বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

পেরুর জন্য, গ্রীণপীস ক্ষমার অযোগ্য একটি চমকবাজী করেছে তাদের ১,৫০০ বছরের পুরাতন নাজকা রেখা এলাকায়

imagen-greenpeace-lineas-de-nasca

গ্রীণপীসের টুইটার একাউন্ট থেকে সংগৃহিত ছবি

পেরুর সরকার নাজকা রেখার প্রত্নতাত্ত্বিক এলাকার নাজুক ভূমিতে গ্রীণপীসের সাম্প্রতিক প্রতিবাদ চমকবাজীর জন্য চাওয়া ক্ষমা গ্রহণ করতে অস্বীকার করেছে।

ডিসেম্বরের ৮ তারিখে সাতটি দেশ থেকে গ্রীণপীসের ২০জন সক্রিয় কর্মী একটি বড় হলুদ রংয়ের কাপড়ের তৈরী অক্ষর ১৫০০ বছরের পুরনো গুঞ্জন পাখীর রেখার কাছে ছড়িয়ে দিয়ে একটি বার্তা লিখেছে: ‘পরিবর্তনের সময় এসেছে! ভবিষ্যত নবায়নযোগ্য! গ্রীণপীস’। এই ঐতিহ্যবাহী স্থানটি সাধারণত শুধুমাত্র আকাশ থেকে দেখা যায়, এমনকি মন্ত্রীদের পর্যন্ত বিশেষ পাদুকা পড়ে এই ভূমিতে যেতে বিশেষ অনুমতি গ্রহণ করতে হয়।

আন্তর্জাতিক পরিবেশ সংস্থাটি লিমায় অনুষ্ঠিত জলবায়ু পরিবর্তনের উপর সিওপি২০ সম্মেলনে অংশগ্রহণকারী প্রতিনিধিদের দৃষ্টি আকর্ষণ করতে চেয়েছিলো। 

নাজকা রেখায় গ্রীণপীস কর্মীরা #সিওপি২০ নেতাদের এই বার্তা জানাচ্ছে যে ফিলিপিন্স আর কোন প্রাকৃতিক দুর্যোগ চায় না।

এর আনুষ্ঠানিক টুইটার হিসাবে উপস্থাপিত করা ছবিগুলোতে অক্ষর বসিয়ে বার্তাগুলো তৈরী করতে দেখা যাচ্ছে:

পেরুর নাজকা রেখায় আজ প্রতিবাদের চিত্র।

গ্রীণপীস তাদের কর্মকাণ্ড ফেসবুকেও প্রদর্শন করেছে, যেখানে তাদের এই প্রকাশনার জন্য ফেসবুকে ৬,০০০-এরও বেশী লাইক (পছন্দ হয়েছে) পাবার পরও কয়েকজন ক্রোধান্বিত পেরুবাসী এই কাজের সমালোচনা করেছে। উদাহরণস্বরূপ, আইনজীবি এরিক ইরিয়ার্টে নীচের মন্তব্যটি করেছে। 

Ninguna lucha x #ddhh puede violar #ddhh (y nuestros derechos culturales a nuestra historia, son derechos humanos). Luchar violando derechos termina siendo contraproducente. Todos luchamos x que lideres tomen decisiones, pero no tienen ningun derecho a violar mi historia, la historia de mi pueblo, de mis hijos, de mis padres, Y que ustedes crean que caminar sobre zona arqueologica no es dañarla, les informo que tambien la dañan y ciertamente que el kilometro que caminaron para llegar a zona dejaron sus huellas, removieron espacio, y alteraron el, precisamente que defienden, medioambiente.

#ddhh [মানবাধিকার]-এর জন্য কোন লড়াইই #ddhh (সেই সাথে সাথে আমাদের ইতিহাসের প্রতি আমাদের সাংস্কৃতিক অধিকার; এগুলো মানবাধিকার) অমান্য করতে পারে না। মানবাধিকারের জন্য লড়াই করতে গিয়ে মানবাধিকার ভঙ্গ করা পরিশেষে অফলপ্রসূ হয়ে ওঠে। নেতারা যেন সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে তার জন্য আমরা সবাই সংগ্রাম করি; যাইহোক আমার ইতিহাস, এবং আমার জনগণ, আমার সন্তান, আমার পিতামাতার ইতিহাস কলুষিত করার কোন অধিকার তাদের নেই। আপনি মনে করেছেন যে আপনি একটি প্রত্নতাত্ত্বিক স্থানে হাঁটাহাঁটি করবেন আর সেখানে কোন ক্ষতি হবে না; আমি আপনাকে বলছি ক্ষতি হবে। ওখানে যাওয়ার জন্য কিলোমিটার পথ হেঁটেছেন, তাতে অবশ্যই আপনারা আপনাদের পদচিহ্ন রেখে গিয়েছেন, জিনিসপত্র ওলোট-পালট করেছেন এবং আপনি যাকে রক্ষার কথা বলেন সেই পরিবেশকে পরিবর্তন করেছেন।

নাজকা রেখার উপর গবেষণা করার জন্য জীবন উৎসর্গ করা জার্মানীতে জন্মগ্রহণকারী পেরুবাসী প্রত্নতত্ত্ববিদ এর নামানুসারে গঠিত মারিয়া রাইখে এ্যাসোসিয়েশন, নীচের মন্তব্যটি করেছে

নাজকা রেখাগুলো একটি সংরক্ষিত এলাকায় অবস্থিত যেখানে কারোই কোন কারণ ছাড়া প্রবেশ করার অনুমতি নেই। গুঞ্জন পাখীর অবয়ব সবচেয়ে নিকটের মহাসড়ক থেকে এক কিলোমিটার দুরে অবস্থিত যেখানে আরো ১হাজারেরও বেশী রেখা আড়াআড়িভাবে এঁকেবেঁকে এসে পড়েছে। আপনারা কি নিশ্চিত করতে পারেন যে কোন ক্ষতি হয়নি, বিশেষ করে যখন আপনারা ঐ জায়গায় পৌঁছান তখনও অন্ধকার ছিল তা বিবেচনা করে? নাজকা মরুভূমিতে মাত্র কয়েক ডজন অবয়ব আছে কিন্তু তার থেকেও আরও বেশী আকর্ষণীয় হাজার হাজার রেখা রয়েছে। 

গ্রীণপীস-এর জবাব ছিল এই: 

আমরা আপনাকে নিশ্চিন্ত করতে পারি যে কোন ক্ষতিসাধন করা হয়নি। বার্তাগুলো লেখা হয়ছে কাপড়ের তৈরী অক্ষর দিয়ে যেগুলো শুধু মাটিতে রেখে দেওয়া হয়েছে এমনভাবে যেন এগুলো নাজকা রেখা স্পর্শ না করে। একজন অভিজ্ঞ প্রত্নতত্ত্ববিদ এটার পর্যালোচনা করে নিশ্চিত করেছে যেন সামান্যতম চিহ্নও পড়ে না থাকে।

যদিও, সকলেই গ্রীণপীসের দাবী গ্রহণ করেনি।  

নাজকা রেখায় পদদলনের জন্য গ্রীণপীসের অপরাধীদের ৬ বছরের কারাভোগ।

রেখা ধরে হেঁটে যাওয়াকে ক্ষতিকারক মনে নাও হতে পারে; কিন্তু ক্ষতি বোঝার জন্য এই রেখাগুলো কিভাবে তৈরী হয়েছে তা আমাদের জানা প্রয়োজন। নাজকা রেখাগুলো কেন এতো নাজুক? ভূতত্ত্ববিদ পাত্রিসিও ভালডেরামা ব্যাখ্যা করছে

La pampa de Nazca está compuesta por una finísima capa de material aluvial de origen granítico-volcánico de color rojizo (provenientes del Batolito de la Costa). Este nivel está sobre un nivel de arena gris clara, entonces, si “remueves” la capa superior, expondrás la capa inferior permanentemente, es este contraste de colores lo que permitió que los antiguos Nazca dibujaran sus lineas: haciendo surcos.

নাজকা প্রান্তরগুলো গ্রানাইটজাতীয়-আগ্নেয় উৎস (বাতোলিতো দো লা কোস্তা থেকে) থেকে সৃষ্ট লালচে পাললিক উপকরণের খুবই সূক্ষ স্তরের সমন্বয়ে তৈরী। এই স্তরটি একটি হালকা ধূসর বালির স্তরের উপরে থাকে; তাই আপনি উপরের স্তরকে ‘স্থানান্তর’ করলে চিরস্থায়ীভাবে নীচের স্তরটিকে উন্মুক্ত করে দিচ্ছেন। এই রংয়ের মধ্যে যে পার্থক্য সেটাই এই প্রাচীণ নাজকাদেরকে তাদের রেখা মানে খাঁজগুলো তৈরী করতে সুযোগ দিয়েছিল।

রাষ্ট্রের প্রতিনিধিরা এই সংবাদ পাওয়ার পর ব্যবস্থা গ্রহণ করলো। 

সাংস্কৃতিক মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধিদের করা পরিদর্শনের পরপরই প্রত্নতত্ত্ব ঐতিহ্য ক্ষতিগ্রস্ত করার অভিযোগে গ্রীণপীসের নামে বিচারকের আদালতে অভিযোগ করা হয়। কংগ্রেস-এর সাংস্কৃতিক কমিশন-এর সভাপতি দাবী করেছে যেন দায়ী কর্মীদেরকে গ্রেফতার করা হয়। প্রতিউত্তরে, গ্রীণপীসের জলবায়ু ও শক্তি বিষয়ক প্রচারণা সমন্বয়কারী মাউরো ফার্ণান্ডেজ ঘোষণা করে যে ‘যে কোন সমস্যা’ সমাধান করার জন্য সে নিজেকে সাংস্কৃতিক মন্ত্রণালয় এবং পেরুর বিচার ব্যবস্থার সমীপে উপস্থাপন করবে।  

সংস্থাটি তাদের এই কর্মকাণ্ডের দ্বারা যারা মর্মাহত হয়েছেন তাদের কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করেছে। সাংস্কৃতিক বিষয়ক উপমন্ত্রী বলেছেন যে তাদের ক্ষমা প্রার্থনা গ্রহণ করা হয় নি। যৌথ ঐতিহ্য প্রতিরক্ষা-এ কর্মরত হারনান উরতাদো কলুর প্রত্নতাত্ত্বিক ব্লগে মন্তব্য করেছে যে, ‘গ্রীণপীস-এর একটি অনাস্থাভাজন প্রতিষ্ঠান হিসেবে চিহ্নিত হওয়া উচিত'। সে প্রত্নতাত্ত্বিক এলাকাটি যে সমস্যার সম্মুখিন হচ্ছে তার উপরে আরো জোর দিয়েছে: 

Este reciente y lamentable atentado, sirva para tomar medidas más eficaces en salvaguarda de nuestro patrimonio arqueológico. En tal sentido exhortamos al Ministerio de Cultura a redoblar esfuerzos en la defensa, protección y vigilancia de las pampas de Nasca y Palpa que son víctima constante de invasiones, huaquería y minería ilegal.

এই সাম্প্রতিক এবং দূর্ভাগ্যজনক আক্রমণ আমাদেরকে আমাদের প্রত্নতাত্ত্বিক ঐতিহ্যকে রক্ষা করতে আরো দক্ষ ব্যবস্থা গ্রহণ করায় বাধ্য করে তুলেছে। যার মাধ্যমে আমরা সাংস্কৃতিক মন্ত্রণালয়কে নাজকা এবং পালপার বিস্তৃর্ণ প্রান্তরকে ক্রমাগত আক্রমণ, লুটপাট, এবং অবৈধ খনিখননের শিকার হওয়া থেকে প্রতিরক্ষা, নিরাপত্তা ও নজরদারি জোরদার করার জন্য আহ্বান জানাচ্ছি।

কয়েক সপ্তাহ আগে ভূমি দস্যুদের একটি দল কেরোস আলতোস এবং উয়াকা লা কালেরার ২য় অঞ্চল-এর নিয়ন্ত্রণ গ্রহণ করেছিল, যেগুলো নাজকা রেখার অংশবিশেষ হিসেবে গড়ে উঠেছে। সাংস্কৃতিক মন্ত্রণালয় কোন ব্যবস্থা গ্রহণ করতে অপারগ হয়েছে যদিও তারা বেশ ভারী যন্ত্রপাতী ব্যবহার করেছে। সামাজিক নেটওয়ার্কগুলো এ ঘটনার বিষয়ে বরং বেশ চুপচাপই ছিল, যার বিরুদ্ধে কেউ কেউ টুইটারে বিদ্রুপাত্মক প্রতিবাদও করেছে:   

গ্রীণপীস ধন্যবাদ (?) আমাদেরকে মনে করিয়ে দেয়ার জন্য যে আমাদের নাজকা রেখা আছে…এবং কর্তৃপক্ষ প্রায়শই এগুলো সম্পর্কে ভুলে যায়।

 
আবার, যাইহোক, এই বিষয় সম্পর্কে সামাজিক নেটওয়ার্কগুলোর মধ্য মতৈক্যের অভাব আছে: 

আক্রমণ, পরিবহণ ব্যবহার, লুটেরা, ডাকার র‍্যালী ইত্যাদির কারণে নাজকা দশ ভাগে ভাগ হয়েছে। সেইজন্য তারা মর্মাহত হয়েছে। ভণ্ড কোথাকার।

নির্বোধগুলো বের হয়ে এসে বলছে নাজকাতে অবৈধ খনি এবং ডাকার র‍্যালী কেন। আমরা গ্রীণপীসের বিরুদ্ধে কোন নালিশ করতে পারি না। হে ঈশ্বর, একেবারে লিমাবাসীসূচক আচরণ।

তর্কের ঊর্ধ্বেও আশা আছে যে পেরুর কর্তৃপক্ষ প্রত্নতাত্ত্বিক ঐতিহ্যকে যখন এগুলো গণমাধ্যমগুলোর নজরে আসে শুধুমাত্র তখন নয় বরং সক্রিয়ভাবে রক্ষা করবে। 

এই লেখাটি মূলতঃ গ্লোবালিযাডো ব্লগ-এর প্রকাশিত হয়।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .