বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

ইয়েমেনের আকাশ এখন বিমান উড্ডয়ন নিষিদ্ধ এলাকাঃ বিদেশে হাজার হাজার ইয়েমেনী আটকে রয়েছে

 

Sana'a airport. Photo from yemenfox.net

সানার বিমানবন্দর। ছবি ইয়েমেনফক্স.নেট থেকে নেওয়া।

ইয়েমেনে যখন সৌদি বিমান হামলা ষষ্ঠ দিনে পা দিয়েছে, তখন হাজার হাজার ইয়েমেনী নাগরিক বিশ্বের বিভিন্ন দেশের বিমান বন্দরে আটকে পড়েছে, যাদের শীঘ্রই দেশের ফিরতে পারার কোন সম্ভাবনা দেখা যাচ্ছে না। এর কারণ হচ্ছে ইয়েমেনের আকাশ দিয়ে এখন কোন বিমান উড়ে যেতে পারবে না, এটি এখন বিমান উড্ডয়ন নিষিদ্ধ এলাকা

ইয়েমেনের আকাশকে বিমান উড্ডয়ন নিষিদ্ধ এলাকার ঘোষণার ফলে বিদেশে অবস্থানরত হাজার হাজার ইয়েমেনী নাগরিকদের এক জটিলতার মধ্যে ফেলে দিয়েছে, যারা ফলে তারা এখন একদিকে ইয়েমেনে ফিরে যেতে পারছে না, অন্যদিকে, এমনকি সকল ধরনের অজুহাতেও তারা বিমান বন্দর এলাকা ত্যাগের অনুমতি দেওয়া হচ্ছে না, এদিকে কারো ভিসার মেয়াদ শেষ হয়ে গেছে, আবার কারো টাকা পয়সা ফুরিয়ে এসেছে, যার ফলে এই সমস্ত ইয়েমেনীরা বিশ্বের বিভিন্ন দেশের বিমান বন্দরে আটকে পড়েছে।

বিদেশের মাটিতে হাজার হাজার ইয়েমেনী যে মানবিক বিপর্যয়ের মধ্যে পড়েছে সে বিষয়ে সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে ইয়েমেনের একটিভিস্টরা #স্ট্রান্ডেডইয়েমেন এবং আরবীতে এর কাছাকাছি #يمنيون_عالقون নামক হ্যাশট্যাগ ব্যবহারের মধ্যে দিয়ে টুইট করা শুরুর করেছেঃ

ইয়েমেনের মিডিয়া ফ্রিডম রাইটস ফর ফ্রিডম ফাউন্ডেশনের প্রধান খালেদ আল হাম্মাদি টুইট করেছে : 

এ অঞ্চলের বিভিন্ন এলাকায় হাজার হাজার ইয়েমেনী নাগরিক আটকে পড়েছে। জিসিসি (উপসাগরীয় সহযোগী সংস্থা) যুদ্ধ নিয়ে ব্যস্ত, কিন্তু তারা মানবিক বিপর্যয়ের বিষয়টি ভুলে গেছে।

দয়া করে আটকে পড়া ইয়েমেনীদের কথা সবখানে ছড়িয়ে দিতে সাহায্য করুন, ২৫ মার্চ ২০১৫ থেকে শুরু হওয়া তাদের এই অঞ্চলের বেদনাদায়ক পরিস্থিতির পরিসমাপ্তি ঘটাতে তাদের প্রতি সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিন।

আহমেদ জা’দানও টুইট করেছে: 

ইয়েমেনের জন্য সত্যিকারের বেদনাদায়ক ঘটনা ঘটছে দেশের বাইরে! ইয়েমেনের আকাশ বিমান উড্ডয়ন নিষিদ্ধ এলাকা ঘোষণার কারণে বিদেশের অবস্থানরত অনেকে ইয়েমেনী এখান দেশে ফিরতে পারছে না।

একই সাথে একটিভিস্টরা প্রতিবেশী রাষ্ট্রগুলোর প্রতি আহ্বান জানিয়েছে, যেন তারা আটকে পড়া সকল ইয়েমেনীদের জন্য ৭২ ঘন্টার ভিসা প্রদান করে। নুন নোসা টুইট করেছে:

আমরা সৌদি আরব এবং ওমানের মত প্রতিবেশী রাষ্ট্রগুলোর কাছে আহ্বান জানাচ্ছি, যেন তারা বিদেশে আটকে পড়া ইয়েমেনী নাগরিকরা যাতে স্বদেশের ফিরে আসতে পারে, তার জন্য ৭২ ঘন্টার ভিসা সুবিধা প্রদান করে।

ইয়েমেনকে সমর্থন করুন-এর অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা, নুন আরাবিয়া টুইট করেছে : 

শুধু ভিসার মেয়াদ শেষ হয়ে যাওয়া নয়, দেশে ফিরে যাওয়ার জন্য অপেক্ষা করতে থাকার সময় আটকে পড়া ইয়েমেনীদের পানির ন্যায় টাকা খরচের মতও এক পরিস্থিতির মুখোমুখি হতে হয়েছে।

ভদ্রমহিলা একই সাথ যোগ করছে:

বিশ্বের বিভিন্ন দেশের বিমান বন্দরে ইয়েমেনীরা নাগরিকেরা আটকে পড়ে গেছে। আমাদের বিমানবন্দর ধ্বংস ও বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে, আর এখন কয়েকটি দেশ আমাদের নাগরিকদের কাছে এন্ট্রি ভিসা চাওয়া শুরু করেছে। আমরা ঐ সমস্ত দেশগুলোর প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি, তাদের স্বদেশে ফিরে যাওয়ার ব্যবস্থা সহজতর করুন।

আল জাজিরা এক সংবাদ প্রকাশ করেছে, যাতে জিবুতিতে আটকে পড়া ইয়েমেনী নাগরিকদের বক্তব্য তুলে ধরা হয়েছে।

একই সাথে ভারত এবং পাকিস্তানের মত কিছু ভিন্ন রাষ্ট্রের নাগরিকেরা এই সঙ্কটে এক জটিলতায় আক্রান্ত হয়েছে, যারা নিজের দেশে ফিরে যাওয়ার এক ব্যর্থ প্রচেষ্টায় তাদের ইয়েমেনের ঘর খালি করছে। রোববারে সৌদি আরব দুই ঘন্টার জন্য বিমান আক্রমণ স্থগিত রাখতে সম্মত হলে,পাকিস্তানের এক বিমান ৫০০ জন পাকিস্তানী নাগরিককে নিয়ে স্বদেশের পথে রওনা দেওয়ার উদ্দেশ্যে ইয়েমেন ত্যাগে সক্ষম হয়।

A Pakistani family, evacuated from #Yemen, is greeted by relatives on their arrival in Jinnah Intl Airport in Karachi  - via @FatimaAli52

ইয়েমেন ছেড়ে আসা এক পাকিস্তানী পরিবার করাচীর জিন্নাহ আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরে এসে হাজির হলে সেখানে উপস্থিত আত্মীয়রা তাদের অশ্রুসিক্ত নয়নে স্বাগত জানায়-@ফাতিমাআলির৫২-এর সৌজন্যে।

ইয়েমেন সংক্রান্ত তাজা সংবাদ পেতে আমাদের সাথে থাকুন।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .