বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

প্রতিবাদ সত্ত্বেও মালয়েশিয়া এখনও একটি বৃহৎ বাঁধ নির্মাণের পরিকল্পনা করছে যা ২০ হাজার স্থানীয় লোককে গৃহহীন করতে পারে

View of Baram, Sarawak that will be affected by a dam project. Photo from Jettie Word, republished with permission

বারাম সারাওয়াকের দৃশ্য। জায়গাটি বাঁধ প্রকল্পের দ্বারা ক্ষতিগ্রস্ত হবে। জেটি ওয়ার্ড থেকে নেয়া ছবিটি অনুমতিক্রমে পুনরায় প্রকাশিত হল।

স্থানীয় অধিবাসী এবং স্থানীয় জনগণের প্রচন্ড বিরোধীতার মুখেও মালয়েশিয়ার সারাওয়াকের স্থানীয় সরকার এ অঞ্চলে একটি বৃহৎ বাঁধ নির্মাণ করতে যাচ্ছে। স্থানীয় জনগণ এই প্রকল্পের বিরোধীতা করছেন। কারন এতে করে তারা ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হবেন। সারাওয়াক হচ্ছে বোমিও দ্বীপের একটি অংশ। স্থানটি প্রাকৃতিক সম্পদে সমৃদ্ধ হওয়ার কারণে অত্যন্ত বিখ্যাত।

প্রস্তাবিত বাঁধটি সারাওয়াকের উত্তরাঞ্চলে অবস্থিত বারামে নির্মিত হবে। আশা করা হচ্ছে, এখানে ১২০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপন্ন করা যাবে। তবে অনেকেই ভয় পাচ্ছেন যে এখানে বাঁধ দেয়ার ফলে বৃষ্টি প্রধান ক্রান্তীয় অঞ্চলের ৪১২ কিলোমিটার বনাঞ্চল পানির নিচে ডুবে যাবে। তাঁর পাশাপাশি বাঁধ নির্মাণের সময় কায়ান, কেনিয়াহ এবং পেনানের আদিবাসী দলের ২৭ টি উপনিবেশের প্রায় ২০ হাজার লোককে জোর করে অন্যত্র সরিয়ে নিতে হবে। বারাম বাঁধ ১২ টি বড় বড় বাঁধের মধ্যে অন্যতম যা স্থানীয় সরকার সারাওয়াকে নির্মাণের পরিকল্পনা করছে।

পিটার এন. জি. কেলাং একজন স্থানীয় নেতা এবং বাঁধ বিরোধী সক্রিয় কর্মী। তিনি সতর্ক করে দিয়েছেন, বাঁধটি বারামের আদিবাসী বিভিন্ন দলের মূল জনসংখ্যাকে অপসারণ করে দিবেঃ

যারা বারামে বসবাস করছেন এবং যারা বারামের দীর্ঘকালীন কল্যাণ চিন্তা করেন, তাদের জন্য নয় বরং অন্যদের সুবিধার জন্য বাঁধটি নির্মাণ করা হবে।

ক্ষতিগ্রস্তদের একজন হিসেবে আমি এই অবিচার এবং এই জঘন্য ও অপব্যবহারমূলক শোষণ বুঝতে পারছি না। আপাত দৃষ্টিতে এটিকে একটি নির্বোধ সুযোগ গ্রহণ বলেই মনে হছে, যা মূলত লোভের সাথে সাথে দুষ্কর্মের বশবর্তী হয়ে করা হচ্ছে। আমরা যারা সরাসরিভাবে ক্ষতিগ্রস্তের দল, তাদের জন্য কেউ আমাদের এভাবে চিন্তা করার জন্য দায়ী করতে পারবে না যে আমাদের মতো নৃতাত্ত্বিক জনগোষ্ঠীকে সরিয়ে দিতে এটি একটি উদ্দেশ্য প্রণোদিত এবং ইচ্ছাকৃত একটি কৌশল।

বাঁধ নির্মাণ প্রতিরোধ করতে স্থানীয় অধিবাসীরা গত বছর থেকে অবরোধ কর্মসূচী পালন করছেন। বাঁধ নির্মাণের বিরুদ্ধে তাদের প্রচারণাতে সমর্থন জানাতে মালয়েশিয়াতে বসবাসকারী অন্যান্য সম্প্রদায় এবং সারা বিশ্ব জুড়ে বিভিন্ন পরিবেশবাদী নেটওয়ার্কগুলোর প্রতিও তারা আবেদন জানিয়েছেন

Protest against the Baram Dam project. Photo from the Facebook page of Save Rivers

বারাম বাঁধ নির্মাণ প্রকল্পের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ। নদী বাঁচাও কর্মসূচীর ফেইসবুক পেইজ থেকে নেওয়া ছবি।

A blockade was set up by local residents to stop the dam construction. Photo from the Facebook page of Save Rivers

বাঁধ নির্মাণ বন্ধ করতে স্থানীয় অধিবাসীদের দ্বারা পালিত একটি অবরোধ কর্মসূচী। নদী বাঁচাও কর্মসূচীর ফেইসবুক পেইজ থেকে নেওয়া ছবি।

Rally against Baram Dam project. Photo from Sarawak Report

বারাম বাঁধ নির্মাণ প্রকল্পের বিরুদ্ধে অনুষ্ঠিত র্যা লী। সারাওয়াক প্রতিবেদন থেকে নেয়া ছবি।

Blockade protest continues in Baram. Photo from Jettie Word, republished with permission.

বারামে অবরোধ প্রতিরোধ চলছে। জেটি ওয়ার্ড থেকে নেয়া ছবিটি অনুমতিক্রমে পুনরায় প্রকাশিত হল।

সম্প্রদায়ের নেতৃত্বে বারাম বাঁধ নির্মাণ অবরোধ কর্মসূচীর ৫৫৫ তম দিন চলাকালীন গত সপ্তাহে বোর্নিও প্রকল্প একটি প্রামাণ্যচিত্র প্রকাশ করেছে। প্রামাণ্যচিত্রটিতে ব্যাখ্যা করা হয়েছে, সারাওয়াকে বাঁধ নির্মাণ প্রকল্প কেন জরুরী নয় এবং স্থানীয় জনগণ কীভাবে এ থেকে কোনভাবেই উপকৃত হবে না।

সরকার কিছু দিন আগে বারামে বাঁধ নির্মানের আদেশ দিয়েছে। এখন এর বিরুদ্ধে প্রতিবাদ কর্মসূচী আরও প্রবল হবে বলে আশা করা হচ্ছে।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .