বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

ইরানে সামান নাসীমের মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা নিয়ে অনিশ্চয়তা দেখা দিয়েছে

Uncertainty exists over Saman Naseem's death after international pressure to prevent his execution. Image taken from the Amnesty International campaign to stop Saman Naseem's execution.

আন্তর্জাতিক চাপের মুখে সামান নাসীমের মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করার বিষয়টি নিয়ে অনিশ্চয়তা তৈরী হয়েছে। সামান নাসীমের মৃত্যুদণ্ড বাতিলের দাবীতে অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনালের-এর আয়োজিত প্রচারণা থেকে চিত্রটি গ্রহণ করা হয়েছে। ছবিঃ অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনালের।

কুর্দি একটিভিস্ট সামান নাসীমের পরিস্থিতি নিয়ে মানবাধিকার কর্মীরা এখনো অন্ধকারে রয়েছে, গত সপ্তাহে যার মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করার কথা ছিল, ১৯ ফেব্রুয়ারি তারিখের এই নির্ধারিত এই মৃত্যুদণ্ড যাতে কার্যকর না হয় তার জন্য ইরানের উপর আন্তর্জাতিক চাপ প্রয়োগে বেশ কয়েকটি প্রচারণা, শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত কাজ করে গেছে। সংবাদ অনুসারে সামানকে শাস্তি হিসেবে প্রদান করা এই মৃত্যুদণ্ড স্বয়ং ইরানের নিজস্ব আইন এবং আন্তর্জাতিক প্রতিশ্রুতির লঙ্ঘন, বিশেষ করে এই বিষয়টির প্রেক্ষাপটে যে, যখন তাকে গ্রেফতার করা হয়েছিল তখন সে ছিল এক অপ্রাপ্ত বয়স্ক নাগরিক ( তখন তার বয়স ছিল ১৭ বছর)।

একটিভিস্টরা এখনো #সেভসামান হ্যাশট্যাগের অধীনে টুইট করে যাচ্ছে, এদিকে তার মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা হয়েছে কিনা এবং তার কারাগারে আটকে থাকার বিষয় নিয়ে অনলাইনে পরস্পর বিরোধী সংবাদ পাওয়া যাচ্ছে।

ইরানের কোন সরকারি কর্মকর্তা এই বিষয়টি নিশ্চিত করেনি যে, সামান কি এখনো জীবিত, নাকি তার মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা হয়েছে।

আন্তর্জাতিক মানবাধিকার আন্দোলন নামক সংস্থা সংবাদ প্রদান করেছে যে ইরান সম্প্রতি মাদক পাচারের দায়ে ছয়জন কারাবন্দীর মৃত্যুদণ্ডের রায় কার্যকর করেছে। জাতিসংঘ, মাদক পাচার সংক্রান্ত অপরাধের ক্ষেত্রে অপরাধীদের সর্বোচ্চ শাস্তি পাওয়ার “যোগ্য বলে বিবেচনার করে না”।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .