বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

প্রথমবারের মতো আফ্রিকান কোন সাবেক রাষ্ট্রপতি আন্তর্জাতিক ট্রাইব্যুনালে বিচারের সম্মুখীন

ওমর বা চাদের সাবেক রাষ্ট্রপতি হিসসেন হাবরে'র ঐতিহাসিক বিচার নিয়ে আলোচনা করেছেন:

For the first time in history, a former head of an African state will stand trial in Africa, before an internationalized tribunal, the Extraordinary African Chambers in Senegalese Courts. The EAC is an ad hoc court which is set up by the African Union under the principle of universal jurisdiction. It focuses solely on crimes of genocide, war crimes, torture, and crimes against humanity committed in Chad between 1982 and 1990. That happens to be the period of Habré’s tenure. The Chambers are made of judges of Senegalese nationality, nominated by Senegal’s Minister of Justice and appointed by the AU Chairperson.

If all goes as planned, the Habré’s trial will start in Dakar, this summer. Habré stands accused of crimes against humanity and torture during his rule in Chad in the 1980s. His reign was brutal, but he was literally “our man in Africa,” eager and willing to do for the CIA and the Reagan administration what no one else would.

ইতিহাসে এই প্রথম, একটি আফ্রিকান রাষ্ট্রের সাবেক প্রধান, সেনেগলিজ আদালতের অসাধারণ আফ্রিকান চেম্বারসের মাধ্যমে একটি আন্তর্জাতিক ট্রাইব্যুনালের সামনে আফ্রিকায় বিচারের মুখোমুখি হবেন। ইএসি (Extraordinary African Chambers) একটি বিশেষ আদালত যা আফ্রিকান ইউনিয়ন দ্বারা সার্বজনীন বিচারব্যবস্থা নীতির অধীনে গঠন করা হয়। এই আদালত শুধুমাত্র ১৯৮২ থেকে ১৯৯০ সালের মধ্যে চাদে সংঘটিত মানবতার বিরুদ্ধে অপরাধ, গণহত্যা, যুদ্ধাপরাধ, নির্যাতনের প্রতি দৃষ্টি নিবদ্ধ করবে। হেবরে'র মেয়াদকাল এই সময়ে ছিল। এই চেম্বারের বিচারকগণ সেনেগালিজ জাতীয়তার অধিকারী, সেনেগালের বিচারমন্ত্রী এবং আফ্রিকান ইউনিয়ন দ্বারা নিযুক্ত হয়েছেন।

সবকিছু পরিকল্পনামাফিক হলে গ্রীষ্মেই চাদের রাজধানী ডাকারে হাবরে'র বিচার শুরু হবে। হাবরের বিরুদ্ধে ১৯৮০ এর পরবর্তী সময়ে তার শাসনামলে মানবতার বিরুদ্ধে অপরাধের এবং অত্যাচারের অভিযোগ রয়েছে। তার শাসনামল পাশবিক ছিল, কিন্তু তিনি আক্ষরিক অর্থেই সিআইএ এবং রেগান প্রশাসন জন্য কাজ করতে আগ্রহী এবং ইচ্ছুক ‘আফ্রিকায় আমাদের লোক’ ছিলেন, যা অন্য কেউ হতে চাইতো না।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .