বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

পাকিস্তানের বেলুচিস্তানে নিখোঁজ লোকদের জন্য ৭০০ কিলোমিটার হাঁটা কর্মসূচী

পাকিস্তানের বৃহত্তমদরিদ্রতম প্রদেশ বেলুচিস্তানে গত নয় বছরের বিচ্ছিন্নতাবাদের যুদ্ধে একটি রক্তাক্ত ইতিহাস তৈরি হয়েছে, যেখানে দুই হাজারেরও বেশি বেসামরিক লোকের পাশাপাশি প্রায় ৭০০ নিরাপত্তা বাহিনী এবং ৫০০ যোদ্ধা প্রান হারিয়েছেন। কিন্তু হত্যাকাণ্ডের তুলনায় প্রদেশের জনগণ আরও যে ব্যাপারটিতে জর্জরিত হয়েছে তা হচ্ছে – এই সময়ের মধ্যে হাজার হাজার বালুচ কোনো ব্যাখ্যা ছাড়াই উধাও হয়ে গেছে। 

#VBMPLongMarch Screenshot from Video by International Voice for Baloch Missing Persons

#ভিবিএমপিএললংমার্চ। ইন্টারন্যাশনাল ভয়েস ফর বেলুচ মিসিং পার্সনের ভিডিও স্ক্রিনশট

অপহরণের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানাতে গত ২৭ অক্টোবর ২০১৩ তারিখে ২০ জনের একটি দল বেলুচিস্তানের রাজধানী শহর কোয়েটা থেকে সিন্ধের রাজধানী করাচী পর্যন্ত প্রায় ৭০০ কিলোমিটার হাঁটার একটি কর্মসূচীতে অংশ নিয়েছে। দলটির সদস্যদের বেশিরভাগই মহিলা। এই লং মার্চ কর্মসূচীতে অংশগ্রহণকারীরা নিখোঁজ বেলুচ ব্যক্তিদের কণ্ঠস্বর (ভিবিএমপি) নামক সংস্থাটির একটি অংশ। সংস্থাটি গত সাড়ে তিন বছর (জিভি কলাম দেখুন) যাবৎ কোয়েটাতে একটি শিবির চালাচ্ছে। মার্চের শেষে শিবিরটি করাচীতে সরিয়ে নেয়া হবে।

প্রতিবাদকারীরা সকাল ছয়টা থেকে সন্ধ্যা ছয়টা পর্যন্ত পায়ে হেঁটে তাঁদের নির্দিষ্ট গন্তব্যে পৌঁছাবেন। অংশগ্রহণকারীরা আবেগপ্রবণ অভিযোগ লেখা প্ল্যাকার্ড এবং স্লোগান লেখা ব্যানার বহন করছেন। ব্যানারে লেখা স্লোগানগুলো ছিল, “বেলুচ রাজনৈতিক কর্মীদের হত্যা করা বন্ধ করুন” এবং “আমরা বিচার-বহির্ভূত হত্যার নিন্দা জানাই”।

নিখোঁজ বেলুচ ব্যক্তিদের জন্য আন্তর্জাতিক কণ্ঠস্বরের (আইভিবিএমপি) মতে, ২০০১ সাল থেকে ২০১৩ সাল পর্যন্ত কমপক্ষে ১৮ হাজার বেলুচ লোককে অপহরণ করা হয়েছে। সেসব অপহৃত লোকদের অবস্থান এখনও অজানা। প্রতিবাদ শিবিরটি যেখানে অবস্থিত, অর্থাৎ কোয়েটা প্রেসক্লাবে কর্মসূচী শুরু করার আগে একটি প্রেস কনফারেন্সের সময়ে সদস্যরা বলেন, “ভিবিএমপি সদস্যদের কিছু প্রিয়জনসহ কয়েক হাজার বেলুচ লোক বর্তমানে নির্যাতন সেলে আধমরা হয়ে আছে এবং তাঁদের হেফাজতে থাকা অবস্থায় কয়েকশ লোককে হত্যা করা হয়েছে”। 

একই কনফারেন্সে ভিবিএমপি সতর্ক করেছে যে, যদি করাচি যাওয়ার পথে তাঁদের প্রতি কোন বিরূপ আচরণ করা হয়, তবে তাঁর জন্য তাঁরা প্রাদেশিক সরকারকে দায়ী করবেন।

বেলুচ স্বতন্ত্রবাদী আন্দোলন এবং সরকারের মধ্যকার সম্পর্ক বেশ শীতল। বেলুচিস্তান সরকারের মুখ্যমন্ত্রী ডঃ মালিক বেলুচ সাম্প্রতিক সময়ে ঘোষণা করেছেন যে, যেকোন ভাবেই হোক, বিদ্রোহ এবং ক্রমবর্ধমান সাম্প্রদায়িক আক্রমণের কারনে বেলুচিস্তানে বিরাজমান অস্থিরতার অবসান ঘটানোর উপায় নিয়ে আলোচনা করতে একটি বহুদলীয় কনফারেন্সের আহ্বান জানানো হবে। যদিও প্রতিরোধকারী বেলুচ দল সরকারের সাথে সংলাপে বসতে অস্বীকৃতি জানিয়েছে। এই উদ্যোগকে তাঁরা বেলুচ সংগ্রামকে ক্ষতিগ্রস্ত করার একটি ষড়যন্ত্র হিসেবে দেখছে।

সক্রিয় কর্মীরা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে হাঁটা কর্মসূচির প্রতি সমর্থন জানিয়েছে। সিন্ধি জাতীয়তাবাদী সংস্থা, জিয়া সিন্ধ মুত্তাহিদা মাহাজ (জেএসএমএম) লিখেছেঃ

#জেএসএমএম, #ভিবিএমপিলংমার্চ এর জন্য সমর্থন ঘোষণা করেছে। #জেএসএমএমের চেয়ারম্যান বলেছেন, সক্রিয় কর্মীরা মামা কাদির বেলুচকে করাচীতে স্বাগতম জানাবে।     

#ভিবিএমপিলংমার্চ হ্যাশট্যাগটির অধীনে ব্যবহারকারীরা মন্তব্য করেছেনঃ

শত শত মাইল রাস্তা, হাজার হাজার লোক, কয়েক লক্ষেরও বেশী ব্যাথা ও মৃত্যুযন্ত্রণার গল্প। মানবতা এবং বিচারের জন্য #ভিবিএমপিলংমার্চ কে সমর্থন করুন। 

সাংবাদিকতার ছাত্র এবং মানবাধিকার সক্রিয় কর্মী ফায়েজ এম বেলুচ (@ফায়েজএমবেলুচ) একজন অংশগ্রহণকারীর একটি ছবি টুইট করেছেনঃ

শহীদ জলিল রেকির ছেলেও #ভিবিএমপিলংমার্চে অংশগ্রহণ করেছেন। তিনি জানতে চান, তাঁর বাবাকে কারা হত্যা করেছে ?

গাফফার বেলুচ (@আলহান_) পাঠকদের নিজেদেরকে নির্যাতিতদের পরিবারের জুতার ভেতরে রাখতে বলেছেনঃ 

শুধুমাত্র নিজের কথাই চিন্তা করুন! যখন আপনার সবচেয়ে প্রিয় একজন নিখোঁজ হয়ে যায় এবং আপনি তাঁর কোন খবরই জানতে পারেন না, তখন আপনার কেমন লাগে? #ভিবিএমপিলংমার্চকে সমর্থন করুন

সাংবাদিক বরিওয়াল কাকার (@বরিওয়ালকাকার) খবরটি ছড়িয়ে দিয়েছেনঃ  

#পাকিস্তানের #পাঞ্জাবিরা #কাশ্মীরের স্বাধীনতার জন্য র‍্যালী করছে। বেলুচরা তাঁদের হাজার হাজার নিখোঁজ প্রিয়জনদের উদ্ধারের জন্য হাঁটা কর্মসূচী পালন করছে। #ভিবিএমপিলংমার্চ

৩০ অক্টোবর, ২০১৩ তারিখে হাঁটা কর্মসূচীর চতুর্থ দিনে প্রতিবাদকারীরা বেলুচিস্তানের কালাট জেলার মঙ্গুচর এলাকায় পৌঁছেছে। হামদান বেলুচ (@হামদানবেলুচ) রিপোর্ট করেছেনঃ

নিখোঁজ বেলুচ ব্যক্তিদের কণ্ঠস্বরের লং মার্চটি ৪র্থ দিনে মঙ্গুচরে পৌঁছেছে।

ব্রামশ নিউজ মিডিয়ার ফেসবুক পেজটি দয়া করে অনুসরণ করুন। লং মার্চের সমসাময়িক আপডেট জানতে টুইটারে #ভিবিএমপিলংমার্চ হ্যাশট্যাগটি অনুসরণ করুন।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .