বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

মিশরঃ ফিল্ড মার্শাল আল সিসি’র জন্য এর পর কি?

মিশরের সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল আবদেল ফাত্তাহ আল সিসি এখন দেশের শীর্ষ সামরিক পদ ফিল্ড মার্শালে উন্নীত হয়েছেন। অন্তর্বর্তীকালীন প্রেসিডেন্ট আদলি মন্সুরের দেওয়া এই পদোন্নতির ঘোষণা সিসির পদ থেকে সরে দাড়ানো এবং এপ্রিলের শেষে নির্ধারিত নির্বাচনে তাঁর প্রেসিডেন্ট পদে দাঁড়ানোর পূর্বপ্রস্তুতি কিনা তা স্পষ্ট নয়।

ঘোষণাটি সামাজিক মিডিয়ায় উপহাসের সৃষ্টি করেছে।  

মিশরীয় মোহাম্মদ আল দাহশান বলেছেন [আরবি ভাষায়], সিসি’র এই পদোন্নতির একটি পরিবেশগত সুবিধা রয়েছে:  

এটা বেশ ভাল যে, সিসি এখন একজন ফিল্ড মার্শাল। আমরা মার্শাল এর শাসন উৎখাতের জন্য যে সব ব্যানার এবং স্টিকার ব্যবহার করেছিলাম তা এখন পুনরায় ব্যবহার করতে পারব। এটি পরিবেশের জন্য ভাল। 

সৌদি আরব থেকে ইসাম আল জামিল বলেছেন, এই পদোন্নতি তাকে একজন “বেদখল প্রেসিডেন্ট” হওয়ার প্রস্তাব করছে।   

আল সিসি নিজেকে ফিল্ড মার্শালে উন্নীত করেছেন। চলুন, এবার আমরা তাঁকে একজন বেদখল প্রেসিডেন্ট হিসাবে দেখার প্রত্যাশা করি।  

যদিও মিশরীয় নোহা জায়েদ অন্য ব্যথা বিবেচনা করছেন:

অনেক ব্যথা নিয়েই আমি আল্লাহ্‌র কাছে শুক্রিয়া জানাই যে, আমার ভাই মারা গেছে (এই অত্যাচারীর হাতে নিহত হয়েছে)। তাই যা ঘটছে তাঁকে তা আর দেখতে হচ্ছে না।    

আর জর্ডানের অধিবাসী মোহাম্মদ আল আবেদ কৌতুক করেছেন:

স্বয়ং এতদ্দ্বারা নিজেকে নিজেই একটি পাঁচ তারকা সংস্করণ হিসেবে ঘোষণা করছি।   

আমর হুসেন মতে, এই ঈপ্সিত পদ গ্রহণের ক্ষেত্রে সিসি পঞ্চম ব্যক্তি:  

শুধু মাত্র চার জন জেনারেল সফল মিলিটারি অভিযানের পর ফিল্ড মার্শালে উন্নীত হয়েছেন। তাঁরা হচ্ছেন, তানটায় (উপসাগরীয় যুদ্ধে) গামাসি, আবু গাজালা এবং ইসমাইল (১৯৭৩)।  

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .