বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

উইচ্যাট এবং অন্যান্য মেসেজিং অ্যাপ্লিকেশনের উপর চীনের চাপ প্রয়োগ

জনপ্রিয় তাৎক্ষনিক বার্তা আদান প্রদান প্ল্যাটফর্মগুলোর উপর চীন মাসব্যাপী একটি নতুন শৃঙ্খলামূলক শাস্তির ব্যবস্থা চালু করতে যাচ্ছে। এসব প্ল্যাটফর্মের মাঝে টেনসেন্টের উইচ্যাট বার্তা আদান প্রদান এ্যাপ্লিকেশনটিও অন্তর্ভুক্ত রয়েছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম কোম্পানিগুলোর মনোযোগ আকর্ষনের জন্য সম্প্রতি যে প্রচারাভিযানটি চালানো হয়েছে তাতে এই এ্যাপ্লিকেশনটি চালু করা হয়েছিল।

৪ জুন তারিখে গণতন্ত্রের পক্ষে তিয়েনআনমেন চত্বর প্রতিবাদের ২৫ বছর পূর্তি উদযাপন করা পর্যন্ত এই অভিযানটি চলবে।

রাষ্ট্রীয় প্রচার মাধ্যমের দেয়া তথ্য অনুযায়ী, তিনটি সরকারি এজেন্সি মাসব্যাপী এই “বিশেষ অপারেশন” চালাবে। মূলত উইচ্যাট এবং অন্যান্য প্ল্যাটফর্মের বিভিন্ন কাজ সম্পর্কে যাচাই বাছাই করতে এই বিশেষ অপারেশন চালান হবে। কর্তৃপক্ষ তাদেরকে কল করে বা ইমেইল বার্তা পাঠিয়ে এই কার্যক্রম সম্পর্কে আভাস দিতে চায়। এক্ষেত্রে উইচ্যাটের গণ একাউন্টগুলোকে লক্ষ্য করে অভিযান চালানো হবে।

উইচ্যাট ২০১৩ সাল থেকে উইবো’র জায়গা দখল করে নিয়েছে। এটি সাভি মোবাইল ব্যবহারকারীদের জন্য একটি নতুন যোগাযোগ উৎসে পরিণত হয়েছে। সিনা উইবো’র মাসিক সক্রিয় ব্যবহারকারীর সংখ্যা যেখানে ১৪৩.৮ মিলিয়ন, সেখানে উইচ্যাটের মাসিক সক্রিয় ব্যবহারকারীর সংখ্যা ৩৯৬ মিলিয়ন। অর্থাৎ সিনা উইবোর চেয়ে উইচ্যাটের ব্যবহারকারীর সংখ্যা দ্বিগুণের চেয়েও বেশি। কিন্তু বেশির ভাগ উইচ্যাট ব্যবহারকারী তাদের বার্তাগুলো জনসম্মুখে শেয়ার না করে বরং ব্যক্তিগতভাবে বার্তা পাঠাতেই বেশি স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করেন।   

1

সেই ২০১৩ সাল থেকেই চীনে সাভি মোবাইল ব্যবহারকারীদের জন্য উইবোর জায়গায় উইচ্যাট নতুন স্থান দখল করে নিয়েছে।  

উইচ্যাটে দুই মিলিয়নের বেশি সংখ্যক “গণ একাউন্ট” রয়েছে। এসব একাউন্টে বিভিন্ন প্রচার মাধ্যম চ্যানেল, ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠানের মালিক এবং তাদের নিজস্ব মতামত শেয়ার করতে চান, এমন যে কোন লোক তাঁর অনুসারীদের উদ্দেশ্যে দিনে একবার কোন লেখা প্রকাশ করতে পারবেন। এটি “নিজের প্রচার মাধ্যম” ধারণার প্রবর্তন করেছে। এটি এমন একটি স্থানে পরিণত হয়েছে, যেখানে বিভিন্ন সংস্থা তাদের ব্যান্ড নাম প্রতিষ্ঠা করতে এবং নানা তথ্য উপাত্ত শেয়ার করতে পারে।

চায়না ডেইলি রাষ্ট্রায়ত্ত ইন্টারনেট তথ্য উপাত্ত দপ্তর থেকে দেয়া একটি বিবৃতির উদ্ধৃতি দিয়েছেঃ  

গুটি কয়েক লোক অবৈধ এবং ক্ষতিকর বিভিন্ন তথ্য বিলি করতে এই প্ল্যাটফর্মগুলোকে ব্যবহার করছে। তারা সাইবার জগতে জনস্বার্থ এবং আইন শৃঙ্খলার মারাত্মক ক্ষতি করছে। তাৎক্ষনিক বার্তা প্রেরণ সেবাগুলোতে থাকা সকল গণ একাউন্টকে লক্ষ্য করে এই প্রচারাভিযান চালানো হবে। কেননা, একাউন্টগুলো ব্যাপক পরিসরে তথ্যের বিস্তার ঘটাতে এবং অনুসারীদেরকে একত্রিত করতে সক্ষম। দেশে এবং দেশের বাইরে থাকা শত্রু বাহিনীর অনুপ্রেবেশের বিরুদ্ধে আমরা দৃঢ়ভাবে যুদ্ধ করতে প্রস্তুত। 

উইচ্যাটের বিরুদ্ধে শৃঙ্খলা মূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করার বিষয়টি অনেকের কাছেই বিস্ময়কর বলে মনে হয়নি। উইচ্যাটে পাঠানো বার্তাগুলো বিশ্লেষণ করে প্রকাশিত হয়েছে যে সেন্সররা প্ল্যাটফর্মটি খুব গভীরভাবে পর্যবেক্ষণ করছেন। নির্দিষ্ট সময় পর পর উইচ্যাটে বেশ কিছু প্রবন্ধ বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। এসব একাউন্ট থেকে রাজনৈতিক বিভিন্ন কলাম এবং তথ্য পাঠানো হয়েছিল বলে ২০১৪ সালের মার্চ মাসে কর্তৃপক্ষ কয়েক ডজন গণ একাউন্ট বন্ধ করে দেয়।

সিনোকিজম সংবাদ-বিজ্ঞপ্তির লেখক বিল বিশপ টুইটারে মন্তব্য করেছেনঃ 

উইচ্যাটকে বর্তমানে নজরদারি করায় মোটেও অবাক হইনি। বিভিন্ন সংস্থা এবং তথ্য বিস্তারের ক্ষেত্রে এটির আকার এবং ভূমিকা বেড়ে যাওয়ায় এমনটি করা হচ্ছে।  

উইবো ব্যবহারকারি “গং ওয়েনজিয়াং” লিখেছেনঃ 

前几天cctv说微信色情的事情,其实是当局要开始整治微信的信号:当局 最喜欢以打击低俗之名行钳制舆论之实。

কয়েক দিন আগে সিসিটিভি উইচ্যাট পর্নোগ্রাফি নিয়ে রিপোর্ট করেছে। এটি আসলে উইচ্যাটের বিরুদ্ধে শৃঙ্খলা মূলক ব্যবস্থা নেয়ার একটি পূর্ব সংকেত ছিল। কর্তৃপক্ষ “পর্নোগ্রাফির বিরুদ্ধে শৃঙ্খলা মূলক ব্যবস্থা” শব্দটি ব্যবহার করে অনলাইন বাক স্বাধীনতাকে লাগাম পরাতে চায়। 

আরেকজন ব্যবহারকারি “ইডং হুলিয়ানওয়াং আপ” চিন্তিত যে উইচ্যাটও ওয়েইবো’র মতো একই পরিণাম দেখতে যাচ্ছে। ওয়েইবো এমন একটি মাধ্যম ছিল যেখানে শীতল শৃঙ্খলা মূলক ব্যবস্থা চালিয়ে রোমাঞ্চর আলোচনা নিশ্চুপ করে দেয়া হয়েছে। সেখানে তথাকথিত বড় ভি ব্যবহারকারি বা অনলাইন তারকাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহনের কথা বলে ২০১৩ সালের আগস্ট মাস থেকে নিয়ন্ত্রণ করা হচ্ছেঃ 

网络彻底断网才是利益集团最希望看得到的!微博的今天,就是微信的明天

কর্তৃপক্ষ আসলে চায় সারা দেশে ইন্টারনেট লাইন কেটে দিতে। আজকের উইবো হচ্ছে আগামীর উইচ্যাট। 

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .