বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

ঘরে বসে ঘুরে আসুন নেপালের এভারেস্ট অঞ্চল

Glimpse of the Himalayan range featuring Ama Dablam. Image from Flickr by Franck Zecchin. CC BY-NC-SA 2.0

নেপালের হিমালয় অঞ্চলের আমা দাবালাম এলাকার এক ঝলক। ছবি ফ্লিকারের ফ্রাঙ্ক জেচ্চিনের। সিসি বাই-এনসি-এসএ ২.০।

হিমালয় পর্বতমালায় অবস্থিত মাউন্ট এভারেস্ট বিশ্বের সর্বোচ্চ শৃঙ্গ, যা বিশ্বজুড়ে পর্বতারোহীরা যে শৃঙ্গে একবার আরোহণের ইচ্ছে পোষণ করে এবং অনেক দুঃসাহসী অভিযাত্রী ও প্রকৃতিপ্রেমীর চূড়ান্ত গন্তব্য হচ্ছে হিমালয়ের এই বিস্তৃত অঞ্চল। এই দুর্গম পাহাড়ি অঞ্চল এবং খাঁড়া এলাকায় ঘুরে বেড়ানো খুব সহজ কাজ নয়, যদি না আপনি শারীরিক ভাবে সক্ষম, ও অভিযান আপনার রক্তে না মিশে থাকে।

কিন্তু এখন থেকে আর এই ধরনের অভিযান অপরিহার্য নয়।

গুগল, হিমালয় তথা খুম্বু এলাকার এক ভার্চুয়াল ভ্রমণের ব্যবস্থা করেছে, চলুন ঘুরে আসি এই পর্বতসংকুল পথে ও সেই বিস্ময়কর প্রকৃতিক এলাকায় যার চারপাশ ঘিরে আছে বিশ্বের সর্বোচ্চ সব পর্বত চূড়া।

এভারেস্ট অঞ্চলে ঘুরে বেড়ানো দারুণ এক ব্যাপারে, যেখানকার ভূমি দারুণ বৈচিত্র্যময়, যেখানে রয়েছে গভীর গিরিখাদ, উপত্যকা, মাউন্ট এভারেস্ট, ইত্যাদি সব এলাকা।

গুগল, নেপালের এভারেস্ট অঞ্চল ঘুরে দেখার জন্য এক ভার্চুয়াল ভ্রমণের ব্যবস্থা করেছে।

এই প্রকল্পের পেছনে যে দুজন ব্যক্তি রয়েছে, তাদের একজন হচ্ছে আপা শেরপা, ওরফে ২১ বার এভারেস্টে শৃঙ্গে আরোহণকারী সুপার শেরপা এবং সৌরাভ ধাকাল, যে এক প্রাক্তন সাংবাদিক এবং সামাজিক ব্যবসায় বিনিয়োগকারী। দি গ্রেট হিমালেয়া ট্রায়াল নামক এক ৯৯ দিনের এক অভিযাত্রা সময় এই জুটির একে অন্যের সাথে সাক্ষাৎ ঘটে, যে অভিযান ছিল ১৭০০ কিলোমিটার লম্বা এক যাত্রা, আর পায়ে চলার এই যাত্রার শুরু হয় পর্বতময় হিমালয়ের কাঞ্চনজঙ্ঘার পূর্ব থেকে পশ্চিমে হিলাশা পর্যন্ত।

আপা, যার স্বপ্ন ছিল ডাক্তার হবার, সে কুলি হিসেবে প্রথম বার মাউন্ট এভারেস্টে আরোহণ করে এবং এরপর ২০ বার সে এই পর্বত শৃঙ্গে আরোহণ করেছে-এর কারণ অবশ্য এই না যে সে পাহাড়ে চড়তে ভালবাসে। তার ব্লগ “গ্রোয়িং আপন নি দি শ্যাডো অফ এভারেস্ট“-এ সে বলে যে নিজের সন্তানের এক উন্নত ভবিষ্যৎ গড়ার লক্ষ্যে সে এই কাজটি করে থাকে।

যদিও সে ডাক্তার হতে পারেনি, তবে সে আশাবাদী যে তার শহরের ছেলেমেয়েরা ভবিষ্যতে ডাক্তার হতে পারবে। আপার নিজের সংগঠন আপা শেরপা ফাউন্ডেশন তার নিজের এলাকার এক নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের জন্য অর্থ সাহায্য প্রদান করে থাকে। মার্চ, ২০১৪-এ গুগল মানচিত্রে খুম্বু এলাকার স্থানীয় বাসিন্দারা যাতে ডিজিটাল রূপে নিজ সম্প্রদায়কে উপস্থাপন করতে পারে তাঁর জন্য উক্ত ফাউন্ডেশন, এবং ধাকাল-এর অর্থায়নে স্থাপিত স্টাডি সার্কেল গুগল আর্থ আউটরিচের সাথে জোটবদ্ধ হয়।

আপার নেতৃত্বে পরিচালিত দশ দিনের এক অভিযানের সময়, এলাকার নিখুঁত ছবি তৈরী করার জন্য দলটি এলাকার অন্দর ও বাহিরের অনেক ছবি তোলে (স্ট্রিট ভিউ ইমেজ)।

গুগল ম্যাপ ভিডিও দেখার সময় দর্শককে এই এলাকার সাথে সম্পৃক্ত করে এমন এক ভিডিও ইউটিউবে ছেড়েছে।

এ্যাজেন্সে ফ্রান্স প্রেস-এর নেপাল বার্তা সম্পাদক আম্মু কান্নাম্পিল্লাই টুইট করেছেন :

আপনারা গুগলের বিস্ময়কর এভারেস্ট অঞ্চল ভ্রমণ এখানে যাচাই করে দেখতে পারেন।

আগ্রহী? তাহলে এই ভ্রমণ সেরে ফেলুন। এভারেস্ট অঞ্চল, যা খাঁড়া এলাকা এবং দুর্গম এক এলাকা হিসেবে আতঙ্ক জাগায়, এখন সেখানে ভ্রমণ আপনার হাতের মুঠোয়।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .