বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

হালনাগাদঃ আন্দোলন তীব্রতর হওয়ায় জাম্বিয়ান ব্লগারের মুক্তি

Free Sait Matty Jaw Facebook page banner.

‘সাইত মাতি জো’কে মুক্তি দিন’ ফেসবুক পাতার ব্যানার।

সাইত মাতি জো একজন জাম্বিয়ান ব্লগার। এছাড়াও তিনি সামাজিক সক্রিয় কর্মী এবং মহিলা ও কন্যা শিশুর অধিকার বিষয়ক একজন আইনজীবী। গত ৫ নভেম্বর, ২০১৪ তারিখ থেকে তিনি কারাভোগ করছেন। অবশেষে তার বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় তাকে মুক্তি দেয়া হয়েছে। প্রচার মাধ্যমের রিপোর্টে এসেছে যে অবিলম্বে জো এর মুক্তির দাবিতে শিক্ষার্থীরা গন আন্দোলনের পরিকল্পনা করছেন। তার গ্রেপ্তারের খবরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে নিন্দার প্রচন্ড ঝড় বয়ে যাচ্ছে।

জাম্বিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইউটিজি) ইতিহাস বিভাগের প্রভাষক জো’কে ব্রিকামাতে অবস্থিত বিশ্ববিদ্যালয় প্রাঙ্গণ থেকে জাতীয় গোয়েন্দা সংস্থার লোকেরা তাৎক্ষনিকভাবে গাড়িতে উঠিয়ে নিয়ে যায়। গোয়েন্দা সংস্থাটি তাকে গ্রেপ্তারের খবর নিশ্চিত করেনি কিংবা অস্বীকারও করেনি।

তাকে গ্রেপ্তারের খবরে শিক্ষার্থী, বন্ধুবান্ধব এবং জাম্বিয়া এবং জাম্বিয়ার বাইরে বসবাসকারী তাঁর সহযোগী সক্রিয় কর্মীরা অনলাইন আবেদনের মাধ্যমে এবং “সাইত মাতি জো’কে মুক্তি দিন” শিরোনামের ফেসবুক পেজে তাদের ক্রোধ প্রকাশ করেছেন। কোন নির্দিস্ট অভিযোগ ছাড়া কোন ব্যক্তিকে ৭২ ঘন্টার বেশি আটক রাখা জাম্বিয়ান আইনের পরিপন্থী।

জাম্বিয়ান বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র ইউনিয়নের সভাপতি ওমর সাম্বাউ তাদের ইউনিয়নের ফেসবুক পেজে লিখেছেনঃ

আলহামদুলিল্লাহ্‌, পূর্বে যেমনটা বলা হয়েছে যে প্রশাসন এবং আমাদের প্রাণপ্রিয় ভাই সাইত মাতি জো এর পরিবার এবং ছাত্র ইউনিয়নের মাঝে মতবিনিময় চলছে। সাইত ঘরে ফিরে এসেছেন। আপনাদের বোঝাপড়া এবং ধৈর্য্য ধারনের জন্য সবাইকে আমি আন্তরিক ধন্যবাদ জানাই। যারা তাদের অনুভূতির উপর ভিত্তি করে আমাকে অপমান করেছেন তাদের কাছে আমি এখনও ক্ষমা প্রার্থনা করছি। আর আমি কখনই কাউকে আঘাত দিতে চাইনি। আপনাদের এই উদ্যোগের জন্য ধন্যবাদ। সবাইকে স্মরন করিয়ে দিচ্ছি যে আমাদের মাতৃভূমি জাম্বিয়ার জন্য আমরা সবাই সংগ্রাম করছি এবং কাজ করছি। আমি প্রার্থনা করি, আমরা সবাই যেন একতা, স্বাধীনতা এবং শান্তির সাথে আমাদের প্রতিটি দিন কাটাতে পারি।

স্যাম ফাতেয় একজন জাম্বিয়ান সামাজিক বিচারক সক্রিয় কর্মী। তিনি জো এর মুক্তিতে অত্যন্ত আনন্দ প্রকাশ করেছেন এবং সকল রাজনৈতিক বন্দী এবং কারাবন্দীদের জন্য স্বাধীনতা নিশ্চিত করতে আরও বেশি সচেষ্ট হওয়ার আহবান জানিয়েছেনঃ

নিশ্চিত খবর! এক ঘনিষ্ঠ পারিবারিক সূত্র থেকে জানা গেছে যে সাইত মাতি জো’কে মুক্তি দেয়া হয়েছে! অবশেষে মুক্তি! অবশেষে মুক্তি!! সাইত মাতি জো অবশেষে মুক্তি পেয়েছেন!!! #আপনিইআশা হ্যাশট্যাগের অধীনে লড়াই চলবে – মোমোদৌ সাবালিকে মুক্তি দিন, আমাদৌ সান্নেহকে মুক্তি দিন, আলহাজি এবং ইবোউকে মুক্তি দিন, সকল রাজনৈতিক বন্দীকে মুক্তি দিন। 

সাইত মাতির সাথে আরও দুইজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল। নাম না জানা তাদের একজন ঘানার নাগরিক এবং অপরজন নাইজেরিয়ান। এদের দুই জনকেও মুক্তি দেয়া হয়েছে কিনা তা এখনও স্পষ্ট নয়।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .