বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

একটি ফেসবুক পোস্ট ইয়েমেন থেকে তাজিক নাগরিকদের সরিয়ে নেবার গতি বৃদ্ধিতে ভূমিকা রেখেছে কি?

রাশিয়ানদের পাশাপাশি তাজিক নাগরিকরা ইয়েমেন ত্যাগ করবার জন্য প্লেনে উঠার প্রস্তুতি নিচ্ছেন ছবি: http://www.vesti.ru/doc.html?id=2474827&cid=7

বিলকিস,শাহনোজা গোদোয়েভার ১৭ মাস বয়সী মেয়ে, রাশিয়ান প্লেনে করে ইয়েমেন ছাড়ার প্রস্তুতি নিচ্ছে, যা ব্যাপকভাবে প্রচার পেয়েছে।

শাহনোজা গোদোয়েভা ইয়েমেনে পরিবারসহ কর্মরত এবং বসবাসরত ১০০ জনের অধিক ডাক্তারদের একজন ছিলেন যখন গত মাসে সৌদি আরব ও তার মিত্ররা ইয়েমেনে বোমা হামলা শুরু করে। অসহায় শাহনোজা, যখন ফেসবুকের একটি গ্রুপে সাহায্য প্রার্থনা করে পোস্ট দেন, তখন তার ধারণা ছিল না যে তার আকুতি সবার কাছে সাড়া ফেলে দেবে।

И кто нас спасет? Мы живем в Йемене ,работаем медиками , нас здесь больше 300 ,400 человек счетая с детьми . Со вчерашней ночи Йеменскую столицу бомбят Саудовские самалеты. Наш МИД молчит … Мы в страхе . Россия пока не соберется отправить самалеты МЧС .

এবং কারা আমাদের উদ্ধার করবে? আমরা ইয়েমেনে বাস করি, ডাক্তার হিসেবে কাজ করি, আমরা ৩০০ জনের অধিক, ৪০০ যদি শিশুদের গোণায় ধরি। ইয়েমেনে সৌদি উড়োজাহাজ গতকাল রাত থেকে বোমাবর্ষণ করে হচ্ছে. আমাদের পররাষ্ট্রবিষয়ক মন্ত্রণালয় (এমএফএ) নীরব। আমরা আতংকিত। এখন পর্যন্ত রাশিয়া প্লেন [জরুরি অবস্থা বিষয়ক মন্ত্রণালয়] পাঠাতে যাচ্ছে না।

অসংখ্য ফেসবুক ব্যবহারকারী তাকে মানসিকভাবে সান্ত্বনা দেবার জন্য এগিয়ে আসে, কেউ কেউ তাকে আন্তর্জাতিক রেড ক্রস এবং তাজিক সরকারের লিংক দেয়, অন্যান্যরা তাকে রাশিয়ান নিয়োগ সংস্থা যার কাজ থেকে সে মেডিকসে নিয়োগ পেয়েছে, সেখান থেকে সাহায্য দাবী করবার পরামর্শ দেয়। অন্যদিকে কেউ কেউ তার এবং ইয়েমেন আটকে থাকা অন্যান্য তাজিকদের জন্য প্রার্থনা করে।

Tajik woman headin to the plane evacuating the CIS citizens from Yemen. Photo was provided to the Global Voices by Shahnoza Gadoeva

ইয়েমেন থেকে সিআইএস নাগরিকদের সরিয়ে নেবার কাজে নিয়োজিত রাশিয়ান বিমানের দিকে যাচ্ছেন তাজিক মহিলারা। ছবিটি শাহনোজা গোদোয়েভা গ্লোবাল ভয়েসেসকে প্রদান করেন

শাহনোজার পোস্ট তাজিকিস্তানের সেদিনকার শীর্ষ সংবাদে পরিণত হয়, সাংবাদিকরা তাকে উদ্ধৃত করেন in রাশিয়ানতাজিক এবং ইংরেজিতে। অন্যদিকে তাজিক এমএফএ'র কাছ থেকে সংবাদমাধ্যম প্রতিক্রিয়া দাবি করে।

সৌভাগ্যবশত শাহনোজা এবং অন্যান্য আটকে পড়া তাজিকদের জন্য ফেসবুক, যা কিনা মধ্য এশিয়ার সরকারসমূহ যোগাযোগের ক্ষেত্রে প্রায়ই বন্ধ রাখতো, সেদিন বন্ধ ছিল না।

সন্ধ্যার মধ্যে পররাষ্ট্রবিষয়ক মন্ত্রণালয় (এমএফএ) নাগরিকদের সরিয়ে নেবার প্রচেষ্টার জন্য সৌদি আরব, সংযুক্ত আরব আমিরাত, কাতার, কুয়েত, মিশর এবং রাশিয়ার তাজিক মিশনের জন্য প্রেসিডেন্ট ইমোমালি রাহমোনের আদেশ (ইয়েমেনে তাজিকিস্তানের কোন কূটনৈতিক অবস্থান নেই)  প্রচার  করেছিল।

রাশিয়ান প্লেন ইতিমধ্যে ২০১০ সালে ইয়েমেন থেকে তাজিকিস্তান এবং স্বাধীন রাষ্ট্রের কমনওয়েলথ অংশের নাগরিকদের সরিয়ে নেবার কাজ করে এবং এবারও তারা কাজ করেছে। তাজিকদের প্রথম দল এপ্রিলের ৩ তারিখে দুশান্বে এসেছে, প্রায় ১০০ জন তাজিককে অন্তত তিনটি পৃথক ফ্লাইটে ইয়েমেন থেকে নেয়া হয়েছে।

শাহনোজার সাক্ষাৎকার পরবর্তীতে রাশিয়ান টিভি নিয়েছিল। তিনি ফেসবুকের সেই গ্রুপকে ধন্যবাদ দিতে ভুলে যাননি।

Дорогие земляки огромное спасибо за поддержку. Я счастлива что смогла выбраться оттуда с детьми живой здоровой, в этом заслуга каждого из вас кто звонил, переживал, поддерживал морально, помогал решить нашу проблему. Низкий поклон всем вам .

প্রিয় দেশবাসী, সমর্থন করার জন্য আপনাদের অনেক ধন্যবাদ। আমি আনন্দিত যে সুস্থ ও জীবিত অবস্থায় শিশুদের সঙ্গে ইয়েমেন ত্যাগ করতে পেরেছি। আপনাদের সকলের এক্ষেত্রে অবদান রয়েছে, আপনারা যারা ফোন করেছেন, আমার জন্য চিন্তিত ছিলেন, নৈতিকভাবে সমর্থন দিয়েছেন, আমাদের সমস্যার সমাধান করতে সাহায্য করেছেন। আপনাদের সকল্কে ধন্যবাদ।

শাহনোজার মতে ইয়েমেনে তাজিকদের সংখ্যা শিশুসহ আনুমানিক ৪০০, অন্যান্য অনুমান অনুযায়ী এই সংখ্যা ৮০০ এর কাছাকাছি, কারণ অনেকে নিয়োগকারী সংস্থার সাহায্য ছাড়াই ইয়েমেনে আসে, সেসব সংস্থা যুদ্ধ কবলিত ইয়েমেন সরকারের দেয়া তাজিকদের মোট জনসংখ্যা বিষয়ক তথ্যের নির্ভরযোগ্য উৎস।
এই চিকিৎসা বিশেষজ্ঞদের দক্ষ এবং অভিজ্ঞ বলে মনে করা হয় যাদের সোভিয়েত বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিপ্লোমাধারী। তাজিকিস্তানের বেকারত্বের উচ্চ হার এবং কম বেতন তাদের ইয়েমেনে যেতে বাধ্য করে এবং সেখানে গড় মজুরি নার্সদের জন্য $৬০০-৮০০ এবং ডাক্তারদের জন্য $১২০০-২০০০ যা তাজিকিস্তানের চেয়ে কয়েক গুণ বেশি।

যদিও এমএফএ একজন তাজিক নার্সআদিবাসী দুর্বৃত্তদের দ্বারা অপহিত হবার পর থেকে ইয়েমেনে কাজ না জন্য নাগরিকদের প্রতি একটি সতর্কতা জারি করে, কিছু তাজিক কর্মকর্তা, বিশেষ করে ইয়েমেনের নিরাপদ এলাকায় কাজ করতে থাকেন, কেননা ফিরে গেলে বেকারত্বের সম্মুখীন হতে হবে।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .