বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

হ্যাঁ, আমি ব্রা পরি, তা দেখাও যায়। তো?

সাংবাদিক নিবেদিতা এন কুমার ফেসবুকে একটি আবেগী নোট লিখেছেন। তা সবার কাছে দ্রুত ছড়িয়ে পড়েছে। নোটটিতে তিনি পুরুষশাসিত ভারতীয় সমাজে নারীদের পোশাক ধর্ষণকারীদের প্রলোভিত করার ধারণায় চাবুক হেনেছেন। নোটের অংশবিশেষ রইলো এখানে:

Why? Why do you do that? Stare at my breasts like they are cute babies calling out to be cuddled. Strip me naked, slowly, every time I enter the bus? Try to glimpse into my cleavage when I am sitting and reading in the metro.

Who gives you the right? To grope me in the crowded bus? To fall on me “innocently” when I buy popcorn in the theater. When I sit cross legged in the auto and you stop your bike and look hungrily at my legs.

A piece of meat, am I?

How do you think I feel? When I have to continuously watch over my shoulder, because it is 10 pm and there is nobody at the bus stop, except you. Staring at my neck.

কেন? কেন আপনি তা করবেন? কেন আমার স্তনের দিকে তাকিয়ে থাকবেন যেন তারা আদরের শিশুর মতো আপনাকে ডাকছে? আমি প্রতিবার যখন বাসে চড়ি, আপনার চোখজোড়া কেন আমাকে নগ্ন করে দেখবে? মেট্রো ট্রেনে আমি যখন বসে থাকি কিংবা পড়তে থাকি, তখন কেন জামার ফাঁক গলে আমার স্তনের আভাস দেখার চেষ্টা করবেন?

আপনাকে এই অধিকার কে দিয়েছে- ভিড় বাসে আমাকে অনুভব করার? পপকর্ন নিয়ে সিনেমা দেখার সময়ে ‘নিষ্পাপ'ভাবে আমার গায়ে ঢলে পড়ার। আমি যখন পা ভাঁজ করে অটোতে বসে থাকি, তখন বাইক থামিয়ে আমার নগ্ন পদ ক্ষুধার্তের মতো গিলে খাওয়ার।

আমাকে এক টুকরো মাংস মনে হয়?

আপনার কি ধারণা আছে এসময়ে আমার কেমন লাগে? আমি ক্রমাগত ঘাড় ঘুরিয়ে পিছন দিকে দেখি। কারণ, তখন রাত ১০টা বেজে গেছে। বাসস্টপে আপনি ছাড়া আর কেউ নেই। আমার ঘাড়ের দিকে আপনি স্থিরদৃষ্টিতে তাকিয়ে আছেন।

নিবেদিতা কুমারের নোট ফেসবুকে ৩৫ হাজারের বেশি বার শেয়ার হয়েছে। লজিক্যাল ইন্ডিয়ান নামের একজন শেয়ার করার পর সেখানে ২ লক্ষ ৬০ হাজার জনের বেশি লাইক দিয়েছেন এবং ৬৪ হাজার বারের বেশি শেয়ার হয়েছে।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .