বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

তরুণ স্ট্যালিনপন্থী “বিশ্বাসঘাতক” আলেকজান্ডার সলঝেনিৎসিন-এর নতুন মূর্তির মর্যাদাহানি করেছে

Screen Shot 2015-09-08 at 4.07.11 PM

আলেকজান্ডার সলঝেনিৎসিন–এর সদ্য তৈরি করা মূর্তির বুকে তরুন এক স্ট্যালিনপন্থী “বিশ্বাসঘাতক” (জুডাস) শব্দ ঝুলিয়ে দিয়েছে।

ভ্লাদিভস্তকে বাস করা এক ব্যক্তি নোবেল পুরস্কার বিজয়ী লেখক আলেকজান্ডার সলঝেনিৎসিন–এর মূর্তির মর্যাদাহানি ঘটায়, যখন সে উক্ত মূর্তির গলায় জুডাস বা বিশ্বাসঘাতক লেখা এক সাইনবোড বোর্ড ঝুলিয়ে দেয়। নগর পরিষদ এই মূর্তি উন্মোচন করার এক দিন পরে, ৬ সেপ্টেম্বর তারিখে উক্ত ব্যক্তি রাস্তার পাশে রাখা এই মূর্তির পাশে দাঁড়িয়ে নিজের ভিডিও ধারণ করে, সে ক্যামেরার সামনে ব্যাখ্যা করে সলঝেনিৎসিন এক “বিশ্বাসঘাতক” এবং তার ভেতরে “রুশ ভীতি” কাজ করেছিল।

উক্ত ভিডিওতে যাকে দেখা গেছে তাকে মাক্সিম শিনকারেনকো হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। ২৮ বছর বয়স্ক এই ব্যক্তিটি স্থানীয় এক স্ট্যালিনপন্থী। সে তার নিজের ভিকোনটাকটের পাতায় ট্যাঙ্ক, রাশিয়ার রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন চ্যানেল আরটি এবং কমিউনিস্ট পার্টির প্রতি তার আগ্রহের কারণ ব্যাখ্যা করে।

এই ভিডিওতে শিনকারেনকো অভিযোগ করেন যে তিনি এক বছর আগে নগর পৌরসভার কর্মকর্তাদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছিলেন যেন সোভিয়েত ইউনিয়েনের দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের জয়ের ৭০তম বার্ষিকী উপলক্ষে জোসেফ স্ট্যালিনের সম্মানে তার একটি মূর্তি স্থাপন করা হয়, কিন্তু তার এই প্রস্তাব প্রত্যাখান করা হয়। শিনকারেনকো জানান কর্তৃপক্ষের তথ্য অনুসারে ভ্লাদিভস্তকে আর এমন উপযুক্ত জায়গা নেই যেখানে স্ট্যালিনের মূর্তি স্থাপন করা যেতে পারে। তবে শিনকারেনকো দৃঢ়তার সাথে উল্লেখ করে যে নগর পরিষদ সলঝেনিৎসিন-এর মূর্তি যেখানে স্থাপন করেছে, সেখানে স্ট্যালিনের মূর্তি বসানো যেতে পারে। এমনকি সে অনলাইনে এক তাৎক্ষণিক জরিপ পরিচালনা করে এমন এক সাইটের উদ্ধৃতি প্রদান করেছে তাতে প্রদর্শিত হয়েছে যে জরিপে অংশ গ্রহণকারীদের ৭৫ শতাংশ মনে করে সলঝেনিৎসিন-এর নতুন কোন মূর্তির কোন প্রয়োজন নেই।

ভ্লাদিভস্তক-এর পুলিশ বলছে যে তারা সলঝেনেৎসিন-এর মূর্তির প্রতি এই আক্রোশের ঘটনা তদন্ত করবে, তারা এখানে নির্ধারণ করবে যে এক্ষেত্রে কোন অপরাধ সংঘঠিত হয়েছে কিনা।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .