বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

ইথিওপিয়ায় জোন নাইন-এর ব্লগাররা সন্ত্রাসবাদের অভিযোগে অভিযুক্ত

Zone 9 bloggers Zelalem Kibret, Edom Kasaye, and Befeqadu Hailu. Photos used with permission.

জোন নাইন-এর ব্লগার জেলালেম কিবরেত, এডোম কাসাইয়ে এবং বেফাকদু হালিলু। অনুমতিক্রমে ছবি প্রকাশিত হয়েছে।

গতকাল ইথিওপিয়ার লিডেটা উচ্চ আদালত নয়জন ব্লগার এবং সাংবাদিক, যার মধ্যে চারজন গ্লোবাল ভয়েসেস-এর সদস্য, সন্ত্রাসবাদ এবং এই সংক্রান্ত কর্মকাণ্ডে যুক্ত থাকার অভিযোগে অভিযুক্ত করেছে। তাদের ২৫ এবং ২৬ এপ্রিলে আদ্দিস আবাবায় গ্রেফতার করা হয় এবং কারাগারে পাঠানো হয়, যারা “ মানবাধিকার প্রতিষ্ঠান হিসেবে দাবী করা বিদেশী সংগঠনের সাথে কাজ করা এবং … সামাজিক প্রচার মাধ্যমের মধ্যে দিয়ে জনতাকে প্ররোচিত করার জন্য অর্থ গ্রহণ”-এর মত অনানুষ্ঠানিক অভিযোগ–এর ভিত্তিতে এতদিন কারাগারে বন্দী রয়েছে।

এই শুনানীর আগে নোটিশ পাঠানোর ক্ষেত্রে অভিযুক্তদের আইনজীবী এবং পরিবারকে যথেষ্ট সময় প্রদান করা হয়নি, আর এ কারণে যখন তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করা হয়, সে সময় অভিযুক্তদের কোন আইনজীবী সেখানে উপস্থিত ছিল না।

অভিযুক্তদের ঘনিষ্ঠদের সাহায্যে পরিচালিত জোন নাইন ট্রায়াল ট্রাকার ব্লগ সংবাদ প্রদান করেছে যে ইথিওপিয় সরকার যে সমস্ত অভিযোগ এনেছে তার মধ্যে রয়েছে “সন্ত্রাসী” সংগঠন হিসেবে চিহ্নিত প্রতিষ্ঠানের সাথে কাজ করা; ইমেইল সঙ্কেত-এ আবদ্ধ রাখার প্রশিক্ষণে অংশগ্রহণ এবং “গুপ্ত সংগঠন” সংগঠিত করা।

ব্লগারদের আইনজীবী সংবাদ মাধ্যম এএফপি-কে জানিয়েছেন, এই সকল অভিযোগের কোন “উপযুক্ত ভিত্তি” নেই। টুইটারে #ফ্রিজোননাইনব্লগারস হ্যাশটাগের মাধ্যমে বিশ্বের এই সমস্ত ব্লগারের সমর্থকরা এই ঘটনার বিরুদ্ধে ক্ষোভ প্রকাশ করেছে। ইথিওপিয়ার প্রাক্তন এক হিউম্যান রাইটস ওয়াচ প্রতিনিধি ইউসেফ মুলুগেটা খুব কাছ থেকে এই মামলা অনুসরণ করছে, তিনি টুইট করেছেন:

১৯ পাতার সাজানো এক অভিযোগ, কিন্তু তাতে জোন নাইন-এর ব্লগারদের নাম উল্লেখ করা হয়নি। এমনকি একবারও নয়। নিঃসন্দেহে এই পরিচয়, তাদের বাক স্বাধীনতা, শত্রুদের আতঙ্কিত করেছে।

২০০৯ সালে কার্যকরী হওয়ার পর, ইথিওপিয়ার বিতর্কিত সন্ত্রাস বিরোধী আইন, দুর্ভাগ্যজনকভাবে রাজনৈতিক বিষয়ক সংবাদিকদের কাছে অতি পরিচিত হয়ে উঠেছে। এসকিনদার নেগা এবং রিয়াত আলেমু একই অভিযোগে অভিযুক্ত এবং ২০১১ সাল থেকে আদ্দিস আবাবার কালিয়াতি কারাগারে বন্দী। সরকারি আইনজীবী স্রেফ এই অভিযোগের ভিত্তিতে তাদের বিরুদ্ধে মামলা করেছে যে ব্লগাররা ইউরোপ এবং যুক্তরাষ্ট্র ভিত্তিক রাজনৈতিক দলের কাছ থেকে প্রশিক্ষণ এবং অর্থনৈতিক সুবিধা গ্রহণ করেছে। ট্রায়াল ট্রাকার উল্লেখ করছে যে আদর্শিক ভাবে দুটি দল একেবারে ভিন্ন।

সংবাদপত্র থেকে প্রাপ্ত সংবাদ অনুসারে, যেহেতু উক্ত ব্লগার এবং সাংবাদিকরা সম্মিলিত ভাবে জোন নাইন-এ ব্লগিং করে, সে কারণে একই সাথে গুপ্ত ভাবে নিজেদের সংগঠিত করার দায়ে তাদের অভিযুক্ত করা হয়েছে, বিশেষ করে উক্ত দল দ্বারা পরিচালিত জোন নাইন ব্লগের গণমুখী স্বভাব এবং কর্মকাণ্ডের কারণে বলা যায়, তা এক বিভ্রান্তিমূলক অভিযোগ।

৮ আগস্ট তারিখে উক্ত দলের এক শুনানী ধার্য করা হয়েছে। এই মামলার তাজা সংবাদ এবং কি ভাবে জোন নাইন-এর ব্লগারদের সমর্থন করা যাবে, সে বিষয়ে জানার জন্য ট্রায়াল ট্রাকার ব্লগে প্রবেশ করুন।

Free Zone9 Bloggers campaign image. Created by Hugh D'Andrade, remixed by Hisham Almiraat.

জোন নাইন ব্লগারদের মুক্ত কর নামক প্রচারণা। তৈরী করেছেন হুগ ড’ আন্দ্রেদা। ছবি রিমিক্স করেছেন হিশাম আলমিরাত।

1 টি মন্তব্য

আলোচনায় যোগ দিন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .