বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

তুরস্কের সংকটপূর্ণ সাধারণ নির্বাচনকে সামনে রেখে একটি সত্য-নির্ধারনী ওয়েবসাইটের রাজনৈতিক বিবৃতি বিশ্লেষণ

Screen Shot 2015-06-03 at 20.52.21

তুরস্কে ৭ জুন তারিখে সাধারন নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে এবং ভোটারদের মনোযোগ আকর্ষণ করতে প্রার্থীরা এখন অনেক কিছুই বলবেন। তবে সাধারণ নাগরিকরা কোনটি বিশ্বাস করবেন এবং কোনটি করবেন না?

ডগ্রুলুক পায়ি তুরস্কে বিদ্যমান একমাত্র এবং ব্যাপক ব্যবহৃত একটি ওয়েবসাইট, যা সত্য নির্ধারন করতে সাহায্য করে থাকে।

ইস্তানবুল ভিত্তিক একটি সৃজনশীল দল তাদের অর্থায়নে ডায়ালগ ফর কমন ফিউচার এ্যাসোসিয়েশন নামক একটি ওয়েবসাইট তৈরি করেছে। ওয়েবসাইটটিতে রয়েছে পাঁচ স্তর বিশিষ্ট একটি রেটিং ব্যবস্থা, যা ব্যবহারকারীদের রাজনৈতিক বক্তব্যের সত্যতা পরীক্ষা করে সেগুলোকে বিভিন্ন ভাগে ভাগ করে থাকে।

নিচে উল্লেখিত স্তর অনুযায়ী শ্রেণীবিন্যাস করা হয়ঃ

ক) বক্তব্যটি সম্পূর্ণ সত্য খ) বক্তব্যটির বেশীরভাগ সত্য গ) বক্তব্যটি আংশিক সত্য ঘ) বক্তব্যটির বেশীরভাগ সত্য নয় ঙ) বক্তব্যটি একেবারেই সত্য নয়

স্বেচ্ছাসেবকদের একটি বড় দল জনগণের উদ্দেশ্যে দেয়া এসব বক্তব্য গভীরভাবে পর্যবেক্ষণ করে থাকেন, পাশাপাশি পাঁচজন সম্পাদক বক্তব্য সম্পর্কে তাদের মূল্যায়ন প্রদান করে থাকেন। তথ্য ভিত্তিক এসব বক্তব্য বিশ্লেষণ করা হয় এবং উপড়ে বর্ণিত মানদণ্ড অনুযায়ী সম্পাদকেরা এসব বক্তব্যের সত্যতা নিরূপণ করে থাকেন।

রাজনৈতিক নেতাদের বাচনভঙ্গি বিশ্লেষণের পাশাপাশি সরকারের দেয়া প্রতিশ্রুতি নিয়ে ওয়েবসাইটটিতে একটি ট্যাব রাখা হয়েছে। তাদের বিশ্লেষণ অনুযায়ী ক্ষমতাসীন একেপি (সুবিচার এবং উন্নয়ন) পার্টি ২০১১ সালের সাধারণ নির্বাচনে দেয়া প্রতিশ্রুতির কেবল শতকরা ৩০ শতাংশ প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়ন করতে পেরেছে।

ওয়েবসাইটটি সম্প্রতি একটি নির্বাচনী প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে, যেখানে নির্ধারন করা হয়েছে নেতাদের নির্বাচন-পূর্ববর্তী বক্তব্যগুলো কতোটা যুক্তিযুক্ত। চারটি প্রধান রাজনৈতিক দল এবং অন্যান্য আরও কয়েকটি রাজনৈতিক দলের ১ শত ৫৯ জন রাজনৈতিক নেতার দেয়া ৪ শত ৮ টি বক্তব্যের ভিত্তিতে সাধারণভাবে বক্তব্যের যথার্থতার হার দশের মধ্যে ৫ দশমিক ৭। এর অর্থ দাঁড়ায় প্রার্থীরা মাঝে মাঝেই মিথ্যা বক্তব্য প্রদান করছেন।

general

প্রতিবেদন অনুযায়ী, কুর্দিশদের পক্ষে এবং বিপক্ষে এইচডিপির কর্মকর্তারা কদাচিৎ সত্য কথা বলে থাকেন।
mhp-hdp

প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যেপ এরদোগানের পৃষ্ঠপোষকতায় ক্ষমতাসীন একেপি পার্টি যখন গড় বা স্বাভাবিক মানের নিচে অবস্থান করছে তখন তুরস্কের সবচেয়ে পুরাতন রাজনৈতিক দল দ্যা কেমালিস্ট সিএইচপি কিছুটা ভাল অবস্থানে রয়েছে।
akp-chp

এই প্রচারাভিযানে সত্যতা কতোটুকু ভূমিকা পালন করবে তা অন্য বিষয়। যেহেতু এরদোগান সংখ্যাগরিষ্ঠদের কাছ থেকে তাঁর অবস্থানের প্রতি প্রয়োজনীয় সমর্থন এবং উৎসাহ পেতে চান এবং সম্ভবত দেশটিকে রাষ্ট্রপতি শাসিত কর্তৃত্ববাদী শাসন ব্যবস্থার দিকে নিয়ে যেতে চান, তাই তুর্কি প্রচার মাধ্যমগুলোকে ব্যবহার করে তাদের বার্তা দিয়ে ভোটারদের প্রভাবিত করতে একেপি পার্টি প্রচার মাধ্যমগুলোর কর্তনরেখা নির্নয় করে থাকে। সেখানে ঝুঁকি অনেক বেশি এবং আপাত দৃষ্টিতে মনে হয় রাজনৈতিক অস্থিরতা সৃষ্টি করার ক্ষেত্রে সত্যবাদী এইচডিপি কেবল এক মাত্র দল।

তুরস্কের নির্বাচনী প্রক্রিয়ায় অনলাইন টুলস কীভাবে অবদান রাখছে সেটি তুলে ধরতে করা সিরিজ প্রতিবেদনের এটি তৃতীয় নম্বর পোস্ট। আরো পড়ার জন্য দেখুনতুরস্কর সাধারণ নির্বাচন কভার করতে এক সময়ে একটি টুল এবং তুর্কি বিরোধী দলের প্রচারাভিযান অফিসে আক্রমন যে রীতিবদ্ধ তা দেখাল ডেটা সেট

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .