মাসে একজন রুশ সাংসদ প্রস্তাব করেছিলেন যে রুশ নাগরিকদের কর্মক্ষেত্রে সুষ্ঠু কাজ ও শৃঙ্খলা নিশ্চিত করার জন্য সামাজিক নেটওয়ার্ক এবং মেসেঞ্জারের ব্যবহার আইন দ্বারা নিষিদ্ধ করা উচিত। তবে তিনি রাষ্ট্রীয় প্রতিষ্ঠান এবং বেসরকারী কোম্পানীর জন্য এধরনের সীমাবদ্ধতা ও নিয়ন্ত্রণ প্রয়োগের জন্য কোন স্পষ্ট প্রক্রিয়ার কথা উল্লেখ করেন নি। এই নিষেধাজ্ঞার বিল নিয়ে অনেকেই উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেন নি এবং তার ভাগ্য বর্তমানে অজানা।

রুশ রাষ্ট্রীয় হর্তাকর্তারা বেশ কিছু দিন ধরেই মেসেঞ্জার অ্যাপ এর উপর বিভিন্ন সীমাবদ্ধতা আরোপের কথা ভাবছিলেন। গত বছর জুন মাসে রাশিয়ার মিডিয়া পর্যবেক্ষক সংস্থা রসকমনাদজর এর প্রধান আলেকজান্দর ঝারভ প্রস্তাব দিয়েছিলেন যে রাশিয়ার আমদানির বিকল্প কৌশলের অংশ হিসেবে, বিদেশী অ্যাপস এর উপর নির্ভরতা কমানোর জন্যে দেশটির নিজের জাতীয় টেক্সট মেসেজিং সেবা বানানো উচিত।

২০১৫ সালের নভেম্বর মাসে রুশ সাংসদ আলেকজান্দর আগিয়েভ রাশিয়ান রাষ্ট্রীয় নিরাপত্তা সার্ভিস (এফএসবি) কে অনুরোধ করেছিলেন টেলিগ্রাম মেসেঞ্জার অ্যাপ্লিকেশন ব্লক করতে। কারণ হিসেবে বলেছিলেন যে এটি “সক্রিয়ভাবে ইসলামিক স্টেট এর সন্ত্রাসী কর্তৃক চরমপন্থী বিষয়বস্তু বিতরণের কাজে ব্যবহৃত হচ্ছে” এবং অ্যাপটি ব্যবহারকারী কর্তৃক এ সংক্রান্ত অভিযোগ “উপেক্ষা” করেছে। জবাবে, রুশ যোগাযোগ মন্ত্রী নিকোলাই নিকিফরভ টেলিগ্রাম এর সপক্ষে বলেন যে কর্তৃপক্ষ কর্তৃক কোন অ্যাপ্লিকেশন ব্লক করা উচিত নয়। কিন্তু এর পরিবর্তে যারা অ্যাপ ব্যবহার করে অবৈধ কার্যকলাপে নিয়োজিত তাদের খুঁজে বের করা এবং বিচারের মুখোমুখি করা উচিত।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .