বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

হেইতীয় রাষ্ট্রপতির লিঙ্গবৈষম্যমূলক মন্তব্য ক্যারিবীয় নারীবাদীদেরকে স্মরণ করিয়ে দেয় যে তাদের এখনও অনেক দুর যেতে হবে

Michel Martelly, President of Haiti; image by OEA - OAS, photo credit Juan Manuel Herrera/OAS, used under a CC BY-NC-ND 2.0 license.

হেইতি-এর রাষ্ট্রপতি মিখায়েল মার্তের্লী; ছবি ওইএ – ওএএস এর সৌজন্যে, ছবির কৃতিত্ব হুয়ান ম্যানুয়েল হেরেরা/ওএএস, CC BY-NC-ND 2.0 লাইসেন্স-এর অধীনে ব্যবহার করা হয়েছে।

লিঙ্গ বিষয়টি নিয়ে সম-অধিকারের লড়াই একটি চলমান ঘটনা, পৃথিবীর কোন কোন অংশে সম্ভবত অন্যান্য অংশের থেকে বেশী। নারীদের প্রতি বিদ্বেষ-এর বেশীরভাগই সাংস্কৃতিকভাবে মেনে নিতে দেখা যায় বলে মতামত ব্যক্ত করে ওয়েষ্ট ইন্ডীয় নারীদেরকে যে পরিমাণ নির্যাতন সহ্য করতে হয় সে বিষয়ে ক্যারিবীয়-কেন্দ্রীক নারীবাদী ব্লগ কোড রেড খুবই মর্মাহত হয়েছে যারা নিয়মিতভাবেই এই অঞ্চলের লিঙ্গ-সম্পর্কিত অন্যায্যতাগুলোকে তুলে ধরে।

এই ব্লগটি হেইতির রাষ্ট্রপতি মিখায়েল মার্তেলীকে জড়িত করে জুলাইয়ের শেষের দিকের একটি ঘটনাকে কেন্দ্র করে বেশীভাগ আলোকপাত করছিল। মিরেগোয়ান-এ একটি প্রচারণা চলাকালীন জনতার মধ্যে থেকে একজন নারী জনসম্মুখে মার্তেলী এবং তার সরকার সম্পর্কে সমালোচনা করে এবং তার এলাকায় বিদ্যুৎ পরিষেবার অভাবের বিষয়ে তারা কী পদক্ষেপ নিচ্ছে সে বিষয়ে জানতে চায়। এর উত্তরে রাষ্ট্রপতি উত্থাপিত বিষয়টি সম্পর্কে কিছু না বলে, বরং নারীটিকে ‘একজন পুরুষ খুঁজে নিয়ে ঝোপের আড়ালে যেতে’ বলে  — সত্যিকার অর্থেই সে নারীটির উদ্বিঘ্নতাকে খারিজ করে দিয়ে নারীটিকে যৌনসঙ্গম করার মাধ্যমেই তার সমস্যার সমাধান হবে বলে ব্যক্ত করে।

মার্তেলীর মন্তব্য নিছক একটি লিঙ্গবৈষম্যমূলক হঠকারী উক্তির থেকে আরও বেশী তীব্র তা কোড রেড’ এর পর্যালোচনায় উঠে এসেছে:

Michel Martelly threatened a woman with sexual violence because she sought to hold him accountable to the people.

মিশেল মার্তেলী একজন নারীকে যৌন সহিংসতার মাধ্যমে হুমকি প্রদান করেছে কারণ সে তাকে জনগণের কাছে জবাবদিহি করতে চেষ্টা করেছে।

এই ঘটনা সম্পর্কিত একটি প্রতিবেদন থেকে ব্লগটি সরাসরি উদ্ধৃতি দিয়েছে যেখানে মার্তেলীর বিরুদ্ধে আরও খারাপ আচরণ করার অভিযোগ করা হয়েছে — যদিও এই দাবীগুলো সম্পর্কে কোন প্রমাণ নেই, তবে এই মায়ামি হেরাল্ড প্রতিবেদনটি নিশ্চিত করেছে যে রাষ্ট্রপতির মন্তব্যকে ধারণ করা হয়েছে এবং হেইতীয় বেতার-এ প্রচার করা হয়েছে।

‘বোকা যারা নারীদেরকে সম্মান করে না’

এর মধ্যে, মিরেগোয়ান-এর এই ঘটনাটি নিয়ে গণরোষ খুব দ্রুতই বিস্তার করে — ধরিত্রী এবং ব্লগ জগৎ উভয় জায়গাতেই জনগণ বিদ্রোহ করলো — এবং মার্তেলী সরকারের বেশ কয়েকজন নারী সদস্যা পদত্যাগ করলেন।

নারীরা #মিরেগোয়ান-এ রাষ্ট্রপতি #মার্তেলী-র করা মন্তব্যের প্রতিবাদ করতে #হেইতি-এর রাজধানী পোর-ও-প্র্যাঁস উদ্দেশ্যে যাত্রা করে

মার্তেলীর লিঙ্গ বৈসম্যমূলক মন্ত্যব্যের বিরুদ্ধে এমন কি একটি অনলাইন আবেদনও করা হয়, এবং টুইটার-এ নেটিজেনরা ঐ নারীর করা সমালোচনার বিরুদ্ধে মার্তেলীর নারী বিদ্বেষমূলক প্রতিউত্তর সম্পর্কে আলোচনা করেছে:

#মিরেগোয়ান-এ ঘটনাটি ঘটার পর থেকে নারীদের কী বলার আছে সে বিষয়ে সম্মান দেখায় না যে বোকা সেই #মার্তেলীর কথা না শোনা আমার কর্তব্যে পরিণত হয়েছে

একজন টুইটার ব্যবহারকারী ভেবেছে মার্তেলীর এই লিঙ্গ বৈষম্য দেখানো তার সরকার সম্পর্কে অভিযোগকৃত দুর্নীতিমূলক কার্যপ্রণালীরই একটি সম্প্রসারণ:

#হেইতির #মার্তেলী শুধুমাত্র দুর্নীতিগ্রস্তই নয়, সে একটি লিঙ্গবৈষম্যমূলক শূকরও বটে

অন্যান্যরা তার এই প্রতিক্রিয়ায় অবাক হয় নি:

সে কতদুর যেতে পারে তা দেখার জন্য #মার্তেলী ক্রমশ মাত্রা ছাড়িয়েই যাচ্ছে এবং সে বহুদুরই গেছে…সে কখনওই তার মুখোমুখী হতে পারে এমন কাউকেই সহ্য করতে পারে নি

আমি এই সিদ্ধান্তে উপনীত হয়েছি যে সে এখন আর তোয়াক্কা করে না এবং তা তার আচরণের মধ্যে দিয়ে প্রতিফলিত হচ্ছে

কারো কারো কাছে যদিও একদা মিষ্টি মিকি নামধারী সঙ্গীতশিল্পী-থেকে-হওয়া-রাজনীতিবিদ এর জন্য এটি কোন অজুহাত নয়:

জাহান্নমে যাও মিষ্টি মিকি যে কোন বিষয়ে আবোলতাবোল বলতে পারে। কিন্তু রাষ্ট্রপতি মিশেল মার্তেলীকে দ্রুত আমার রাষ্ট্রপতি হিসেবে এই অঘটনটির সুরাহা করতে হবে।

অবশ্যই, মার্তেলীর কয়েকজন সমর্থনকারীও আছে…

#রূপকল্প২০০০ এর মারি লুসি যখন #মার্তেলীর নারী বিরোধী মন্তব্যের জন্য অজুহাত দেখাতে দেখা যাচ্ছে তখন @আরটিভিসিহেইতি আন্তর্জাতিক বিষয়কে কেন্দ্র করে তার দিনটি মাঠে ব্যায় করছে

কিন্তু বেশীরভাগ নারীবাদী কর্মী এবং নারী দলগুলো দৃঢ়ভাবে তাদের নিজেদের পিছনে নিজেরা দাঁড়িয়ে আছে:

#মার্তেলীর মন্তব্য সম্পর্কে মহিলা বিষয়ক মন্ত্রণালয়, নারী রাজনৈতিক নেতা, প্রধানমন্ত্রীর নীরবতাকে নারীদের দল নিন্দা জ্ঞাপন করেছে

নারীদের দল বলেছে যে তারা #মার্তেলীর মন্তব্যের উপর ইউএন এবং ইউ_কমিশন-এর প্রতিক্রিয়ার জন্য অপেক্ষা করছে। ‘তাদের কিছু বলার অধিকার আছে'।

আর একজন হেইতীয় কর্মকর্তা পদত্যাগ করেছে:

আর একজন #মার্তেলী সরকারের কর্মকর্তা পদত্যাগ করেছে, এবারের জন কৃষি বিষয়ক মন্ত্রী ফ্রেজনার ডোরসা

ক্যারিবীয় নারীবাদীদের সামনে এখনো দীর্ঘ পথ

ইতোমধ্যে, কোড রেড-এর লেখাটি নারী ও সমকামীদের বিরুদ্ধে হুমকির অন্যান্য আঞ্চলিক ঘটনাগুলোর উদ্ধৃতি দেয়া অব্যহত রেখেছে — বারবেডীয় বিদ্যালয়গামী বালকরা ‘একটি মৌলিক ধর্ষণ-সমর্থনকারী গান: টেক ডিকি এ্যান্ড রোল স্তব করছে যাচ্ছে'; বেলিজ-এ সমকামী-বিরোধী আইন বাতিল করতে কালেব ওরোরকো-এর লড়াইয়ের ফলশ্রুতি; এবং গায়ানাতে একজন নারীবাদী কর্মীর প্রতি একজন সরকারী কর্মকর্তার করা উন্মুক্ত হুমকি — যার মাধ্যমে তারা যুক্তি দিয়েছে ‘নারীদের প্রতি বিদ্বেষ ও সমকামী-বিরোধী সহিংসতা বিষমকামীতার মধ্যেই শেকর গড়ে আছে':

Rape is a footnote. Schoolboys can delight in it and Presidents can threaten women citizens with it.

Feminist activists are told that we need to meet heterosexual men where they are, that we need to allow men their misogyny (as if we have a choice in the matter?) as gender equality is a process that cannot be preempted by our claims to full humanity. We need to be patient and quiet and good. Misogyny is the fabric that our society is made of. Best to lean in rather than undo. Better to workshop than unravel de damn ting!

ধর্ষণ একটি পাদটীকা, বিদ্যালয়ের বালকরা তা নিয়ে আহ্লাদিত হতে পারে আর রাষ্ট্রপতিরা তাদের নারী নাগরিকদেরকে তা দিয়ে হুমকি দিতে পারে।

নারীবাদী কর্মীদেরকে বলা হয়েছে আমাদের বিষমকামী পুরুষরা যেখানে আছে সেখানেই তাদের সাথে মিলিত হওয়া প্রয়োজন, এবং পুরুষদেরকে তাদের নারী বিদ্বেষ (এমন ভাব যে এ বিষয়ে আমাদের পচন্দ-অপছন্দ রয়েছে!) চালিয়ে যেতে দিতে হবে যেহেতু লিঙ্গ সমতা এমন একটি প্রক্রিয়া যা আমাদের পূর্ণ মানবতার দাবীর অগ্রাধিকার বলে অর্জন করা যাবে না। আমাদেরকে ধৈর্যশীল, নিরব এবং ভাল হয়ে থাকতে হবে। নারীদের প্রতি বিদ্বেষ একটি বস্ত্র যা দ্বারা আমাদের সমাজ তৈরী হয়েছে। সবথেকে ভাল হচ্ছে একে মোচন না করে এর উপর ভর দেয়া। এই জঘন্য জিনিসটিকে সমাধান করার থেকে এর উপর কর্মশালা করা ভাল!

লেখাটি একটি হতাশ বাণী দিয়ে শেষ হয়েছে, যদিও ব্লগটি — এবং ক্যারিবীয় অঞ্চল জুড়ে স্পষ্টবাদী নারীরা — দিনের পর দিন লিঙ্গ বৈষম্য নিয়ে লড়াই চালিয়ে যাচ্ছে:

Some days Caribbean queer feminist brilliance beats so boldly it drowns out the constant and multi-directional message that women and girls don’t matter. And the rest of the time? That schoolboys’-chant-President’s-rant stays in your head.

কোন কোন দিন ক্যারিবীয় সমকামী নারীবাদী প্রতিভা এতো দৃঢ়ভাবে ধ্বনিত হয় যে নারী ও বালিকারা কোন বিষয়ই নয় এমন অবিরত ও বহুমুখী বার্তাকে তা দাবিয়ে দেয়। আর বাকী সময়টায়? বিদ্যালয়-বালকদের-স্তব-রাষ্ট্রপতিদের-ফাঁকারব আপনার মস্তিষ্কের মধ্যে রয়ে যায়।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .