বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

তুর্কি নারীরা যখন সহিংসতা থেকে মুক্তির জন্য লড়ছেন, তখন তাদের রাষ্ট্রপতি বললেন: নারী পুরুষ সমান নয়

8 March Night Walk, Istanbul

৮ মার্চ আন্তর্জাতিক নারী দিবস উপলক্ষ্যে ইস্তাম্বুলের রাতের শোভাযাত্রা থেকে ছবি নেয়া হয়েছে। ছবি তুলেছেন ৩.বিপি.ব্লগস্পট.কম থেকে।

বিশ্ব নারী নির্যাতন প্রতিরোধ দিবস উপলক্ষ্যে আয়োজিত এক সম্মেলনে অভব্য বক্তব্য দিয়ে আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমের শিরোনাম হলেন তুরস্কের রাষ্ট্রপতি রিসেপ তাইয়িপ এরদোয়ান। তিনি বলেছেন, নারী পুরুষকে সমান বলা সম্ভব নয়। শারীরিক গঠন এবং প্রকৃতিগতভাবেই তাদের মধ্যে পার্থক্য রয়েছে। উইমেন অ্যান্ড ডেমোক্রেসি এসোসিয়েশন এবং পরিবার ও সামাজিক নীতি বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্মেলনটি যৌথভাবে আয়োজন করেছিল।

Bizim dinimiz kadına bir makam vermiş, annelik makamı. Anneye bir makam daha vermiş. Cenneti ayakları altına sermiş. Babanın değil annenin ayakları altına koymuş. Ama bunu anlayanlar olur anlamayanlar olur. Bunu feministlere anlatamazsın mesela, onlar anneliği kabul etmiyor.

আমাদের ধর্ম নারীদের একটি জায়গা দিয়েছে, তা হলো মাতৃত্ব। মায়েদের আরেকটি জায়গাও রয়েছে। তাদের পায়ের নিচে বেহেস্ত আছে। বাবার নয়, মায়ের পায়ের নিচে আছে। যদিও প্রত্যেকে এটা বুঝতে পারেন না। নারীবাদ দিয়ে আপনি এটাকে ব্যাখ্যা করতে পারবেন না। নারীবাদীরা মাতৃত্বকে প্রত্যাখ্যান করে।

এরদোয়ানের মতে, নারী অধিকার আন্দোলন চেষ্টা করে ধারণার প্রতি অনমনীয় থাকতে। যেমন, সমতার ধারণা। তিনি পরামর্শ দেন, সমতার পরিবর্তে নারীদের উচিত “সমার্থকতার” ওপর নজর দেয়া।

Kadınların ihtiyacı olan şey nedir? Burada bazen erkek kadın eşitliği diyorlar. Kadın kadına eşitlik doğru olandır. Erkek erkeğe eşitlik doğru olandır. Ancak kadının özellikle adalet karşısındaki eşitliği asıl olandır. Kadınların ihtiyacı olan eşitlikten ziyade eşdeğer olabilmektir. Yani adalettir. Buna ihtiyacımız var.

নারীরা কি চান? কিছু কিছু সময় তারা যুক্তি দেন, নারী পুরুষের সমতার কি কি দরকার তার ওপর। নারী ও নারী সমতায় অধিকার কি কি আছে। পুরুষ ও পুরুষে সমতা ঠিক আছে। তবে আইন করার আগে সব নারীর সমতা কি অপরিহার্য। নারীদের জন্য সমতার চেয়ে সমার্থকতা বেশি দরকার। এটাই ন্যায়বিচার। আমরা এটাই চাই।

এরদোয়ানের বক্তব্য সাথে সাথেই তুমুল বিতর্কের সৃষ্টি করে। কেউ কেউ যুক্তি দেখান, রাষ্ট্রের সর্বোচ্চ নির্বাহী চলমান বৈষম্য এবং লৈঙ্গিক সহিংসতার যথাযথ কারণ দেখালেন।

সমতা মানুষের জন্মগত অধিকার। আর সমার্থকতা হলো ক্ষমতাবানের কৃপা। “সমার্থকতা” নিয়ে আলোচনা করার মানেই হলো অসমতাকে বয়ে নিয়ে যাওয়া। #Womenandmenareequal.

সূর্য পূর্ব দিকে ওঠে। ১০০ ডিগ্রি তাপমাত্রায় পানি ফোটে। দুই দু'গুনে চার হয়। #Womenandmenareequal

তুরস্কে নারীর প্রতি সহিংসতা বেশ বড় আকারেই আছে। রিপাবলিকান পিপলস পার্টির মহিলা শাখার মতে, ২০১৪ সালের প্রথম ১০ মাসে ২৫৫ জন নারী খুন হয়েছেন। এছাড়া কথার মাধ্যমে, মানসিক এবং অর্থনৈতিকভাবে নারী নিপীড়নের ঘটনা খুব সাধারণ। এসব কারণেই জাতিসংঘ বিশ্ব নারী নির্যাতন প্রতিরোধ দিবসে দেশটির প্রতি বিশেষ গুরুত্ব দিয়েছে।

এরদোয়ানের মন্তব্যে অনেকেই ক্ষুণ্ণ হয়েছেন। তারা মনে করেন, তার মন্তব্য খুব তাৎপর্যপূর্ণ। কারণ এতে করে নারীর পরিস্থিতির আরো অবনতি ঘটতে পারে।

যেখানে প্রতিদিন একজন নারী খুন হচ্ছেন, হাজার হাজার নারী সহিংসতার শিকার হচ্ছেন, সেখানে তার ‘নারী ও পুরুষ সমান নয়’ বক্তব্য একটা আমন্ত্রণ যেন! #Endviolenceagainstwomen #Massacreofwomen

২৫ নভেম্বর নারী অধিকার বিষয়ক সংগঠনগুলো তুরস্কের বিভিন্ন জায়গায় জড়ো হয়েছিলেন। তারা নারীর প্রতি ঘটা সহিংসতার প্রতিবাদ করেছেন। এই প্রতিবাদগুলো তারা সামাজিক মিডিয়াতেও নিয়ে গেছেন। এজন্য তারা #এন্ডভায়োলেন্সএগইনস্টউইমেন এবং #ম্যাসাকারঅবউইমেন হ্যাশট্যাগ ব্যবহার করেন। তুরস্কে যখন নারীরা বেশি হারে নির্যাতনের শিকার হয়ে মারা যাচ্ছেন, যে সময়ে তারা আরো বেশি সরকারি আইন ও প্রবিধান এবং রাষ্ট্রীয় সুরক্ষার দাবি করছেন ঠিক সেই সময়ে লৈঙ্গিক সমতা নিয়ে এরদোয়ানের ব্যক্তিগত বিদ্বেষপ্রসূত মন্তব্য নারী অধিকারের পথে বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছে।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .