বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

বিভক্তি নয়, ঐক্যের দেয়াল

Wall of kindness in Peshawar. Photo by: Serve Mankind Facebook Page

পেশোয়ারে দয়ার দেয়াল। সার্ভ ম্যানকাইন্ড ফেইসবুক পেইজ থেকে ছবিটি নেয়া হয়েছে।

ইতিহাসজুড়ে দেয়াল বিচ্ছেদ, পৃথকীকরণ আর বিভক্তি’র প্রতীক হয়ে আছে। তবে “দয়ার দেয়াল” এর ঠিক উল্টোটা হয়েছে। তীব্র ঠান্ডা থেকে দরিদ্র্, গৃহহীনদের জন্য ইরানিরা “দয়ার দেয়াল” নির্মাণ করেছে। দেয়ালের গায়ে কাপড় ঝুলিয়ে রাখার হুক দিয়ে রেখেছে। সেখানে লেখা রয়েছে- যদি আপনার দরকার হয়, তবে নিন। যদি অতিরিক্ত থাকে, তবে এখানে দিয়ে যান। দরিদ্র মানুষদের অনুদান, কোট, টুপি, প্যান্ট এবং গরম কাপড় দেয়ার ইরানি কার্যক্রম বাইরের দেশগুলোতেও সাড়া ফেলেছে।

এই প্রচারণা কার্যক্রম প্রথম শুরু হয় ইরানের মাশহাদে। এরপর তা পাকিস্তান এবং চীনে ছড়িয়ে পড়ে। বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়া “দয়ার দেয়াল” কার্যক্রমের ছবি ও গল্প রইলো এখানে।

ইরান: যেখান থেকে শুরু

মাশহাদে তুষার পড়া শুরু হওয়ার পর এই কার্যক্রম শুরু হয়:

মাশহাদে তুষারপাত শুরু হয়েছে। চমৎকার লাগছে।

ছবি তোলার জন্য চমৎকার হলেও শীতকাল গৃহহীন দরিদ্র মানুষের জন্য খুবই খারাপ সময়। ধীরে ধীরে “দয়ার দেয়াল” হ্যাশট্যাগ পরিচিতি পেতে শুরু করে। দরিদ্র মানুষের সাহায্যের জন্য জনগণের উদ্যোগের ছবিতে ভরে ওঠে:

Wall of Kindness #Kerman located on Khajoo street, before the intersection on Khajoo, on the left #yalda in #Kerman

কেরমানের দয়ার দেয়াল। এটি খাজো স্ট্রিটে অবস্থিত। খাজো সংযোগের আগে কেরমানের ইয়ালডার বামে পড়বে এটি।

#wallofkindness

দয়ার দেয়াল।

Wall of kindness in Shahsavar, next to the mosque neighborhood of Shahsavar

শাহসাভারের দয়ার দেয়াল। শাহসাভারের মসজিদের কাছেই এটি অবস্থিত।

এরপর: চীন

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে “দয়ার দেয়াল”-এর ছবি দেখে উদ্বুদ্ধ হতে বেশি সময় নেয়নি চীন। গরীব মানুষদের কাপড় দেয়ার জন্য চীনের সংবাদ প্রতিবেদনগুলোতে সুপারিশ করা হয়:

চীনের চেংগু’র “দয়ার দেয়াল”। এই শহর যেখানে মিসেস গিবস কলেজে গিয়েছিলেন।

শীতে আশ্রয়হীন দরিদ্র মানুষের সাহায্যের জন্য চীনের লিউযু শহরে “দয়ার দেয়াল” স্থাপন করা হয়েছে।

ইরানের “দয়ার দেয়াল” এখন চীনেও। স্পষ্টত, এটা ইরানের জনগণের কূটনীতির কৃতিত্ব।

পাকিস্তানও যোগ দিয়েছে

করাচি’র বাহরিয়া কলেজের শিক্ষক ইসমাত আলি এবং মারিয়া ওয়াকাস নিজেদের মতো করে একটি “দয়ার দেয়াল” প্রতিষ্ঠার উদ্যোগ নিয়েছেন:

So, my dear friends and family…I come to you again. This time in collaboration with my senior, Ma'am Ismat Ali. We are starting a wall of kindness in karachi. Area will be mentioned later. Please donate generously your clothing or shoes that are just sitting in your cupboards and can help the needful. Truly grateful. Let's begin 2016 with a new heart!!
Posted by Mariya Waqas on Tuesday, December 29, 2015

প্রিয় বন্ধু ও ভাইবোনেরা… আমি আবার আপনাদের কাছে এসেছি। তবে, এবার আমার সাথে অগ্রজ সহকর্মী ইসমাত আলি রয়েছেন। আমরা করাচিতে “দয়ার দেয়াল” স্থাপন করতে যাচ্ছি। কোথায় কোথায় করা হবে, সেটা পরে জানানো হবে। আপনাদের অব্যবহৃত জামাকাপড়, জুতো; যা আলমারিতে অলস পড়ে আছে, সেগুলো দরিদ্রদের জন্য মুক্ত হস্তে দান করতে পারেন। আপনি এগিয়ে আসলে আমরা সত্যিই কৃতজ্ঞ থাকবো। চলুন, আমরা নতুন হৃদয় নিয়ে ২০১৬ সাল শুরু করি। মারিয়া ওয়াকাস ২৯ ডিসেম্বর ২০১৫ তারিখে লেখাটি পোস্ট করেছেন।

Wall of Kindness in Karachi. Photo Courtesy: Wall of Kindness Facebook Page

করাচি’র দয়ার দেয়াল। ছবিটি পাকিস্তান দয়ার দেয়াল ফেইসবুক পেইজ থেকে নেয়া হয়েছে।

পেশোয়ার এবং লাহোরে বাসিন্দারাও তাদের শহরে “দয়ার দেয়াল” প্রতিষ্ঠা করেছে। পেশোয়ারের সার্ভ ম্যানকাইন্ড নামের একটি এনজিও লিখেছে:

দয়ার দেয়ালে একজন মহিলা কাপড় দান করছেন। পেশোয়ারের হায়াটাবাদে তৃতীয় পর্যায়ের কার্যক্রম চলছে। আপনিও চলে আসুন আজকে।

দয়াল দেয়াল: যাদের কাপড় দরকার, তাদের জন্য খুব চমৎকার একটি উদ্যোগ। আপনার অব্যবহৃত পোশাক দয়া করে দান করুন। পেশোয়ারের হায়াটাবাদে তৃতীয় পর্যায়ের কার্যক্রম চলছে।

এই উদ্যোগ ছড়িয়ে দেয়ার জন্য লাহোরের বাসিন্দারা টুইটারকে বেছে নিয়েছে।

লাহোরের ফিরদৌস মার্কেটের কাছে জামে শেহরিন পার্কে “দয়ার দেয়াল” স্থাপন করা হয়েছে। ভালো কাজে সাহায্যের জন্য সবাই এগিয়ে আসুন।

লাহোরের ফিরদৌস মার্কেটের কাছে জামে শেহরিন পার্কে “দয়ার দেয়াল” স্থাপন করা হয়েছে। ভালো কাজে সাহায্যের জন্য সবাই এগিয়ে আসুন।

বন্ধুরা, এখানেই শেষ নয়

কাপড়ের পাশাপাশি ইরানিরা খাবারও দিচ্ছে। একটি বেকারি প্রতিষ্ঠান দরিদ্র, আশ্রয়হীন মানুষদের পাউরুটি দিয়েছে। বক্সে লেখা আছে- যাদের দাম দেয়ার সামর্থ্য নেই, তাদের জন্য এই পাউরুটি ফ্রি।

The wall of kindness has arrived at the bakery of kindness.

“দয়ার দেয়াল” এখন দয়ার বেকারিতে এসে পৌছেছে। .

আমি আমার শেষ টুইটে শুধু এইটুকু বলতে চেয়েছি যে, ইরানের বেকারিও কার্যক্রমে যোগ দিয়েছে। সেখানে লেখা ছিল: যাদের দাম দেয়ার সামর্থ্য নেই, তাদের জন্য এই পাউরুটি ফ্রি। এটা নিয়ে একটু ভাবুন।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .