বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

এলজিবিটি’দের অধিকার সংরক্ষণে সিঙ্গাপুরের পিঙ্ক ডট র্যা লিতে ২৮,০০০ লোকের সমাগম

Spreading the message of love during the Pink Dot event. Photo from the official Facebook page of the event.

পিঙ্ক ডট ইভেন্টের সময় ভালোবাসার বার্তা ছড়িয়ে দেওয়া। ইভেন্টটির অফিসিয়াল ফেসবুক পাতা থেকে নেওয়া ছবি।

ব্যাপকতা, বৈচিত্র্যময় এবং সমকামীদের অধিকার উন্নীতর লক্ষ্যে পিঙ্ক ডট নামের একটি বার্ষিক সমাবেশ উদযাপন করতে ২,৮০০ জনেরও বেশি মানুষ সিঙ্গাপুরের হং লিম পার্কে জড়ো হয়েছিলেন। ২০০৯ সাল থেকে শুরু হওয়া এই পিঙ্ক ডট ইভেন্টটিতে এ বছরই সবেচেয়ে বেশি লোকের সমাগম হয়। গত বছর উপস্থিত ছিলেন প্রায় ২,৬০০ জন।

এই বছরের মূল প্রতিপাদ্য বিষয় ছিল, ‘ভালোবাসা কোথায় পাওয়া যায়’। “এলজিবিটি সম্প্রদায়ের লোকজন যেসব বৈষম্য এবং কুসংস্কারের সম্মুখীন হয়, তা দূর করার পথে এই প্রতিপাদ্য বিষয়টি সম্প্রদায়টিকে আরও অনুপ্রাণিত করবে” বলে আশা করা যায়। এই সন্ধ্যায় পিংক ডট উদযাপনের সম্পূর্ণ অংশটুকু নিচের ভিডিওটিতে দেখা যাবেঃ

পিংক ডটের উদ্দেশ্যকে সমর্থনকারী সিঙ্গাপুরিয়ানদের সংখ্যা বাড়তে থাকা সত্ত্বেও এলজিবিটি সম্প্রদায়কে বিভিন্ন ধরণের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করতে হচ্ছে। গত বছর সুপ্রিম কোর্টের দণ্ডবিধি ৩৭৭ এর এ নং ধারাকে সাংবিধানিকভাবে অনুমোদন দিয়েছে। এই ধারা অনুযায়ী সমকামীদের মাঝে যৌন সম্পর্ক স্থাপন করা শাস্তিযোগ্য অপরাধ। তাইওয়ানিজ একটি মিউজিক ভিডিওতে ‘প্রাপ্তবয়স্ক বিষয়বস্তু’ দেখানোর অভিযোগে কর্তৃপক্ষ গত মাসে নিষিদ্ধ করেছে, কেননা ভিডিওটিতে একটি সমকামী যুগলের জীবনধারণ চিত্রিত করা হয়েছে। আর ১২ জুন, ২০১৫ তারিখে অর্থাৎ পিংক ডট সম্মেলনের একদিন আগে সরকার চলচ্চিত্রে সম্মেলন কার্যক্রমের ভিডিও সম্প্রচার করতে আয়োজকদের আবেদন নাকচ করে দিয়েছে।

পিংক ডটের বিরোধীতা করতে একজন খ্রিষ্টান ধর্মযাজক তার অনুসারীদের আহ্বান জানিয়েছেন। এর জন্য “জাতি গঠনে পরিবার কতোটা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকে তা যুক্তি দিয়ে সমর্থন করতে”  তিনি “সাদা কাপড় পরিধান কর” শিরোনামে একটি প্রচারাভিযানকে সমর্থন জানাতে বলেছেন। এলজিবিটি সম্প্রদায়ের কথা পরোক্ষভাবে উল্লেখ করে বয়োজ্যেষ্ঠ ধর্মযাজক লরেন্স খং তাঁর অনুসারীদের বলেছেন, “অকার্যকর একটি পরিবারের ভেতরে থাকা বেদনা এবং যন্ত্রণা” থেকেই আজকাল সমাজে অনেক সমস্যার সৃষ্টি হচ্ছে।

পিংক ডটের আয়োজকেরা সিঙ্গাপুরে এলজিবিটি’দের অধিকার আদায়ের লক্ষ্যে যেসব চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হচ্ছেন সেসবের সত্যতা স্বীকার করে নিয়ে এই সম্মেলনের সফলতা কামনা করছেনঃ

প্রচলিত পরিবারের ধারণাগুলো সুরক্ষিত রাখার অজুহাতে কেউ কেউ যখন সমবেত হচ্ছেন, তখন আমরা এখানে সকল ধরণের পরিবার এবং সকলকে আলিঙ্গন করে নিতে জড়ো হয়েছি। আমরা বিশ্বাস করি প্রত্যেকেরই স্বাধীনভাবে ভালোবাসা এবং তাঁদের নিজেদের মতো স্বাধীনভাবে বাঁচার অধিকার আছে। আমরা স্বীকার করে নিচ্ছি সিঙ্গাপুরে ব্যাপকতা এবং বৈচিত্র্যপূর্ণ এই সফর এখনও প্রায় বন্ধ বলা যায়, তবে আমরা আত্মবিশ্বাসী যে আমরা একসাথে থাকলে অদূর ভবিষ্যতে একদিন এসব কিছুই অর্জন করতে সক্ষম হব।

#‘ভালোবাসাকোথায়পাওয়াযায়এসজি, #ভালোবাসারস্বাধীনতা এবং #পিংকডটএসজি শিরোনামের টুইটার হ্যাশট্যাগুলো পিংক ডট উদযাপনের সময় ব্যবহৃত হয়েছে। গত শনিবার অনুষ্ঠিত সমাবেশের বেশ কয়েকটি ছবি নিচে দেয়া হয়েছে। ছবিগুলোতে হং লিম উদ্যানে জীবনের সকল ক্ষেত্র থেকে একই বিন্দুতে মিলিত হতে একত্রিত হওয়া সিঙ্গাপুরিয়ানদের দেখা যাচ্ছেঃ

#পিংকডটএসজি ২০১৫: তাঁরা প্রতি বছর পাহাড় টলাতে আমাদের সাহায্য করে থাকেন, তাই পিংক ডট স্বেচ্ছাসেবকদের নিয়ে গঠিত আমাদের এই পরিবারের সবাইকে ধন্যবাদ!

ভালোবাসার স্বাধীনতার জন্য @পিংকডটএসজি কে আমরা সমর্থন করি। #‘ভালোবাসাকোথায়পাওয়াযায়এসজি

#পিংকডটএসজি এর সমর্থনে @এয়ারবিএনবি_এসজি ক্রুরা!

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .