বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

আইন অনুযায়ী উগান্ডাতে সমকামি হওয়া একটি অপরাধ

Protest against Uganda anti-gay legislation

২০১২ সালের ডিসেম্বর ১০ তারিখে লন্ডনে উগান্ডার সমকামি বিরোধী আইনের প্রতি বিক্ষোভ জানাচ্ছেন জন বস্কো এবং বিসি আলিমি নামের দুই জন সক্রিয় কর্মী। ছবিঃ রিপোর্টার #২০২৯৯। কপিরাইট ডেমোটিক্স।  

উগান্ডার রাষ্ট্রপতি ইয়োয়েরি মুসেভেনি গত ২৪ জানুয়ারি, ২০১৪ তারিখে সমকামিতা-বিরোধী একটি বিতর্কিত বিলকে আইনে রুপান্তরের জন্য স্বাক্ষর করেছেন। এই আইন অনুযায়ী কিছু কিছু ক্ষেত্রে সমকামী হওয়াটা একটি শাস্তি যোগ্য অপরাধ বলে বিবেচিত হবে এবং এর জন্য যাবজ্জীবন কারাদণ্ডে দন্ডিত করা হবে।  

উগান্ডার আইনসভা গত ২০ ডিসেম্বর, ২০১৩ তারিখে সগৌরবে আইনটি পাস করেছে। এই আইনটি সমকামীদের সম্পর্কে কর্তৃপক্ষকে না জানানোর অপরাধে যে কাউকে কারাদণ্ডে দন্ডিত করতে পারবে। এই আইনের অধীনে সমকামীদের অধিকার আদায়ের জন্য ফেসবুক এবং টুইটার ব্যবহার করাকে অপরাধ বলে বিবেচনা করা হবে এবং এই অপরাধের জন্য সর্বোচ্চ সাত বছরের কারাদণ্ডে দন্ডিত করা হবে।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা এবং সারা বিশ্বজুড়ে অন্যান্য নেতৃবৃন্দ প্রেসিডেন্ট মুসেভেনিকে সতর্ক করে দিয়ে বলেছেন যে এই আইনটি মানবাধিকার লঙ্ঘন করে।

উগান্ডার এলজিবিটি সক্রিয় কর্মী বলেছেন যে এই আইনটি সমকামীদের কাছে উগান্ডাকে বিশ্বের সবচেয়ে জঘন্য দেশে পরিণত করেছে। এই বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করতে অনেকেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমকে বেছে নিয়েছেন। তাদের কেউ কেউ আইনটিকে সমর্থন জানালেও অন্যান্যরা অবিচল চিত্তে এই আইনের বিরোধীতা করেছে।

উগান্ডার লিঙ্গভিত্তিক সংখ্যালঘুদের নেতা এবং সমকামী সক্রিয় কর্মী ফ্র্যাংক মুগিশা টুইট করেছেনঃ  

আমার টুইটার এবং ফেসবুক অবৈধ হয়ে গেল। আমাকে হয় ৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হবে, নতুবা কমপক্ষে ৫ বছরের ও সর্বোচ্চ ৭ বছরের কারাদণ্ডে দন্ডিত করা হবে অথবা উভয় দণ্ডে দন্ডিত করা হবে। 

লাভওয়ানএনাদার লিখেছেনঃ 

আমেরিকা, আপনি এখন উগান্ডার উপর ঝাঁপিয়ে পরতে পারেন এবং যা খুশি তাই করতে পারেন। বিলটি এখন আইনে পরিনত হয়েছে। 

যারা আইনটির বিরুদ্ধে কথা বলছে, তাদেরকে ওয়াদ্দা মুতেবি প্রবল আঘাত করেছেনঃ 

সমকামিদেরকে ইন্ধনদাতারা জাহান্নামে যাক। সেখানে শয়তানের সাথে আনন্দ করার সময়ে আপনারা আপনাদের ফালতু মানবাধিকার নিয়ে কথা বলতে পারেন। #সমকামিবিরোধীবিল 

জেনি হেডস্ট্রম খুব সরলভাবে লিখেছেনঃ 

খুব হতাশাজনক। উগান্ডার প্রেসিডেন্ট মুসেভেনি আজ #সমকামিবিরোধীবিলটি স্বাক্ষর করেছেন।

জন পল তোরাচ লক্ষ করেছেন যে এই ইস্যুতে সরকার এবং বিরোধী দল, উভয়ই একমত হয়েছেঃ 

এমনকি সেভসের চেয়ে অনেক উচ্চস্বরে #সমকামিবিরোধীবিল স্বাক্ষর করার ক্ষেত্রে বিরোধী দলীয় রাজনীতিবিদরা একেবারে নিশ্চুপ…যেখানে তারা উভয়ই সম্মত হয়েছে…সেখানে বুঝুন যে আপনি হেরে গেছেন। 

এরিক হোয়াইট ওয়ালকার মনে করেন যে ধর্মীয় নেতারা মানুষের মাঝে নৈতিকতা সঞ্চারিত করতে ব্যর্থ হয়েছেনঃ 

যখন রাষ্ট্র আইনের মাধ্যমে নৈতিকতা বিষয়ক ব্যাপারগুলো নিয়ন্ত্রণ করা শুরু করে, তখন ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানগুলো ব্যর্থ হয়ে যায়। #সমকামিবিরোধীবিল 

“আমি একজন আফ্রিকান” বিতর্ক করে বলেছেন যে একজনের যৌনতা বিষয়ক ধারনা অন্যদের উপর চাপিয়ে দেয়া উচিৎ নয়ঃ 

#সমকামিবিরোধীবিল এর প্রতি উগান্ডার সমর্থন জানানোর বিষয়টি বুঝতে পারছি না! যৌনতা নিয়ে আপনার ধারনাকে আপনি অন্যদের উপর চাপিয়ে দিতে পারেন না। কেউ বলেনি আপনাকে সমকামী হতে হবে!  

স্টুয়ার্ট গ্রোবেলার ঠাট্টা করে বলেছেন উগান্ডাতে বিবাহ বিচ্ছেদ নিষিদ্ধ করে আইন পাস করা উচিৎ। উগান্ডার শুধুমাত্র কুমার বা কুমারীদেরকে বিবাহের নির্দেশ দেয়া উচিৎঃ 

হে উগান্ডা, #সমকামিবিরোধীবিল পাসের জন্য অভিনন্দন। আমাকে বলুন, আমরা #এন্টিডিভোর্স, #এন্টিম্যারিএননভার্জিন এবং #এন্টিব্যাকন বিল কবে নাগাদ দেখার আশা করতে পারি? 

উগান্ডার নাগরিকেরা তাদের দেশ এবং অন্যান্য দেশ, বিশেষ করে পশ্চিমা দেশগুলোর মধ্যকার সম্পর্কের কি হবে তা নিয়ে এখন বিস্মিত। কেননা পশ্চিমা দেশগুলো বিশ্বাস করে, আইনটি মৌলিক মানবাধিকার লঙ্ঘন করে থাকে। 

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .