বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

ক্রেমলিন কি রাশিয়ার “ভুলে যাওয়ার অধিকারে” পানি ঢালছে?

Images edited by Kevin Rothrock.

ছবি সম্পাদনা কেভিন রুথরক-এর।

সংবাদ সংস্থা আরবিসি-এর সংবাদ অনুসারে সোমবার, ১৫ জুন ক্রেমলিনের কর্তাব্যক্তিরা রাশিয়ার সবচেয়ে বৃহত্তর সার্চ ইঞ্জিন ইয়ানডেক্সের প্রতিনিধির সাথে গোপনে মিলিত হয় এবং তারা এক ঐক্যমতে পৌঁছায় যা রুনেটে তুলে ধরার উদ্দেশ্যে তৈরী করা “ভুলে যাওয়ার অধিকার” বিষয়ক এক খসড়া আইনকে দুর্বল করে তুলবে।

দুমায় থেকে প্রাপ্ত আরবিসি-এর সূত্র অনুসারে আইন প্রণেতারা প্রণীত প্রথম খসড়া আইন থেকে এক বিতর্কিত অনুচ্ছেদ সরিয়ে নেওয়ার ব্যাপারে একমত হয়েছে, যার মাধ্যমে যে কোন ব্যক্তি তিন বছরের পুরোনো ডাটার সাথে যুক্ত কোন লিঙ্ক মুছে ফেলতে সার্চ ইঞ্জিনকে বাধ্য করতে পারবে-এমনকি এই ধরনের প্রমাণ ছাড়াই যে উক্ত তথ্য ভুল অথবা মানহানিকর।

ইয়ানডেক্স-এর মুখপাত্র আশাইয়া মেলকুমোভার বক্তব্য অনুসারে, এই বিশালাকায় প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান একই সাথে পুতিনের ডেপুটি চীফ অফ স্টাফ ভায়াচেসলাভ ভলোদিন-এর কাছে এই বিষয়ে আবেদন জানিয়েছে যেন খসড়া আইনে সেই শব্দগুলো অপসারণ করা হয় যা সার্চ ইঞ্জিনকে মুছে দেওয়ার অনুরোধ পালনে বাধ্য করবে। ইয়ানডেক্স বলছে যে কোন বেসরকারী প্রতিষ্ঠান নয়-সরকারি কোন প্রতিষ্ঠানকে এই দায়িত্ব পালন করতে হবে, যাদের এই কাজের জন্য ওয়েবসাইট থেকে সুনির্দিষ্ট তথ্য প্রমাণ সংগ্রহ এবং সেগুলোকে শক্তিশালী আইনি বৈধতার মধ্যে দিয়ে প্রকাশ করতে হবে।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .