বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

মালয়েশিয়ায় ভয়াবহ বন্যায় ১ লাখ ২০ হাজারের বেশি মানুষ বাস্তুচ্যুত

A man sits on a float tires in a flood affected area in Temerloh, 150 km (93 miles) outside of Kuala Lumpur, December 27, 2014. Photo by SAMMY FOO. Copyright Demotix

বন্যার পানিতে টায়ারের চড়ে ভাসছেন একজন। ছবিটি গত ২৭ ডিসেম্বর ২০১৪-এ কুয়ালালামপুর থেকে ১৫০ কিলোমিটার দূরের তিমারলোহ এলাকা থেকে তোলা। ছবি তুলেছেন স্যামি ফু। স্বত্ত্ব: ডেমোটিক্স।

মালয়েশিয়ার উত্তরপূর্বাঞ্চলে ভয়াবহ বন্যা আঘাত হেনেছে। এলাকাবাসী জানিয়েছেন, গত দুই দশকের মধ্যে এমন ভয়াবহ বন্যা তারা দেখেননি।

বন্যার কারণে গত দুইদিনে কমপক্ষে ১২০,০০০ মানুষ বাস্তুচ্যুত হয়েছেন। উপকূলীয় অঞ্চলগুলোতে এমন ভয়াবহ বন্যার কারণ হিসেবে বিজ্ঞানীরা ব্যাপক বৃষ্টিপাতের পাশাপাশি চাঁদের মহাকর্ষীয় শক্তির প্রভাবে সামুদ্রিক জোয়ারকে দায়ী করেছেন।

বিভিন্ন সামাজিক মিডিয়া ত্রাণ এবং উদ্ধার তৎপরতাকে আরো বেগবান করেছে। মালয়েশিয়ান বন্যা নামের ওয়েবসাইটটি বন্যা দুর্গতদের অবস্থান এবং অবস্থা জানাতে এসএমএস আদানপ্রদানের ব্যবস্থা করেছে। নেটিজেনরা বন্যা পরিস্থিতির খবর জানাতে টুইটারে #মাইবেনজির, #বেনজির২০১৪, #প্রেফরপানতাইতিমুর এবং #প্রেফরকেলানতান হ্যাশট্যাগ ব্যবহার করছেন।

বন্যা কতোটা ভয়াবহ প্রভাব ফেলেছে তা নিচের ছবিগুলো দেখলে বোঝা যাবে:

এমন ভয়াবহ বন্যা আমি এর আগে দেখিনি। কোটা ভারু, কেলানটান। পানতাইতিমুর এবং কেলানতানয়ের জন্য প্রার্থনা করুন।

পিসতুতো ভাইয়ের কাছ থেকে পাওয়া সর্বশেষ আপডেট। পানতাইতিমুর এবং কেলানতানয়ের জন্য প্রার্থনা করুন।

কোটা ভারুর মানুষদের জন্য প্রার্থনা করুন। আশা করছি, বন্যার পানি শীঘ্রই নেমে যাবে। পানতাইতিমুরের জন্য প্রার্থনা করুন।

পানিতে ডুবে যাওয়া কেলানতানের একটি হাসপাতাল। হাসপাতালে থাকা লোকজনের নিরাপত্তার জন্য প্রার্থনা করুন।

বন্যা ভয়াবহ রূপ নিচ্ছে। পানতাইতিমুর এবং মালয়েশিয়ার জন্য প্রার্থনা করুন।

শুভ সকাল চুকাই। পানতাইতিমুরের জন্য প্রার্থনা করুন।

আল্লাহ নিশ্চয়ই ভালো কিছু করবেন। পানতাইতিমুর এবং কেলানতানয়ের জন্য প্রার্থনা করুন।

পানতাইতিমুর এবং সকল বিপন্ন প্রাণিদের জন্য প্রার্থনা করুন।

আমি পানতাইতিমুরের জন্য শুধুই প্রার্থনা করতে পারছি না।

গুগল বন্যা দুর্গত এলাকার একটি মানচিত্র আপলোড করেছে:

flood_threat

দেশে যখন এমন ভয়াবহ বন্যা পরিস্থিতি তখন মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার সাথে মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী নাজিব রাজাকের গলফ খেলার একটি ছবি প্রকাশ পায়, যা ব্যাপক সমালোচনার সৃষ্টি করে:

প্রেসিডেন্ট ওবামা আজকে হাওয়াইতে মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী নাজিব রাজাকের সাথে গলফ খেলেছেন।

প্রধানমন্ত্রী নাজিব রাজাক মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে বছর শেষের ছুটি কাটাচ্ছিলেন। বন্যা পরিস্থিতির খবর পেয়ে তিনি দেশে ফিরে আসেন:

আমি বন্যা পরিস্থিতি নিয়ে অবগত আছি। অবস্থা পর্যবেক্ষণ করতে আমি দেশে ফিরে আসছি। দুর্গত মানুষদের জন্য আমি প্রার্থনা করছি।

দুর্যোগ পরিস্থিতি মোকাবেলায় সরকারের সময়ক্ষেপনের সমালোচনা করে একটি সম্পাদকীয় প্রকাশ করেছে মালয়েশিয়ান ইনসাইডার:

The authorities should be able to predict, prepare and inform people that floods are expected, and list out the relief centres and available food stock.

Yet neither those in affected areas or Malaysians elsewhere knew what hit them at the tail-end of one of the worst years in the country's history.

We need more than a transformation, we need reforms of attitudes and operating procedures.

কর্তৃপক্ষের বন্যার পূর্বাভাষ দিতে পারা উচিত। সে অনুযায়ী প্রস্তুতি নেয়া, জনগণকে সতর্ক করা, ত্রাণকেন্দ্রের তালিকা তৈরি এবং খাদ্য মজুদ করে রাখা উচিত।
এখন পর্যন্ত আক্রান্ত এলাকা অথবা মালয়েশিয়ার অন্য এলাকার কেউই জানতে পারেনি বছর শেষে দেশের ইতিহাসের সবচে ভয়াবহ বন্যা তাদের ওপর আঘাত হানবে।
এখন রূপান্তরের চেয়ে বেশি প্রয়োজন আমাদের মনোভাব এবং পরিচালনা পদ্ধতির সংস্কার।

বন্যা পরিস্থিতি মালয়েশিয়ার অনেক মানুষকে ত্রাণ কার্যক্রমে সহযোগিতা করতে উদ্বুদ্ধ করেছে। কিন্তু এখন পর্যন্ত বন্যার পানি নেমে যায়নি। পানি নেমে যাওয়ার পরে সবচে’ বড়ো চ্যালেঞ্জ হলো দুর্গত মানুষদের পুনর্বাসন করা। মালয়েশিয়ার পূর্বাঞ্চলের মানুষদের জন্য নতুন বছর খুব খারাপই যাবে।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .