বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

ছবি: ল্যাটিন আমেরিকার মানুষেরা

"She laughed, laughed and laughed while she waited for interprovincial transportation. Tiraque - Cochabamba". Photo by Mijhail Calle for Humans of Bolivia.

“তিরকে, কোচাকম্বায়, আন্তপ্রদেশ পরিবহনের জন্য অপেক্ষার সময় মেয়েটি কেবল হাসছিল, আর হাসছিল”। ছবি হিউম্যানস অফ বলিভিয়ার মিজ হালিকালের। অনুমতিক্রমে প্রকাশিত।

ফটোগ্রাফার ব্রান্ডন স্ট্যানটন-এর ব্লগ হিউম্যানস অফ নিউ ইয়র্ক ;(হোনি)-এর দ্বারা অনুপ্রাণিত হয়ে, পেশাদার এবং অপেশাদার ফটোগ্রাফাররা এ্যাক্রোস দি ওয়ার্ল্ড ব্লগ এবং ফেসবুকের পাতা তৈরী করেছে, যেখানে তারা জীবনের সকল প্রান্তের ছবি এবং গল্প সংগ্রহ করেছে-আর ল্যাটিন আমেরিকা এই ক্ষেত্রে ব্যতিক্রম নয়।

স্টানটন-এর চিন্তা ল্যাটিন আমেরিকার ফটোগ্রাফারদের অনুপ্রাণিত করেছে, যারা বৈচিত্র্যময় জনতার চিত্র দিয়ে তাদের দেশ অথবা শহরকে ছবিতে সাজাতে চায়।

এটি এই অঞ্চলে কয়েকটি “হিউম্যানস অফ …” প্রকল্পের এক বিস্তারিত সারসংক্ষেপ।

বুয়েনোস আয়ার্সের মানুষেরা

"He lives on the street with a friend. They have 2 mattresses, a couch and 3 chairs (one for guests). He invited me to sit down besides him, after some minutes chatting." Photo by, Shared on Facebook and used with permission.

” যখন চাও, আসো এবং আমাকে দেখে যাও। আমি দুঃখিত যে আমি তোমাকে মাতে [স্থানীয় পানীয়] দিতে পারব না, কারণ পানি গরম করার জন্য আমার কোন জায়গা নেই; ছবি জিমেনা মিজরাহির, অনুমতিক্রমে প্রকাশিত

ফ্রিল্যান্স ফটোগ্রাফার জিমেনারাহি, মে ২০১২-এ হিউম্যানস অফ বুয়েন্স আইরেস শুরু করেন, এবং ভদ্রমহিলার পাতা ১১,০০০ লাইক অর্জন করেছে।

তার পরিকল্পনা নগরের কর্মকর্তাদেরও দৃষ্টি আকর্ষণ করেছে, যার ফলাফল হচ্ছে প্রথম হিউম্যানস অফ বুয়েন্স এইরিস প্রদর্শনীর আয়োজন দি আর্জেন্টিনা ইন্ডিপেন্ডেনস সংবাদ প্রদান করেছে যে ” এই প্রদর্শনীর ‘মাইক্রো হিস্টোরিয়াস ডেল মাইক্রোসেন্ত্রো’ বিভাগ সেই সমস্ত ব্যক্তির ছবি প্রদর্শন করে যারা শহরের কেন্দ্রীয় ব্যাবসায়িক এলাকায় বাস অথবা কাজ করে”।

দি আর্জেন্টিনা ইন্ডিপেন্ডেন্টকে, জিমেনা বলেন যে হিউম্যানস অফ বুয়েন্স এইরেস-এর কাজে যুক্ত হয়েছেন কারণ কেবল মানুষের সাথে সম্পৃক্ত হতে ভালোবাসেন তা নয়, একই সাথে এই ধরনের যোগাযোগ তৈরী হওয়া একটা শিক্ষা। প্রত্যেকটি ব্যক্তি আসলে একটা বিশ্ব”।

"-I can't believe it! A woman cab driver! -Of course, do you think that women can't be taxi drivers? It's time to stop being surprised when women do things that aren't common for their gender, there ain't things for men or women." Photo by Jimena Mizrahi, used with permission.

“- আমি নিজের চোখকে বিশ্বাস করতে পারছিলাম না। একজন নারী ট্যাক্সি চালক !
- অবশ্যই, আপনি কি মনে করেন যে মেয়েরা ট্যাক্সি ড্রাইভার হতে পারে না? এখন সময় এসেছে সেই সমস্ত বিষয়ে বিস্মিত না হওয়া যখন এটা নারীদের জন্য স্বাভাবিক কাজ না, পুরুষ বা নারীর জন্য বলে কিছু নেই”।
ছবি জিমেনা মিজরাহি, অনুমতিক্রমে প্রকাশিত

কলম্বিয়া আর বোগোটার মানুষেরা।

"A Wayuu girl, daughter of a restaurant owner in Uribia. We got a delicious sancocho for 3500 pesos in their restaurant after a successful hitch on the top of a water truck on our way back from Cabo de la Vela." Photo by Gábor Szentpétery, used with permission.

” এক ওয়েউউ বালিকা, উরবিয়ার এক রেস্তোরাঁ মালিকের কন্যা।”
ছবি গাবর সেজনটপেট্রেই-এর, অনুমতিক্রমে প্রকাশিত।

ডিজাইনার মাউরেন্ট রোয়া এবং স্থপতি গাবর সেজনটপেট্রেই হিউম্যানস অফ কলম্বিয়ার তৈরী করেছে। তাদের এক ভ্রমণের সময় এই জুটির মাউরিচিয় রোমেরোর সাথে সাক্ষাৎ ঘটে, যে এই প্রকল্পে যোগ দেয় এবং এতে কয়েকটি ছবি প্রদান করে। যখন ভ্রমণ করছিল, তখন তারা খেয়াল করে যে তারা কলম্বিয়া সম্বন্ধে তেমন একটা জানে না অথবা দেশটি সম্বন্ধে তাদের নেতিবাচক ধারনা রয়েছে; তাদের উদ্দেশ্য এই প্রকল্পের মাধ্যমে তারা কলম্বিয়ার ভিন্ন এক দিক প্রদর্শন করা। মুউরেন্ত ব্যাখ্যা করেন, “চিন্তাটি হচ্ছে তার জনতার মাধ্যমে কলম্বিয়াকে উপস্থাপন করা কারণ দেশটির জাতিগত বৈচিত্র্য অসাধারণ। দেশটি আমেরোইন্ডিয়ান, স্প্যানিশ এবং আফ্রিকার বংশোদ্ভুত নাগরিকদের মিশ্রণে গড়ে উঠেছে, আর এটাই আমরা বিশ্বকে দেখাতে চাই”।

"Carmen Lorena grew up on a coffee plantation estate about three hours from Bogotá but she thinks the city-life is not for her, she prefers the countryside where she will stay after finishing her studies."  Photo by Mauricio Romero., used with permission.

” কারমেন লোরেনা বেড়ে উঠেছে বোগোটা থেকে তিন ঘণ্টার দূরত্বে অবস্থিত এক কফি চাষের প্রদেশে, কিন্তু সে মনে করে শহুরে জীবন তার জন্য নয়, সে ঠিক করেছে শিক্ষা জীবন শেষে সে গ্রামে বাস করবে”
ছবি মউরিচিয়ো রোমেরো, অনুমতিক্রমে প্রকাশিত।

"What is your perception of love, and your favorite way to love?" -"I think that love is everything, it makes up everything that surrounds us and I'd say that my favorite way to love is...breathing".  Photo by, used with permission.

“ভালোবাসা সম্বন্ধে আপনার ধারনা কি, আর ভালোবাসার ক্ষেত্রে আপনার প্রিয় মাধ্যম?”
-” আমি মনে করি যে ভালবাসাই সব, এটা আমাদের ঘিরে থাকা চারপাশের সবকিছুকে তৈরী করে আর আমি বলতে চাই, আমার ভালোবাসার প্রিয় উপায় হচ্ছে… শ্বাসগ্রহণ “।
ছবি জন কার্ডোনার-এর, অনুমতিক্রমে প্রকাশিত

কলম্বিয়ার আরো ছবির জন্য হিউম্যানস অফ বোগোটা পাতাটি আপনি দেখতে পারেন, আগস্ট ২০১৩-এ, এই পাতাটি তৈরী করেছেন জন কার্ডোনা এবং জোনাথান আরেভালো।

জন এবং জোনাথন যে সাড়া পেয়েছেন এবং ঘটনাক্রমে যে সকল নতুন মানুষের দেখা পেয়েছেন ও গল্প শুনতে পেরেছেন, তা তারা তাদের পাতার মাধ্যমে বিশ্বকে দেখাতে পেরেছেন, এসবের দ্বারা দুজনে অনুপ্রাণিত। তারা বলছে যে এই কাজ “আমাদের প্রদর্শন করছে যে কিভাবে আমরা সকলে কোন একজন চিহ্নিত করতে পারি, তা সে যতদুরেই থাকুক না কেন”?

"One wish? -Safety in all of Bogotá. -Equality -Tranquillity and peace"

“ইচ্ছে একটাই?
-বোগটার সকলের নিরাপত্তা।
-সাম্য
-প্রশান্তি এবং শান্তি”
ছবি জন কার্ডোনার-এর, অনুমতিক্রমে প্রকাশিত।

বলিভিয়ার মানুষেরা

"In Sipe Sipe - Cochabamba, the man said 'take this abroad'. Then he began playing his charango." Photo by Mijhail Calle, used with permission.

“কোচাবাম্বার সিপে সইপে এলাকায়-মানুষটি বলল ‘এটা বিদেশে নিয়ে যাও’।এরপর সে তার চারাঙ্গো নিয়ে খেলতে শুরু করল”।
ছবি মিজহিল কালের, অনুমতিক্রমে প্রকাশিত।

৩ নভেম্বর,২০১৩ তারিখে, হিউম্যানস অফ বলিভিয়ার জন্ম, যা এই অঞ্চলে নিউইয়র্কের মানুষের প্রতিচ্ছবির অন্যতম এক নতুন ফেসবুক পাতা। নিউইয়র্ক এবং একই ধরনের প্রকল্প হিউম্যানস অফ আমস্ট্রাডাম-এর মত, এখানে “ব্যক্তির নিজস্ব কাহিনীর মাধ্যমে যে মানবিক অনুভূতির গঠিত হয়” এস্টেলি পুয়েনেটে এবং মিজহেইল কালে তার সমান উপলব্ধি সৃষ্টি করতে চেয়েছেন।

যদিও মিজহেইল নিজে বেশীর ভাগ ছবি তোলেন, তারপরেও তারা অন্য ফোটগ্রাফারদের কাছে যান যারা বলিভিয়ার ভিন্ন এলাকার ছবি প্রদর্শন করতে পারে। এস্টেলি ব্যাখ্যা করেছে “এই বৈচিত্র্যতা আমাদের পরিচয় বিনির্মাণে ছবি এবং ফোটগ্রাফির ভূমিকা নিয়ে আলোচনা এবং তা প্রদর্শনের জন্য একটা জায়গা তৈরীর সুযোগ করে দেয়। আমরা চাই এটা আমাদের প্রতিচ্ছবির একটা কারণ হয়ে দাড়াক।

"There are not many amauta women, it's hard to be one, but I am. Now I'm part of the union". Photo by Mijhail Calle, used with permission.

” তেমন একটা একটা আমাউতা নারী আর অবশিষ্ট নেই, তাদের একজন হওয়া খুব কঠিন। কিন্তু আমি তাই। এখন আমি ইউনিয়নের অংশ।”.
ছবি মিজহেইল কালে, অনুমতিক্রমে প্রকাশিত।

হন্ডুরাসের মানুষেরা

 "My biggest desire is for politicians to turn a blind eye to the colors of their parties, and for their focus to be solely on the betterment and unity of their country. This is the only way in which Honduras will be able to move forward." Photo by Claudia, used with permission.

” রাজনীতিবিদদের কাছে আমার সবচেয়ে বড় চাওয়া হচ্ছে নিজ দলের কর্মকাণ্ডের প্রতি অন্ধ না থাকা, এবং তাদের মনোযোগ প্রদান করা উচিত কেবলমাত্র দেশের উন্নতি এবং একতার দিকে। কেবল এইভাবে হন্ডুরাস সামনের দিকে এগিয়ে যেতে সক্ষম।”
ছবি ক্লদিয়ার, অনুমতিক্রমে প্রকাশিত

ক্লাদিয়া এলভির এবং ড্যানিয়েলা মেইজা তাদের ফেসবুকের পাতা হিউম্যানস অফ হন্ডুরাসের -এ তার নাগরিকদের মাধ্যমে হন্ডুরাসকে জানার জন্য আহ্বান জানাচ্ছে”। .

ক্লাউদিয়া, স্টান্টোনের ব্লগ এবং কি ভাবে সে কেবল শুধু “মনোমুগ্ধকর ছবি তুলেনি, সাথে প্রতিটি ছবিকে সে মানুষ তুলে আনার কাজে ব্যবহার করেছে এবং কি ভাবে প্রতিটি ছবি একটি গল্প বলছে যা একজন পাঠকের হৃদয়ে অনুরণন সৃষ্টি করে, তা অনুসরণ করা শুরু করে।”

তার বন্ধু ড্যানিয়েল সাক্ষাৎকার পরিচালনা করে। ক্লদিয়া এবং ড্যানিয়েল চায় হন্ডুরাসে যে সহিংসতা চলছে এবং বিশ্বের দেশটির যে নেতিবাচক ভাবমূর্তি রয়েছে তা পাল্টাতে, এবং একই সাথে হন্ডুরাসের নাগরিকরা যে নিজের দেশকে দেখে তা তারা বদলে দিতে চায়।

এই সমস্ত ছবি এবং সাক্ষাৎকারের মাধ্যমে ক্লাউদিয়া এবং ড্যানিয়েলের আশা, এর মাধ্যমে তারা প্রদর্শন করবে যে হন্ডুরাস হচ্ছে এমন একটা দেশ “ কঠোর পরিশ্রমী নাগরিকে পরিপূর্ণ, এখানকার নাগরিকরা বিশ্বের আর সব দেশের নাগরিকদের মতই স্বপ্ন দেখে, তারা উচ্চাকাঙ্ক্ষী, আনন্দে এবং দুঃখে ভাসে”।

"I asked him to smile and very amiably he said, 'I would like to, but in this job you have to be serious.' and with that he demonstrated how appearances are deceiving." Photo by Daniela, used with permission.

” আমি তাকে বললাম হাসো আর সে খুব আন্তরিকতার সাথে বলল, “আমি এই কাজটি করতে চাই, কিন্তু এই কাজে আপনাকে অত্যন্ত মনোযোগী হতে হবে’ এবং এর মাধ্যমে সে দেখাচ্ছে কি ভাবে দৃশ্যমান বিষয় বিভ্রান্তির সৃষ্টি করে”
ছবি ক্লাউদিয়ার, অনুমতিক্রমে প্রকাশিত

গুয়াতেমালার মানুষের

"Slow but steady! Yes, it´s a long way to go but I will make it." Photo by Elmer Alvarez, used with permission.

“ধীর কিন্তু দৃঢ়! হ্যাঁ,লম্বা এক পথ পাড়ি দেওয়ার আছে, কিন্তু আমি তা সম্ভব করব”।
ছবি এলমার আলভারেজ, ছবি অনুমতিক্রমে প্রকাশিত।

সেপ্টেম্বর ২০১৩-এ হিউম্যানস অফ গুয়াতেমালা নামক ফেসবুকের পাতা শুরু করার আগে এলমার আলভারেজ গুয়াতেমালার বিভিন্ন এলাকার মানুষের ছবি তোলা শুরু করেন। ওয়েন্ডি ডেল আগুলিয়া , এখন যিনি শিরোনাম লিখছেন তিনি এলমারকে হিউম্যানস অফ নিউইয়র্ক সম্বন্ধে জানান, আর এতে সে গুয়াতেমালা সম্বন্ধে একই ধরনের একটা পাতা তৈরীতে উৎসাহিত হয়।

এলমার এবং ওয়েন্ডি অসাধারণ জনতার স্বতঃস্ফুর্ত মূহূর্ত যা তাদের হাসি, ধৈর্য্য, কৌতূহল, কঠোর পরিশ্রম, লজ্জা, দয়া এবং সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হচ্ছে তাদের স্বতন্ত্র বৈশিষ্ট্য, তা অনুসন্ধান করছে !”

La Teacher-"Let Your Smile Change The World", photo by Elmer Alvarez, used with permission

শিক্ষক-” তোমার হাসিতে বিশ্বকে বদলে দাও”
ছবি এলমার আলভারেজ-এর, অনুমতিক্রমে প্রকাশিত

আরো “হিউম্যানস অফ…” প্রকল্প

"Every morning Don Pedro opens his taqueria in this small village for 2 years. He has the usual clients and he gives out free tacos to all the minibus drivers who stop their minibus near his stand. " Photo by Humans of Mexico, used with permission

” গত দুই বছর ধরে এই ছোট্ট গ্রামে ডন পেড্রো প্রতিদিন সকালে তার টাকুয়েরা খোলে। তার নিয়মিত খদ্দেররা আসে আর যে সকল মিনিবাস চালক তার এখানে বাস থামায় তাদের সকলকে সে বিনে পয়সায় টাকোস খাওয়ায়। “
ছবি হিউম্যানস অফ মেক্সিকোর, অনুমতিক্রমে প্রকাশিত

উপরের ছবিটি নেওয়া হয়েছে হিউম্যানস অফ মেক্সিকো পাতা থেকে, যা মার্চ ২০১০ তৈরী করা হয়। একই সাথে মেক্সিকোতে তৈরী করা হিউম্যানস অফ মেক্সিকো সিটি নামক পাতা “একেবারে একটি রাস্তার দৃশ্যের মাধ্যমে মেক্সিকো সিটির ছবি শুমারী” তৈরীর অনুসন্ধান করছে।

জুলাই ২০১৩-এ হিউম্যানস অফ কোস্টারিকা , নামক একটি পাতা সৃষ্টি করা হয়, যার এখন লাইকের সংখ্যা ১,৭০০ টি।

ব্রাজিলে, হিউম্যানস অফ রিও ডে জেনেইরো নামক ফেসবুক পাতা এই অঞ্চলে সবচেয়ে জনপ্রিয় যেটিতে প্রায় ৯,০০০-এর বেশী লাইক পড়েছে।
হিউম্যানস অফ নিকারাগুয়া, হিউম্যান অফ পানামা, এবং চিলির, হিউম্যানস অফ সান্টিয়াগো- কন্ট্রিবিউটরদের আহ্বান জানায়, যেন তারা এই প্রজেক্টের জন্য ছবি প্রদান করে। অন্যরা যেমন হিউম্যানস অফ কুইটো, হিউম্যানস অফ লিমা, হিউম্যান অফ পেরু, এবং হিউম্যানস অফ আসুনসিওন- এক মাসের কম সময়ের মধ্যে তৈরী করা হয়েছে .

আমরা কি দক্ষিণ কিংবা মধ্যে আমেরিকার কোন হিউম্যানস অফ… প্রকল্প বাদ দিয়েছি? মন্তব্যের মাধ্যমে আমাদের বিষয়টি জানান!

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .