বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

মেক্সিকোর ডিয়া ডে লস মুয়ের্টোস সম্বন্ধে পাঁচটি তথ্য

Altar made by a student at City College of San Francisco. Photo by Lupitanews.

সান ফ্রান্সিস্কোর সিটি কলেজের এক ছাত্র নির্মিত অল্টার, ছবি লুপিতা পেইমাবার্ট-এর।

সারা যুক্তরাষ্ট্র জুড়ে নাগরিকরা ২ নভেম্বর তারিখটিকে ডে অফ ডেড বা মৃতদের দিন ( ডিয়া ডে লস মুয়ের্টোস) হিসেবে পালন করে, যা মূলত মেক্সিকোর এক উদযাপিত উৎসব, যে দিনটিতে মৃতদের প্রতি সম্মান জানানো হয় এবং এটি মৃত্যুকে ভিন্ন ভাবে চিন্তা করার একটি দিন।

এই ঐতিহ্যের অসাধারণ নান্দনিক দিক হচ্ছে– এই দিন উপলক্ষ্যে মাথার খুলি, ফুল, পূর্নাঙ্গ বেদী সাজিয়ে রাখা হয়-এই বিষয়গুলো যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিকদের উত্তেজিত করে, মৃতের পোষাক হ্যালোউইন-এর সময় সবচেয়ে জনপ্রিয় এক পোষাকে পরিণত হয়েছে। এই সময়ে পপ সংস্কৃতি সাথে মেক্সিকোর চলচ্চিত্র নির্মাতা গুইলিয়ামো ডেল টারোর দি বুক অফ লাইফ এবং মুক্তির অপেক্ষায় থাকা পিক্সার কোম্পানির কোকো নামক চলচ্চিত্র দেখে যে কেউ ছুটির দিনকে উপভোগ্য করে তুলতে পারে।

যুক্তরাষ্ট্রের বৃহৎ স্প্যানিশ ভাষী জনগোষ্ঠীর যে বাজার, তার প্রতি বিভিন্ন কোম্পানির আগ্রহ রয়েছে, যারা ২ নভেম্বরের উৎসব বিষয়ে তাদের বিপণন এবং সম্প্রদায়ের মধ্যে সম্পর্কের তৈরির চেষ্টা করছে। এর এক উদাহরণ হচ্ছে সুপার মার্কেটের চেইন শপ ট্রাডের জো সুন্দর করে সাজানো মাথার খুলি দিয়ে কিছু দোকান সাজিয়ে রাখা এবং অন্যান্য সামগ্রীর সাথে গাঁদাফুল বিক্রি করা।

ট্রাডের জো-এ মৃতদের দিনের পানীয় ।

মেক্সিকোর অত্যন্ত প্রচলিত ডুডল দিয়ে গুগল এই দিনটি উদযাপন করছে।

ব্যবসা, সম্প্রদায়, গণ সংস্কৃতি, অথবা ব্যক্তিগত কারণের মধ্যে থেকে এখানে মেক্সিকোর এই উদযাপন সম্বন্ধে পাঁচটি তথ্য প্রদান করা হয়েছে।

১. মৃতদের দিন পালন করা হয় ২ নভেম্বরে।

এর একদিন আগে বা পরে নয়।

২. এটা মেক্সিকোর অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ এক ঐতিহ্য .

মৃত প্রিয় স্বজনদের জন্য ফুল, খাবার এবং পানীয় নিয়ে কবরস্থানে গিয়ে হাজির হওয়ার মধ্যে দিয়ে আমরা বড় হয়েছি। আমরা যে পানীয় গ্রহণ করি তা তাদের উদ্দেশ্য পান করি, সত্যিকার ভাবে।

৩. কম বেশী হলেও মধ্য আমেরিকা এই দিবসটি উদযাপন করা হয়।

কিন্তু দক্ষিণ আমেরিকার খুব অল্প কয়েকটি দেশ এই উৎসব পালন করে।

৪. সানফ্রান্সিসকোতে এই উদযাপনটা একেবারে আলাদা।

সানফ্রান্সিসকো মিশন ডিস্ট্রিক্ট (শহরের সর্ববৃহৎ মেক্সিকোর নাগরিকদের বসবাসের স্থান) ৭০ দশকের ঐতিহ্য গ্রহণ করেছে, এটাকে এখানকার ঐতিহ্যের সাথে যোগ করে নিয়েছে এবং নিউ অরলিয়েন্সে-এর জ্যাজের শোভাযাত্রার আদলে মিশিয়ে এর খানিকটা রূপান্তর করা হয়েছে যেখানে অ্যাজটেক রীতিতে মুখে রং মাখা এবং পোষাক পড়ে আশীর্বাদ প্রদান এবং নাচা হয়।

৫. এটি মৃত্যুর প্রতি এক ভিন্ন দৃষ্টিভঙ্গি তুলে ধরার চেষ্টা করে।

মেক্সিকোভ ল্যাটিনো উৎসবে, নাগরিকরা মৃত্যু এবং মৃতদের ভয় পেতে শেখে না, তার বদলে তারা এই বিষয়টি নিয়ে খেলা করে এবং আমাদের মৃত্যু নিয়ে উপহাস করে।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .