বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

সিরিয়ার চিত্রকলার দৃশ্যে ঈদের প্রতিচ্ছবি

সিরিয়ার উঠতি প্রতিভা এবং স্বতন্ত্র কণ্ঠ ঈদ উল আযহা সম্পর্কে তাদের মতামত ভাগাভাগি করেছেন। সেখানে ব্যাপক ধ্বংসযজ্ঞের কারণে হতাহত এবং উদ্বাস্তুদের সংখ্যা অবিরত বেড়ে যাওয়াই তাঁরা এই উত্সব উদযাপন করতেও অস্বীকৃতি জানিয়েছেন।

অন্য দিকে, সঙ্গীতজ্ঞ অয়ায়েল আল্কাক তার সর্বশেষ ট্র্যাক “ঈদের গান” এ সিরিয়ার ঐতিহ্যগত ফোক গানের পরীক্ষা চালিয়েছেন, যা তাম্মাম আজামের “বিদেশ যাত্রা” শিল্পকর্ম দ্বারা অনুপ্রাণিত।

গানটিতে একটি লাইন বার বার এসেছে। আমরা যেভাবে চলি সেটি তাঁর উপর ভিত্তি করে তৈরি। এর অনুবাদ নিম্নরুপঃ

কেউ কাউকে প্রতিরোধ করতে পারে না
কারণ, সবাই দুঃখী।
কেউ কাউকে প্রতিরোধ করতে পারে না
কারণ সবাই হারিয়েছে (২ বার)।

কেউ কাউকে প্রতিরোধ করা ছেড়ে দিবে না
সবাই হারিয়েছে এই বিবেচনায়।
কেউ কাউকে প্রতিরোধ করা ছেড়ে দিবে না

সবাই পলাতক এই বিবেচনায়।

গানের এই ট্র্যাকটিতে ঈদের প্রতি সাধারণের নিস্পৃহ মনোভাব প্রতিফলিত হয়েছে এবং কীভাবে সিরিয়ার জনগণ ধৈর্য ধারণ করছে তা ফুটে উঠেছে। যাইহোক, আল্কাক এর গান অন্যান্য সিরিয় শিল্পীদের গাওয়া গানের ধাঁচে তৈরি। নীচে কয়েকটি উদাহরণ দেওয়া হল:

Done by Maher A. Husn. It reads, "We do not want your Eid."

মাহের এ হুসানের আঁকা। সেখানে লিখা আছে,”আমরা আপনার ঈদ করতে চাই না।” 

অয়াজদি সালেহের আঁকা। শিরোনাম,”যেখানে আমাদের শিশুরা শহিদ হয়েছে, সেখানে কোন ঈদ নয়”।   

Rising artist Sedki Al Imam approaches Eid with jest

উঠতি শিল্পী সেদকি আল ইমাম ঠাট্টার সঙ্গে ঈদ দেখিয়েছেন।

Caricature by Husam al-Saadi shows Bashar Assad butchering Syria's map as though it were an Eid sacrifice.

হুসাম আল সাদি একটি ক্যরিকেচার এঁকেছেন যেখানে দেখা যাচ্ছে, বাশার আল আসাদ সিরিয়ার মানচিত্রকে জবাই করছেন।  

Suzan Yaseen paints "The Martyr and the Eid Dress."

সুজান ইয়াসিন এঁকেছেন, “শহীদ এবং ঈদের পোশাক।”

মোহাম্মদ হামাই সিরিয়ার ঈদকে একটি রক্তাক্ত উপহার হিসেবে বর্ণনা করেছেন।

অন্যান্য শিল্পীরা বিরোধের মানবিক দিক মোকাবেলা করেছেন এবং উদ্বাস্তুদের দিকে নজর দিয়েছেন:

Hani Abbas sketches a Ferris wheel with refugee tents

হানি আব্বাস উদ্বাস্তু শিবিরের সাথে একটি বড় নগরদোলা এঁকেছেন।

কাফ্রানবেলের অধিবাসীদের মন্তব্য ছাড়া সিরিয়ার শিল্প কলার দৃশ্যগুলো যেন মূল্যহীন। টুইটার ব্যবহারকারী রাকান তাদের সর্বশেষ পোস্টারটি টুইট করেছেন:

#সিরিয়া থেকে ঈদ মুবারক 

যাইহোক, এই ধরনের শিল্পে একটি অন্তর্নিহিত বার্তা রয়েছে। আর তা হচ্ছেঃ সিরিয়ার বেঁচে থাকা জনগণ কষ্টে আছে এবং তাঁদের সাহায্য প্রয়োজন। বিশিষ্ট লেখক আমাল হান্নানো এই ভয়ানক বাস্তবতার ব্যাখ্যা দিয়েছেন, সিরিয়ার মানুষ খুবই সহিষ্ণু। উদাহরণস্বরূপ মাংস, অনেকের জন্য তা কেনা খুবই ব্যয়বহুল হয়ে উঠেছে।  

এই বছর #সিরিয়ার অনেকে ঈদের জন্য পশু কোরবানি দিতে পারেন নি। লক্ষাধিক মানুষের কাছে মাংস এখন একটি স্বপ্নের পণ্যে পরিণত হয়েছে। 

নকশার মাধ্যমে শিল্প তৈরির মধ্য দিয়ে সিরিয়া বিপ্লবের মাল্টিমিডিয়া টিম সে সব মানুষের কাছে একটি কারণ জানতে চেয়েছে, যারা সিরিয়ার জন্য তাদের ঈদ কোরবানির করেছে:

Done by the Syrian Revolution Multimedia Team, who are urging people to send their Eid sacrifice to Syria. The sheep says, "Send me to Syria they need me more there."

সিরিয় বিপ্লব মাল্টিমিডিয়া দলের কাজ, যারা সিরিয়ায় তাঁদের ঈদ আত্তহুতি পাঠানোর জন্য মানুষের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে। ভেড়াটি বলছে, আমাকে সিরিয়ায় পাঠাও। সেখানে আমাকে তাঁদের বেশি প্রয়োজন। 

এমনকি প্রবাসী যারা ​​সিরিয়ার বেদনা অনুভব করেন, তাঁরাও খুব কম উদযাপন করেছেন। ওমর কুপ্তান যেমনটি ব্যাখ্যা করেছেনঃ

আপনি ঈদের জন্য কাপড় কিনতে এমনকি ঈদের সময় যেরকম অনুভূতি আসে তা কিছুতেই পাবেন না, যখন আপনার দেশ কোনোমতে বেঁচে আছে। #সিরিয়া 

অন্যরা দূরত্বকে ভয় করছেনঃ 

বাড়ি থেকে দূরে আরেকটি ঈদ। #সিরিয়া

যাইহোক, হতাশাপীড়িত ব্যক্তি এবং বাস্তববাদীদের মধ্যে থেকে সুন্দর লেখনী এবং উজ্জ্বল রঙে রাঙানো সিরিয়ার জন্য একটি মঙ্গলকামী ঈদ কামনা করা হয়েছে। যদিও, বলার অপেক্ষা রাখে না যে এটিকেও উপেক্ষা করা হবেঃ 

By Abdo Meknas

আব্দো মেকনাসের আঁকা 

এবং এটাও উপেক্ষা করা হবে।


এই পোস্টে ব্যবহৃত ছবিগুলোর সত্ত্ব তাদের নিজ নিজ মালিকদের। সবগুলো অনুমতিক্রমে ব্যবহৃত।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .