বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

অনলাইনে বিদেশী টিভির ক্ষেত্রে সেন্সরশিপ আরো জোরালো করেছে চীন

চীনের রাষ্ট্রীয় সংবাদ, প্রকাশনা, রেডিও, টিভি, চলচ্চিত্র এবং টেলিভিশন প্রশাসন (সাপপ্রাফট) “ স্থানীয় ইন্টারনেট কোম্পানির জন্য “ প্রথমে সেন্সর, তারপর প্রচার” নীতি চালু করে অনলাইন টিভি অনুষ্ঠানের বিরুদ্ধে অভিযান শুরু করেছে।

নতুন আইন অনুসারে সকল ভিডিও অনলাইনে জনগণের কাছে পৌঁছানোর আগে অনলাইন কোম্পানিগুলোকে সরকার অনুমোদিত সেন্সর নীতি প্রয়োগ করতে হবে। ভিডিও কোম্পানিতে বিনিয়োগকারী এবং অপারেটর, যারা ভিডিওর উপাদান বা কন্টেন্ট তৈরী করে, যদি তারা সরকারের অনুমোদন না নেয়, তবে তাদের সতর্ক করা, তাদের জরিমানা ধার্য্য করা অথবা তাদের পাঁচ বছরের জন্য পর্যন্ত কন্টেন্ট স্ট্রিমিং (ইন্টারনেটে অডিও/ ভিডিও আপলোড করা বা নামানো, বা লিঙ্ক প্রদান করা, অন্যরা মূলত এই সমস্ত অডিও ভিডিওর উপাদান নামাতে বা দেখতে পারে।) নিষিদ্ধ করে শাস্তি প্রদান করা হবে।

এখন পর্যন্ত ইয়ুকু এবং টুডোর মত কোম্পানিগুলো নিজেদের দ্বারা করা সেন্সর–এর মাধ্যমে পুনরায় অনুষ্ঠান প্রচার করছে।

হলিউড রিপোটার-এর সংবাদ অনুসারে সাপপ্রাফট বলছে:

যে সমস্ত কোম্পানি ইন্টারনেটে নাটক ও মাইক্রোফিল্মের মত অনুষ্ঠান প্রচার করছে, তাদের অবশ্যই এই সমস্ত অনুষ্ঠান যাচাই করার জন্য যোগ্যতাসম্পন্ন ব্যক্তিকে নিয়োগ দিতে হবে। উক্ত ব্যক্তি অনুষ্ঠান সেন্সর করার প্রয়োজনী শর্তাবলী পূরণ করবে এবং তাকে রাষ্ট্রীয় বা প্রাদেশিক ইন্টারনেট ভিডিও বা অডিও অনুষ্ঠান নির্মাণ শিল্পের সাথে যুক্ত সংস্থার কাছ থেকে প্রশিক্ষণ গ্রহণ করতে হবে। তাদের অবশ্যই অনুষ্ঠানের উপাদান নিখুঁত ভাবে সম্পাদন করা যোগ্যতা এবং সেন্সরশীপ ব্যবস্থাপনা পদ্ধতি জানা থাকতে হবে। তাদের ভিডিও ও অডিও প্রচার করার বৈধ লাইসেন্স থাকতে হবে। আর এটি প্রদান করবে সাপপ্রাফট। তাদেরকে ব্যবসা করার সুযোগ প্রদান করা হয়েছে তার উন্নতির জন্য, আর যে শর্তে এর অনুমোদন প্রদান করা হয়েছে তা কঠোর ভাবে অনুসরণ করতে হবে। অনুষ্ঠান কেনার বিষয়টিকে, নিজে নিজে অনুষ্ঠান তৈরীর সমান হিসেবে বিবেচনা করা হবে।

এ বছরের শুরুতে,আইন করা হয় যে, যদি কেউ যদি মাইক্রোফিল্মের (অথবা ইন্টারনেটের স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র) এবং অন্য ব্যবহারকারীর তৈরী করা উপাদানে কোন ভিডিও আপলোড করে, তাহলে তাকে তার প্রকৃত নামে ইন্টারনেটে নাম নিবন্ধন করতে হবে এবং পোস্ট করার আগে উক্ত ভিডিও সেন্সর করতে হবে।

American TV shows have gained great popularity in China over the past few years.

বিগত বছরসমূহে যুক্তরাষ্ট্রের টিভি অনুষ্ঠানগুলো চীনে দারুণ জনপ্রিয়তা লাভ করেছে

এই বছরের শুরুতে চীনের অনলাইন ভিডিওর দর্শক সংখ্যা ৪৫০ মিলিয়ন (৪৫কোটি) ছাড়িয়ে যায় আর এই সংখ্যা ক্রমশ বাড়ছে। নতুন এই আইনের লক্ষ্য যুক্তরাষ্ট্রের টিভি অনুষ্ঠান এবং মাইক্রোফিল্মস। বিগত বছরগুলোয় হাউস অফ কার্ড এবং ওয়াকিং ডেড এর মত যুক্তরাষ্ট্রের টিভি অনুষ্ঠানগুলো দারুণ জনপ্রিয়তা লাভ করেছে, কিন্তু নতুন আইন প্রয়োগ হলে, এই সমস্ত অনুষ্ঠানসমূহের আর অনুমোদন পাওয়া সম্ভব হবে না।।

সংবাদে জানা গেছে যুক্তরাষ্ট্রের কিছু কিছু কোম্পানি এই সেন্সরশীপ ব্যবস্থা পাশ কাটানোর জন্য একটি অনুষ্ঠানের দুটি সংস্করণ তৈরী করছে, যাতে চীনের বাজার না হারানোর বিষয়টি নিশ্চিত হয়। যদিও বেশ কিছু ভিডিও সরবরাহকারী এখনো বিশেষ এই সেন্সরশিপের বিষয়ে জানে না, তবে ইতোমধ্যে তারা সংবেদনশীল উপাদান যুক্ত অনুষ্ঠান কেনা কমিয়ে এনেছে।

গুজব রয়েছে যে সম্ভবত অতিপ্রাকৃত এবং ভৌতিক কাহিনী বিষয়ক অনুষ্ঠান এই নীতির কারণে আক্রান্ত হতে যাচ্ছে এবং যুক্তরাষ্ট্রের ৮০ শতাংশ অনুষ্ঠান অনলাইন থেকে অপসারিত হতে যাচ্ছে। অনেক ভিডিও সাইট ইতোমধ্যে তাদের খানিকটা মনোযোগ জাপানি এবং দক্ষিণ কোরীয় টিভি সোপ অপেরায় মনোনিবেশ করেছে।

অনেকে নেট নাগরিকের মাঝে এই সংবাদটি ক্ষোভ এবং সমালোচনার সৃষ্টি করেছে। সিনা ওয়েবোর জরিপ অনুসারে ১২০,০০০ জন নেট নাগরিক এই আইনের বিরুদ্ধে ভোট প্রদান করেছে, যার বিপরীতে ৬,০০০ জন এর পক্ষে ভোট প্রদান করেছে।

একজন নেট নাগরিক রসিকতা করেছে

美剧首先中枪,估计接下来黑镜这种神剧也会被禁吧?然后就是日剧,情爱棒子剧,最后大家就坐在电视机看30几套电视台放杀鬼子的电视来弘扬民族精神

প্রথমে যুক্তরাষ্ট্রের অনুষ্ঠানসমূহ বিদায় নেবে, তারপর ব্লাক মিরর-এর মত [ব্রিটেনের] অনুষ্ঠানও যথারীতি সেন্সর করা হবে, এরপর জাপানের অনুষ্ঠান, প্রেমনির্ভর কোরীয় অনুষ্ঠান সেন্সর করা হবে। সবশেষ সকলকে টেলিভিশন সেটের সামনে বসে ৩০টির বেশী টিভি চ্যানেলে জাতীয় চেতনা তুলে ধরার জন্য প্রচার করা জাপানি দখলদারদের হত্যার দৃশ্য দেখতে হবে।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .