বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

যদিও রুবলের পতন ঘটেছে, কিন্তু রুশ মীমগুলো গর্জন করছে

Vladimir Putin makes the most of the ruble's depreciation on currency exchange markets. Image shared widely and anonymously online.

মুদ্রা বিনিময় বাজারে রুবেলের পতনে ভ্লাদিমির পুতিন সবচেয়ে বেশী লাভবান হয়েছে। ছবি পরিচয় গোপন রাখা এক ব্যক্তির, ব্যাপকভাবে অনলাইনে প্রদর্শিত ছবি।

এক বছর আগে এক ডলার কিনতে যত রুবল লাগত, এখন ঠিক তার দ্বিগুণ লাগে। জানুয়ারি ২০১৪-এ রুবল ও ডলারের বিনিময় হার ছিল ৩২.৫ রুবলে এক ডলার, এখন ৫৮.৫ রুবল ১ ডলার মেলে। এই মূহূর্তে সম্ভবত রাশিয়ার সবচেয়ে বড় সংবাদ হচ্ছে রুবলের দর পতন, বিশেষ করে যখন দেশটি ধারাবাহিক এক অর্থনৈতিক মন্দা থেকে উত্তরণের উপায় খুঁজছে, যেখানে রাশিয়ার বিরুদ্ধে পশ্চিমা দেশগুলো আরোপ করা কঠিন অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা অন্তত আরো কয়েক মাস চলবে, আর এর পাল্টা ব্যবস্থা হিসেবে পশ্চিমা অনেক দেশের আমদানিকারকের বিরুদ্ধে মস্কোর প্রতিশোধমূলক ব্যবস্থা এখানে আর উল্লেখ আর নাই বা করা হল।

গত সপ্তাহে জাতির উদ্দেশ্যে প্রদান করা ভাষণে রাষ্ট্রপতি পুতিন মুদ্রার পতন প্রতিরোধে এক প্রচারণা শুরু করেন, যা নতুন এক উদ্বেগের জন্ম দেয়, যে রাশিয়া নতুন করে পুঁজি নিয়ন্ত্রণের সূচনা হতে যাচ্ছে,এই বিষয়টি বিনিয়োগকারীদের আরো উদ্বিগ্ন এবং রুশ মুদ্রার মান আরো বিপর্যন্ত করে তোলে। এই সপ্তাহে রাশিয়ার কেন্দ্রীয় প্রধান তদন্তকারী ইঙ্গিত দেন যে বিশেষ কোন মুদ্রা নিয়ে ফটকা কারবারকে পুলিশ অপরাধমূলক কর্মকাণ্ড হিসেবে চিহ্নিত করা শুরু করতে পারে।

রাশিয়ার মুদ্রা এবং অর্থনীতি নিয়ে উদ্বেগ বাড়া সত্ত্বেও রুনেট ইকো,রুশ টুইটার জগতের জনপ্রিয় এবং আনন্দদায়ক বেশ কিছু “রুবল মীম” (মীম-ইন্টারনেটে ছড়িয়ে পড়া ব্যাঙ্গাত্মক লেখা বা কার্টুন ইত্যাদি) সংগ্রহ করেছে।

রাশিয়ার ডিজাইনার এবং এনিমেটর ইয়েগোর ঝুগুন ১৯৯৭ সালে নির্মিত “টাইটানিক” চলচ্চিত্রে লিনার্ডো ডি ক্যাপ্রিওর চরিত্রের মৃত্যু দৃশ্যের সাথে তুলনা করে রুবলের পতন নিয়ে এক কার্টুন নির্মাণ করেছে, যেটিতে দেখা যাচ্ছে রুশ মুদ্রা তার পতনের জন্য তেলের মুল্য পতনের কাছে ঋণী।

রুস্তম আদাগামোভ এক প্রখ্যাত রুশ ফোটো সাংবাদিক যে প্রায় দুই বছর আগে বিচিত্র কিন্তু অপ্রমাণিত অল্প বয়স্ক মেয়েকে ধর্ষণের অভিযোগে এখন প্রাগে নির্বাসিত জীবন কাটাচ্ছে। তবে এখনো রাশিয়ায় সে দারুণ জনপ্রিয় এক ব্লগার।

— Рустем Адагамов (@adagamov) December 11, 2014

ব্যাং ব্যাং

যখন রুবেলের সাথে ডলারের বিনিময় হার ৫০-এ পৌঁছেছে, তখন জনপ্রিয় বিদ্রূপকারী টুইটার একাউন্ট ক্রেমলিনরাশিয়া, ১০০ ডলারের নোট নিয়ে এই রসিকতা করেছে:

তারা বলছে যে দুই ডলারের নোট এখন দুষ্পাপ্য, আমি তা ঠিক জানি না। আমি প্রতিদিন আরো বেশী বেশী এই নোট দেখছি…

নভেম্বর-এর শেষে স্টার ওয়ার্স-এর সপ্তম পর্বের তিন খণ্ডের ট্রেলার প্রকাশ পাওয়ার পর, রুশ ইন্টারনেট ব্যবহারকারীরা জেডি নাইট এবং স্ট্রমট্রুপার-এর ফিরে আসার এই আন্তর্জাতিক উন্মাদনায় যোগ দিয়েছে। এই ট্রেলারে নতুন লাইটসেবার এর সমালোচিত ডিজাইন অজস্র বিতর্কের জন্ম দিয়েছে,যা রুবল নিয়ে রসিকতার খোরাক যুগিয়েছে।

স্টার ওয়ার্সঃ দি ফল অফ রুবল

সারা রাশিয়া জুড়ে রাষ্ট্রের অর্থনৈতিক পরিস্থিতি নিয়ে যে উদ্বেগ, রুবেলের দর পতন তাতে ঘি ঢালে। আজকের দিনে রাশিয়ার বেশীরভাগ মানুষ অতীতের দুটি অর্থনৈতিক মন্দার কথা স্মরণ করার মধ্যে দিয়ে বাস করছেঃ ২০০৮-২০০৯ সালের খানিকটা বাজে অর্থনৈতিক মন্দা, যা রাষ্ট্রপতি দিমিত্রি মেদভেদেভ-এর আমলে ঘটেছিল এবং ১৯৯৮ সালে রাষ্ট্রপতি ররিস ইয়েলৎসিনের আমলের ভয়াবহ ভাবে অর্থনীতির ভেঙ্গে পড়ার ঘটনা।

কিছু ব্যক্তির জন্য, বাজার থেকে নিজেদের চোখ সরিয়ে নেওয়া খুব কঠিন

রাশিয়ার জরিপকারী প্রতিষ্ঠান ভিটিএসআইএমও, দারুণ ভাবে বিবাহ বিচ্ছেদ বেড়ে যাওয়া সংবাদ প্রদান করেছে।

দেশটির এখন প্রয়োজন এই সমস্যা সমাধানের উপায় খুঁজে বের করা, যা নিয়ে অন্যরা রসিকতা করেছে।

ঠক ঠক! সমস্যা আপনাকে দেখতে আপনার দ্বারে এসে উপস্থিত [এর শিরোনাম “সে কিছু সময়ের জন্য থাকবে”।]

“এই গ্রহের এক ঘণ্টা সমান পৃথিবীর সাত বছর” দারুণ! সমস্যা সমাধান না হওয়া পর্যন্ত আমরা এখানে অপেক্ষা করতে পারি।

রুনেটে অন্যরা চিন্তা করছে যতই দর পতন অব্যহত থাকুক না কেন, তা রুবলকে ধ্বংস করতে পারবে না।

রুনেট, রুশ রুবেলের জন্ম চক্র নিয়ে রসিকতা করছে। মাঝ বয়স থেকে বুড়ো হয়ে, মরা পর্যন্ত।

এ মাসের শুরুতে, সেন্ট পিটার্সবার্গের একটিভিস্টরা মুখোশ ও রাশিয়ার উচ্চ শ্রেণীর কর্মকর্তাদের মত পোষাক পড়ে এবং নেভা নদীর ধারে রুবেলের এক প্রতীক নিয়ে একটি ভেলায় তার শেষকৃত্য সম্পন্ন করে সেটিকে নদীতে ভাসিয়ে দেয়, যেখানে সেটা বিনা বাঁধায় ভেসে যেতে থাকে (এই ঘটনায় পুলিশ তিনজন অংশগ্রহণকারীকে গ্রেফতার করেছে)।

রুবল এখন বিনা বাঁধায় সেন্ট পিটার্সবার্গে ভেসে বেড়াচ্ছে

যখন মুদ্রার পতন নিয়ে রসিকতার বিষয়টি আসে, তখন ইন্টারনেট ব্যবহারকারীরা অনেক প্রখ্যাত রাজনৈতিক কার্টুনিস্ট, বিশেষ করে সের্গেই এলকিন-এর আঁকা কার্টুন তুলে ধরে।

কাছে আস,আরো কাছে…

সেপ্টেম্বরে ফিরে যাওয়া যাক, যখন রুবল এবং ডলারের বিনিময় হার ছিল ৪০-এরও কম, তখন এলকিন এই কমিক তৈরী করেছিল:

আসুন আমরা এটাকে চল্লিশ করতে চেষ্টা করি!

যখন রুবলের বিষয়ে কোন মন্তব্য করার বিষয় আসে, অন্য অনেক কার্টুনিষ্টও রুশ টুইটার জগতে আত্মপ্রকাশ করছে। নিচের এই কমিকসে, শিল্পী “৩০০” নামক এক চলচ্চিত্র থেকে একটি দৃশ্য গ্রহণ করেছে যেখানে ধারা বর্ণনাকারী প্রাচীন স্পার্টার নীতি ব্যাখ্যা করছে যেখানে নগরের জাতিগত শুদ্ধতা বজায় রখার জন্য দূর্বল শিশুকে খাঁড়া পাহাড়ের উপর থেকে নীচে ছুড়ে ফেলা হত।

ঐতিহ্যগত ভাবে, দূর্বল এবং অপ্রয়োজনীয় মুদ্রা রসাতলে যাক…

রুশ মুদ্রার এই দুর্দশায়, ইন্টারনেটের বেশীরভাগ আলোচনা হয়েছে এই নিয়ে যে কখন এই সমস্যা সবচেয়ে “খারাপ অবস্থায়” পৌঁছবে:

পুরোনো খাদ: রুবলের সেই বিনিময় হার স্মরণ করুন [শিরোনাম পড়ুন [এই সেই! “সবচেয়ে নীচে”!!]

রুশ মুদ্রার পরিস্থিতি যতই বেপরোয়া হোক না কেন, তবে আমরা নিশ্চিত যে রুশ ইন্টারনেট ব্যবহারকারীরা সবসময় ভ্লাদিমির পুতিনের ব্যক্তিত্বের মধ্যে দিয়ে এই বিষয়ে সান্তনা খুঁজবে, যার খুব নীচু থেকে রাশিয়াকে টেনে তোলা,ঘোড়ায় চড়া এবং ছাতি উন্মুক্ত করার জন্য সুনাম রয়েছে, এখন অবশ্য হয়ত দেশের এই বিপদগ্রস্ত চেতনা উপশমের জন্য সে দারুণ এক মলম হতে পারে।

এই ঘটনার পেছনে মূল কারণটি হচ্ছে হঠাৎ করে রাশিয়া রুবলের সাথে ডলারের বিনিময়ের হার-এ পেরেক ঠুকে দেওয়ার সুযোগ করে দিয়েছে।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .