বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

সিরিয়ার কার্টুনিস্ট আকরাম রাসলানকে কি হত্যা করল সিরিয়া সরকার ?

সিরিয়ার কার্টুনিস্ট আকরাম রাসলানের ভাগ্য এখনো বেশ অনিশ্চিত। সম্পাদকীয় কার্টুন অংকনের ক্ষেত্রে সাহসিকতা পুরস্কার ২০১৩ এর বিজয়ী আকরাম রাসলান। আসাদ সরকার ২০১২ সালের অক্টোবর মাসে তাকে গ্রেপ্তার করেছে। সে সময়ে কেউ কেউ রিপোর্ট করেছে, একটি দেখানো বিচারের পর আসাদ সরকার তাকে মেরে ফেলেছে। অপরদিকে অন্যান্যরা দাবি করেছে যে তিনি এখনো জীবিত আছেন।

সিরিয়ার সামরিক বাহিনী এই কার্টুনিস্টকে গ্রেপ্তার করেছে। গত ২ অক্টোবর, ২০১২ তারিখে হামাতে অবস্থিত রাষ্ট্রীয় পত্রিকা আল-ফিদার দপ্তরে থাকার সময় তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। সম্পাদকীয় কার্টুন অংকনের ক্ষেত্রে সাহসিকতার জন্য ২০১৩ সালে কার্টুনিস্টস রাইটস ইন্টারন্যাশনাল (সিআরএনআই) পুরস্কার জিতেছেন আকরাম। এই পুরস্কার জেতার পরপরেই গোপনে কোন সাক্ষী, তার প্রতিরক্ষার জন্য কোন এটর্নী, কোন আপিল ছাড়াই তাকে বিচারের মুখোমুখি করা হয়। স্বভাবতই এখানে ন্যায় বিচারের কোন আশা নেই।

আমরা জানতে পেরেছি, ২৬ জুলাই ২০১৩ তারিখে আকরাম রাসলান এবং ষড়যন্ত্রের শিকার অন্যান্য কারাবন্দীদেরকে গোপনে বিচারের আওতায় আনা হয়। এ সকল বন্দীদের মাঝে সাংবাদিক, শিল্পী, সঙ্গীত শিল্পী এবং অন্যান্য অনেক বুদ্ধিজীবী রয়েছেন। এই বিচারে তাঁদেরকে কোন সাক্ষী, প্রতিরক্ষার জন্য কোন এটর্নী এমনকি আপিল করার কোন সুযোগ দেয়া হয় নি। এখানে ন্যায়বিচারের কোন আশা নেই। অনিশ্চিত এবং যেনতেনভাবে করা এই রিপোর্ট থেকে আমরা এটাও জেনেছি যে বিচারে তাঁদেরকে দোষী সাব্যস্ত করে যাবজ্জীবন কারাদন্ডে দন্ডিত করা হয়েছে।

StJustAkram

আকরামের সমর্থনে ফ্রান্সের সেন্ট জাস্ট লে মারটেলে গত ১৫-১০-২০১৩ তারিখে বিশ্ব কার্টুনিস্টদের সমাবেশ ও প্রদর্শনী। সূত্রঃ শান্তির জন্য কার্টুন।  

কমিক বক্স রিসোর্সেস ব্লগ, শান্তির জন্য কার্টুন, দ্যা সিএজিএলই পোস্ট এবং দ্যা ডেইলী কার্টুনিস্টের মতো অন্যান্য কার্টুন ব্লগেও সিআরএনআই খবরটির উদ্ধৃতি দেয়া হয়েছে। এই ব্লগগুলোতে আকরামের পরিণতি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করা হয়েছে। এগুলোর মধ্যে একটি মন্তব্য হলঃ

আকরাম, তুমি এবং তোমার পরিবারের জন্য আমরা প্রার্থনা করেছি…আসাদ, আপনি এবং আপনার স্বজাতীয়রা…… !@#$%^&*    

১৮ অক্টোবর, ২০১৩ তারিখে রেডাক_এমএম লিখেছেনঃ সিরিয়ার শাসনতন্ত্র একজন সাহসী কার্টুনিস্টকে খুন করেছে। 

আমি অত্যন্ত দুঃখের সাথে লিখছি, কার্টুনিস্ট রাইটস নেটওয়ার্ক রিপোর্ট করেছে যে একটি দেখানো বিচারের পর সিরিয়ার শাসনতন্ত্র সিরিয়ান কার্টুনিস্ট আকরাম রাসলানকে ফাঁসি দিয়েছে। 

এ সময়ে সিরিয়ার অবজারভার আরো শক্তিশালী একটি বার্তার উদ্ধৃতি দিয়েছেঃ ভয়ংকর খবর হচ্ছেঃ সিরিয়াতে আকরাম রাসলানকে হত্যা করা হয়েছেঃ 

জালিম শাসক হয়তোবা সমালোচনা অথবা একটি গণ-অভ্যুত্থানের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করতে পারবে। এমনকি হয়তোবা খাটো মোটা মুগুড়, বুলেট এবং সন্ত্রাসের দ্বারা গুপ্ত হত্যা চালাতে পারে। কিন্তু তাঁদেরকে নিয়ে যদি জনগণ বিদ্রুপের হাসি হাসে, তবে তাদের বন্দুককে তারা কোন দিকে তাক করবে? একটি সাহসী কার্টুনের মাধ্যমে জনগণের ভয় দূর করার চেয়ে তাদের ক্ষমতায়নের জন্য আরো দক্ষ, আরো শক্তিশালী এবং আরো সাশ্রয়ী কোন উপায় কি থাকতে পারে? জনগণের ভয়কে জয় করার মাধ্যমে তাদেরকে হাসানোর আর অন্য কোন উপায় কি থাকতে পারে? 

6a014e5f5d3c7c970c01901ca08c33970b-640wi

আকরামের একটি কার্টুন, যেখানে আসাদ সরকারকে অপমান করা হয়েছে। সূত্রঃ ব্লগ কার্টুন মুভমেন্ট। 

রাইম আল্লাফ টুইটারে লিখেছেনঃ 

তোমার কলমকে কখনো ছেড়ে দিও না। আসাদ কলমকে সবচেয়ে বেশী ভয় পায়। সিরিয়া সরকার কার্টুনিস্ট আরআইপি আকরাম রাসলানকে খুন করেছে।    

আলিসার ইরাম ফেসবুকে একাত্মতা দেখিয়েছেনঃ 

আকরাম রাসলান, আপনি জীবিত থাকুন অথবা মারা যান, আমরা আপনাকে স্মরণ করবো এবং হৃদয়ে ধরে রাখবো।              

পরিশেষে একই সাথে সিরিয়ান অবজারভার দুঃখ বোধ করছে এবং আশা প্রকাশ করেছেঃ 

আমি দুঃখিত যে আমি সেই গর্তে পৌছাতে পারিনি এবং আপনাদেরকে আকরামকে সেই গর্ত থেকে টেনে টেনে বের করে আনতে দিতে পারিনি। দয়া করে আমাকে ক্ষমা করবেন। সম্ভবত আপনাদের এই আত্মত্যাগ আমাদেরকে আবার আয়নাতে খুঁজে বের করতে অনুপ্রাণিত করবে। সেই আয়নাতে দেখলে সেটি আবার জিজ্ঞাসা করবে আমরা কোথায় ভয় এবং সাহসের মাঝে দু’পা ফাঁক করে একটি সীমারেখা টানবো। নূতন করে একটি প্রথম পদক্ষেপ নিতে আমাদেরকে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিবে। 

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .