বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

দক্ষিণ কোরিয়ার প্রবীণ গাড়িচালকদের চিহ্নিত করবে “রৌপ্য চিহ্ন”

Image of Senior Bus Driver, South Korea

ছবিঃ ফ্লিকার ব্যবহারকারী ইয়ং সক ইয়ান (CC BY NC ND 2.0)

দক্ষিণ কোরিয়াতে পুলিশ একটি নতুন নিয়ম প্রস্তাব করেছে। এ নিয়ম অনুযায়ী, প্রবীণ গাড়িচালকদের গাড়ির পেছনে একটি স্টিকার লাগাতে হবে। এটি পুলিশকে জানাতে সাহায্য করবে যে তারা প্রবীণ ।

দক্ষিণ কোরিয়া খুব দ্রুত সমাজকে [কোরিয়ান] বুড়ো করে ফেলছে। দাপ্তরিক তথ্য উপাত্ত মতে দেখা যাচ্ছে, ২০১৭ সাল নাগাদ ৬৫ বছরের বেশি বয়স্ক জনগোষ্ঠীর সংখ্যা সমগ্র জনসংখ্যার শতকরা ১৭ ভাগে উন্নীত হবে। পুলিশের তথ্য উপাত্ত একই কথা [কোরিয়ান] বলছেঃ সাম্প্রতিক সময়ে বয়োজ্যেষ্ঠ গাড়িচালকেরা কেবলমাত্র মোট গাড়িচালক জনগোষ্ঠীর শতকরা ১০ ভাগে উন্নীত হয়নি, বরং প্রবীণ নাগরিকদের মাঝে প্রাণনাশক দূর্ঘটনার হারও অনেকাংশে দ্রুত বেড়ে গেছে। প্রবীণদের গাড়ির তুলনায় অন্যান্য সাধারণ গাড়ির ক্ষেত্রে প্রাণঘাতি দূর্ঘটনার হার বেশ কমেছে।   

এ কারনে সরকার বেশ নড়েচড়ে বসেছে। পুলিশ একটি নতুন নিয়ম চালু করেছে। নিয়ম অনুযায়ী বয়স্ক গাড়িচালকদেরকে গাড়ির পেছন দিকে তথাকথিত “রৌপ্য চিহ্ন” [কোরিয়ান] ধারী একটি লক্ষণীয় স্টিকার লাগাতে হবে। এই চিহ্নটি বলে দেবে যে এই গাড়িটি একজন প্রবীণ গাড়িচালক (একটি স্থানীয় জেলা কর্তৃক তৈরি করা একটি নমুনা চিহ্ন, যা এমনটি দেখায়) চালাচ্ছেন। তারা আরও শপথ নিয়েছে যে প্রবীণদের ট্রাফিক পুলিশ শুধুমাত্র তাদের বয়সের জন্য আর ক্ষমা করবে না। এই বিষয় নিয়ে প্রকাশিত একটি কলাম [কোরিয়ান] নিচে দেয়া হল। সবচেয়ে বেশি ভোট পাওয়া অন্যতম একটি মন্তব্য হচ্ছেঃ

일이삼사: 실버마크, 아줌마마크, 음주 전과자마크, 1년미만 초보마크, 정신병 이력자마크 등등등 다 의무화 해라. 이게 지금 대책이라고 내 놓은거냐??

ইন্টারনেট ব্যবহারকারী পরিচয় নম্বর ১২৩৪: এই রৌপ চিহ্নটির পাশাপাশি আপনারা কোন আজুম্মা চিহ্ন [বিবাহিত বৃদ্ধ মহিলাদের চিহ্নিত করণ কোরিয়ান স্মারক], ডিইউআই চিহ্ন, যাদের গাড়িচালনার অভিজ্ঞতা এক বছরের কম, তাদের জন্য নতুন গাড়িচালক চিহ্ন, মানসিক বিকারগ্রস্তের জন্য চিহ্ন ইত্যাদি কেন ব্যবহার করছেন না। কেন এই সকল চিহ্নকে ব্যবহার করা বাধ্যতামূলক করে দিচ্ছেন না ? এটা কি আসলেই সেই পদক্ষেপ, আপনারা যার নাগাল ধরেছেন ?

টুইটার ব্যবহারকারীদের কেউ কেউ এটা ভেবে উদ্বিগ্ন যে এটা হয়তোবা বয়স ভিত্তিক একটি সামাজিক বৈষম্য হিসেবে আবির্ভূত হতে যাচ্ছে। স্টিকারটিতে মনোযোগ আকর্ষণ করা অপরাধীদের জন্য বয়োজ্যেষ্ঠদের কে আরও সহজ লক্ষ্যবস্তু হিসেবে অরক্ষিত করে তুলতে পারে। 

প্রবীণ গাড়িচালকদের তথাকথিত ‘রৌপ্য চিহ্ন’ লাগানোর নতুন নিয়ম সম্পর্কে খবর প্রকাশ করা হয়েছে। http://t.co/XJSLZFxTwW 

কিন্তু এটি কি বৈষম্যের আরেকটি নতুন ধরন হতে যাচ্ছে ? গাড়ি চালনার লাইসেন্স ইস্যু করার সময় তাদের কি আরও পুঙ্খানুপুঙ্খ পরিশোধিত একটি প্রক্রিয়া নির্ধারন করা উচিৎ ছিল না ? তারা কি এই বিষয়ে একেবারেই সচেতনভাবে চিন্তা করেন নি যে এতে করে অপরাধীদের পক্ষে তাদেরকে শিকারে পরিনত করা কতোটা সহজ হয়ে যাবে ?  

এটা কি হতে যাচ্ছে??? এটি সম্ভাব্য মানবাধিকার লঙ্ঘনকে উস্কে দিবে। তারা এটিকে নিদেন পক্ষে পরামর্শ হিসেবে দিতে পারে, কিন্তু বাধ্যতামূলক করণীয় হিসেবে নয়। এই চিহ্নটি নিশ্চয়ই অন্য গাড়িচালকদের এই বয়োজ্যেষ্ঠ গাড়িচালকদের প্রতি বিনয়ী আচরণ করতে বাধ্য করবে না। 

(নকল) দাপ্তরিক টুইটঃ প্রবীণ গাড়িচালকদের জন্য সরকারের নেয়া রৌপ্য চিহ্নের পদক্ষেপটি মেনে নিন। প্রিয় টুইটার ব্যবহারকারী সঙ্গীরা আপনারা যদি প্রবীণ হয়ে থাকেন, তবে দয়া করে একটি রৌপ চিহ্ন দেখান। 

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .