বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

তিউনিশিয়া: কারাগার থেকে মুক্তি পেলেন ক্ষমাপ্রাপ্ত ফেসবুক ব্যবহারকারী

ফেসবুকে মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সঃ) এর কার্টুন পোস্ট করার জন্য জাবেউর মেজরি নামের একজন বন্দীকে গতকাল মুক্তি দেওয়া হয়েছে [৪,মার্চ]।

গত রাতের একটি বিবৃতিতে মেজরি তার মুক্তির জন্য ঘোষিত কমিটিকে [ফরাসী ভাষায়] সমর্থন জানিয়েছেন: 

Détenu depuis deux années pour s’être exprimé, Jabeur Mejri a été libéré.
Le premier prisonnier d’opinion de Tunisie depuis les évènements de janvier 2011, a été libéré ce soir.

নিজের মতামত প্রকাশের জন্য গত দুই বছর পর আটক থাকার পর জাবেউর মেজরি মুক্তি পেয়েছেন। ২০১১ সালের জানুয়ারী মাসের [সাবেক একনায়ক জেনি এন আবেদিন বেন আলী’র উৎখাতের পর] ঘটনার পর থেকে তিউনিশিয়ার বিবেকের প্রথম বন্দী, আজ রাতে মুক্তি পেয়েছেন। 

A #freejabeur protest in the capital Tunis on September 13, 2013

২০১৩ সালের সেপ্টেম্বর মাসে রাজধানী তিউনিশে একটি #ফ্রিজাবেউর প্রতিবাদ 

২০১২ সালের মার্চ থেকে মেজরি কারাগারে আছেন। “সরাকারি আদেশ ও নৈতিকতার ক্ষতির জন্য দায়ী”, “পাবলিক যোগাযোগ নেটওয়ার্কের মাধ্যমে অন্যদের অপমান করা”, “পাবলিক সুনীতিকে অন্যায়ভাবে আঘাত করা” কন্টেন্ট প্রকাশের জন্য তাঁকে দোষী সাব্যস্ত করে সাড়ে সাত বছর কারাদণ্ড দেওয়া হয়।  

গত ১৯ ফেব্রুয়ারি তারিখে প্রেসিডেন্ট কার্যালয় মেজরির জন্য ক্ষমা ঘোষণা করে। তবে, তার সমর্থকদের অবাক করে দিয়ে ২০১১ সালের জুলাই মাসের “তহবিল আত্মসাতের” মামলায় ৩০ বছর বয়সী মেজরিকে কারাগারে পাঠানো হয়। এই মামলায় মেজরিকে একটি রেল কোম্পানিতে কাজের সময় প্রায় ১৬০০ তিউনিশীয় দিনার মূল্যের মেট্রো টিকিট চুরির অভিযোগে অভিযুক্ত করা হয়।

তবে, ২০১৪ সালের জানুয়ারি মাসে তার ক্ষমা ঘোষণার মাত্র কয়েক সপ্তাহ আগে তাঁর বিরুদ্ধে একটি গ্রেফতারি পরওয়ানা জারি করা হয়।

তাঁর সমর্থনে গড়া কমিটি ২০১১ সালের তাঁর মামলাকে “বিচার বিভাগীয় হয়রানির” [ফরাসী ভাষায়] পুনর্জাগরণ হিসেবে অভিহিত করেছেঃ  

Si cette mise en liberté est une nouvelle de première importance, et une victoire pour l’ensemble des défenseurs de la Liberté de conscience et la liberté d’expression, le Comité de soutien restera actif tant que l’ensemble des charges retenues contre Jabeur Mejri seront maintenues, et tant que Jabeur Mejri n’aura pas été réhabilité.

Nous ne manquerons pas de communiquer et d’informer sur cette seconde affaire qui n’a eu d’autres objectifs que de maintenir Jabeur Mejri en prison en dépit de la grâce présidentielle.

এই মুক্তি যদিও বিবেক ও বাক স্বাধীনতার সব সমর্থকদের জন্য তাৎপর্যপূর্ণ এবং একটি বিজয় বার্তার প্রতিনিধিত্ব করে, তবুও জাবেউর মেজরির বিরুদ্ধে সব অভিযোগ [তহবিলের আত্মসাৎ] যতদিন না তুলে নেওয়া এবং তাঁকে পুনর্বাসিত করা না হয়, তাঁর সমর্থন কমিটি ততদিন সক্রিয় থাকবে। আমরা এই দ্বিতীয় মামলার হালনাগাদের যোগাযোগের অব্যাহত রাখব, যা মূলত রাষ্ট্রপতির ক্ষমা সত্ত্বেও তাঁকে শুধুমাত্র কারাগারে রাখার উদ্দেশ্য হিসেবে কার্যকর। 

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .