বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

দুর্নীতি উন্মোচন করার প্রেক্ষাপটে মালয়েশিয়ার দুটি সংবাদপত্রের প্রকাশনা স্থগিতের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ

Photo from the Facebook page of Malaysians stand in solidarity with The Edge

মালয়েশিয়া স্ট্যান্ড ইন সলিডারিটি উইথ দি এজ –এর ফেসবুক পাতা থেকে নেওয়া।

প্রায় ৩০০-এর বেশী সাংবাদিক একটিভিস্ট, আইনজীবী এবং সচেতন নাগরিক ৮ আগস্ট কুয়ালালমপুরের কেন্দ্রীয় মার্কেটের সামনে জড়ো হয়েছিল মালেশিয়া সরকারে দুটি সংবাদপত্রের প্রকাশনা স্থগিত করে রাখা এবং সংবাদ ওয়েবসাইট ব্লক করে রাখার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানাতে। এই কর্মসূচি যা #এ্যাটদিএইজক্যাম্পেইন নামে পরিচিত তা সরকারের প্রবল মিডিয়া সেন্সরশিপের বিরুদ্ধে মাঠে নেমে এসেছে।

গত ১৯ জুলাই, সারাওয়াকের দুর্নীতি নিয়ে আওয়াজ সৃষ্টিকারী ওয়েবসাইট মালয়েশিয়ায় বন্ধ করে দেওয়া হয় মূলত “যাচাই না করে তথ্য” পোষ্ট করার জন্য, যা ছিল ১(ওয়ান) এমডিবি-এর দূর্নীতির কেলেঙ্কারির বিষয়ে, ওয়ান এমডিবি হচ্ছে রাষ্ট্রীয় ব্যবস্থাপনায় পরিচালিত বিনিয়োগ প্রতিষ্ঠান। এর কয়েকদিন পরে, ওয়ানএমডিবি সম্বন্ধে সাজানো নথি দিয়ে সংবাদ প্রদানের অভিযোগে দি এজ-নামক প্রকাশনা গোষ্ঠীর দুটি সংবাদপত্রের প্রকাশনা তিন মাসের জন্য স্থগিত করা হয়। যখন ওয়াল স্ট্রিট জার্নালে অভিযোগ আকারে সংবাদ প্রকাশ করা হয় যে ওয়ানএমডিবি-এর মাধ্যমে ৭০০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার দেশটির প্রধানমন্ত্রীর ব্যাংক একাউন্টে হস্তান্তর করা হয়েছে তখন এই স্থগিতাদেশের বিষয়টি একই সাথে প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক জারি করা হয়।

বাজারে সমবেত হওয়ার পর, জনতা বার কাউন্সিল ভবনের দিকে এগিয়ে যেতে শুরু করে। এই র‍্যালি বাক স্বাধীনতা রক্ষা, সংবাদপত্রের ওয়েব সাইট খুলে দেওয়া, এজের বিরুদ্ধে প্রদান করা স্থগিতাদেশ তুলে নেওয়া, এবং ওয়ানএমডিবি সম্বন্ধে সকল তথ্য জানার জনতার অধিকারের প্রতি স্বীকৃতি প্রদানে দাবী জানায়।

নিচে এই র‍্যালিতে বহন করা কিছু প্ল্যাকার্ড এবং ব্যানার এখানে তুলে ধরা হল:

From the Facebook page of Malaysians stand in solidarity with The Edge

মালয়েশিয়া স্ট্যান্ড ইন সলিডারিটি উইথ দি এজ –এর ফেসবুক পাতা থেকে নেওয়া

From the Facebook page of Malaysians stand in solidarity with The Edge

মালয়েশিয়া স্ট্যান্ড ইন সলিডারিটি উইথ দি এজ –এর ফেসবুক পাতা থেকে নেওয়া

এ্যাট দি এইজ নামক টুইটার হ্যাশট্যাগ থেকে নেওয়া আরো কিছু ছবি এখানে তুলে ধরা হল:

এ্যাট দি এইজ শোভাযাত্রায় সহকর্মী মালয়েশীয় এবং সাংবাদিকদের পক্ষে গর্বের সাথে অবস্থান গ্রহণ করেছি।

মত প্রকাশ এবং মতামতের স্বাধীনতার প্রতি নারীবাদীদের সমর্থন

ওয়ানএমডিবি সম্বন্ধে প্রশ্ন করা কোন অপরাধ নয়।

সাংবাদিকতা কোন অপরাধ নয়

এ্যাট দি এইজে

ফেসবুকে তার লেখা এক স্ট্যাটাস আরুনা সেনা এর সাথে তার একাত্মতা প্রকাশ করেছে :

মিডিয়াকে নত করা এবং মিডিয়ায় প্রবেশের অধিকার ক্ষুণ্ণ করা আমাদের সীমাবদ্ধ করা, মানুষের জন্য, তথ্য এবং সংবাদের উৎসের প্রতি আমাদের অধিকারের প্রতি এক ভয়ানক আঘাত। এটা একই সাথে বাক স্বাধীনতা ক্ষুণ্ণ করা এবং একই সাথে সাংবাদিকতা সীমাবদ্ধ করার মত এক ভয়ানক কর্ম।

গত কাল এ্যাট দি এজ নামক কর্মসূচিতে দেখা গেছে সকল আশা তিরোহিত হয়নি যেহেতু আমি প্রত্যক্ষ করেছি যে খালি হাতের প্রচার মাধ্যম কর্মী আমাদের মত সাধারণ নাগরিকের কাছে সংবাদ প্রদান এবং তথ্য পৌঁছে দেওয়ার মত তাদের অধিকারের জন্য দাঁড়িয়ে আছে। আর দেখার জন্য এক আসাধারণ এলাকা।

মিডিয়ার উপর এক রাজনৈতিক নিয়ন্ত্রণের বিরুদ্ধে এটি একটি দারুণ কর্মসূচিতে পরিণত হয়েছে।

আপনারা হয়ত এজ নামের পত্রিকার প্রকাশনা স্থগিত করতে পারেন কিন্তু আপনার সত্য প্রকাশ স্থগিত করতে পারেন না।

২৯ আগস্টে আরো বড় এক র‍্যালির আয়োজন করা হবে। এইবার বিষয়টি কেবল প্রচার মাধ্যমের স্বাধীনতা নিয়ে হবে না। বেরিশ ৪ নামের এই র‍্যালিতে প্রধানমন্ত্রীর পদত্যাগ দাবী করা হবে।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .