বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

মায়ানমারের শেষ রাজকীয় রাজধানীতে কুয়াশাচ্ছন্ন ভোরে উঁকি দেওয়া সূর্যের ছবি

Photo by Zaw Zaw / The Irrawaddy

ছবি জাও জাও /ইরাবতীর সৌজন্যে

জাও জাও-এর লেখা এই প্রবন্ধটি ইরাবতী নামক পত্রিকা থেকে নেওয়া, যা মায়ানমারের এক স্বাধীন সংবাদ সাইট এবং লেখা বিনিময় চুক্তি অনুসারে এটি গ্লোবাল ভয়েসেস-এ পুনরায় প্রকাশ করা হল।

মাওট এর উত্তরপূর্বে অবস্থিত এই এলাকাটি মান্দালয়-এর এক প্রাসাদ দ্বারা ঘিরে রয়েছে, যেখানে এই একই নামের পাহাড়টি পর্যটক এবং ফটোগ্রাফারদের কাছে এক আশার প্রতীক যারা মায়ানমারের সর্বশেষ রাজকীয় রাজধানীর সূর্য উদয়ের প্রখ্যাত দৃশ্য ধারন করতে ইচ্ছুক।

১২ জানুয়ারি, ২০১৬ তারিখের ভোর বেলা ইররাওয়াদ্দির ফোটোগ্রাফার জাও জাও সূর্য ওঠার অপেক্ষায় মান্দালয় পাহাড়ের চুড়ায় ওঠে। এই এলাকার ১২ ডিগ্রী সেলসিয়াসের শীতল তাপমাত্রার এই আবহাওয়া ছিল সেই বিশেষ মূহূর্তটি ধারণ করার একেবারে সঠিক সময়, যেহেতু ভোরের কুয়াশা ভেদ করে সে সময় উদিত সূর্যের রশ্মি প্রকাশ হচ্ছিল।

কিন্তু এই দৃশ্য দেখতে যাওয়া ব্যক্তিদের জন্য সতর্ক বার্তাঃ যদি আপনি পুরোপুরি কুয়াশাছন্ন এক সকালে শ্বাস গ্রহণ করতে চান, তাহলে সকাল ছয়টার আগে পাহাড় চূড়ায় উঠতে হবে।

Photo by Zaw Zaw / The Irrawaddy

ছবি জাও জাও/ইরাবতীর সৌজন্যে

Photo by Zaw Zaw / The Irrawaddy

ছবি জাও জাও/ইরাবতীর সৌজন্যে

Photo by Zaw Zaw / The Irrawaddy

ছবি জাও জাও/ইরাবতীর সৌজন্যে

Photo by Zaw Zaw / The Irrawaddy

ছবি জাও জাও/ইরাবতীর সৌজন্যে

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .