বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

প্যারাগুয়ের নব নির্বাচিত রাষ্ট্রপতির শপথ গ্রহণ

হোরাসিও কার্টেস [স্প্যানিশ ভাষায়], একজন ব্যবসায়ী এবং লিবার্টেড ফুটবল ক্লাবের প্রাক্তন কোচ, তিনি বিদেশী রাষ্ট্রপতি ও অন্যান্য আন্তর্জাতিক সংস্থার প্রধান, প্রাক্তন প্রতিনিধি এবং এমনকি আন্তর্জাতিক বিভিন্ন ফুটবল ক্লাবের মালিকদের সামনে রাষ্ট্রপ্রতির দায়িত্বভার গ্রহণ করেন।

হোয় নিউজ সাইটের ছবিব্লগ রাষ্ট্রপতির দায়িত্ব হস্তান্তরের ছবি প্রকাশ করেছে [স্প্যানিশ ভাষায়], যে সব ছবি তুলেছে প্রখ্যাত ব্লগার এবং ফটোগ্রাফার তেতসু এস পোজিতো [স্প্যানিশ ভাষায়] এবং  এল্টন নুনেজ [স্প্যানিশ ভাষায়]।

কার্টেস কোনোদিন কোন রাজনৈতিক পদের দায়িত্বে ছিলেন না। বাস্তবতা হচ্ছে তিনি বিগত ১২ এপ্রিলের নির্বাচনে প্রথম তার ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন। ওই সমস্ত নির্বাচনে তিনি দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা লিবারেল পার্টি এবং অন্যান্য সমমনা এবং ক্ষুদ্র দল নিয়ে গঠিত জোটের বিরুদ্ধে ১০ পয়েন্টের ব্যাবধানে জয় লাভ করেন। নির্বাচন কমিশনের কর্মকর্তাদের প্রদত্ত ফলাফল অনুসারে নির্বাচনে কার্টেস-এর দল দি ন্যাশনাল রিপাবলিকান অ্যাসোসিয়েশন কলোরাডো পার্টি ৪৫.৮৩ শতাংশ ভোট অর্জন করে; অন্যদিকে আলেগ্রে পার্টি ৩৬.৯ শতাংশ ভোট লাভ করে।

কোন ধরনের রাজনৈতিক অভিজ্ঞতা ছাড়া রাষ্ট্রপতি পদপ্রার্থী হওয়া যার জয়ের সম্ভাবনা রয়েছে, এমন অবস্থায় কার্টেস দুটি ঐতিহ্যবাহী রাজনৈতিক দলের মাঝ থেকে একটিকে বেছে নিয়েছে, যাদের দলীয় শক্তি জোরালো এবং সদস্য সবচেয়ে বেশী (নির্বাচন নিবন্ধন বিভাগের [স্প্যানিশ ভাষায়]) তথ্য অনুসারে ১,৯৮৯,৪১৬ জন সদস্য। যাইহোক, কলোরাডোর একজন না হয়েও, সে দলের প্রচলিত মর্যাদা পরিবর্তনে দলটিকে বাধ্য করে, প্রাক নির্বাচনে প্রার্থিতায় যোগ দেওয়ার আগে ১০ বছর ধরে যে দলটির সদস্য হওয়া তার জন্য ছিল বাধ্যতামূলক, তা তিনি এক বছরে নিয়ে আসতে সক্ষম হন।

Foto compartida por la página oficial de Facebook de Horacio Cartes

ছবি হোরাসিয় কার্টেসের নিজস্ব ফেসবুকের পাতা হতে প্রদর্শন করা হয়েছে।

” আমি আমার দেশের তরুণদের ধৈর্য্যশীল হওয়ার আহ্বান জানাচ্ছি না, আমি তাদের শক্তিশালী বিপ্লবী হওয়ার আহ্বান জানাচ্ছি”।

এটা হচ্ছে নতুন সরকারে উদ্বোধনী ভাষণের টুইটারে উল্লেখিত বাক্যাংশ। এমন এক ভাষণ যা শ্রুতি মধুর এবং এমন নিখুঁত ভাবে তৈরী করা হয়েছে যে, ফলে এটি কার লেখা সে নিয়ে প্রশ্ন তৈরী হয়েছে, এবং এটি পড়া হয়েছে কিংবা স্মরণে রাখা হয়েছে, এই বিষয়টি মাথায় রেখে এই প্রশ্নটি উত্থাপিত হয়েছে যে নির্বাচনী প্রচারণার সময় কার্টেস সুনির্দিষ্টভাবে প্রকৃতিপ্রদত্ত উপায়ে আলঙ্কারিক বাক্য প্রদর্শনে অক্ষম ছিলেন। ঠিক এর বিপরীতে নিজেকে তুলে ধরতে তার বেশ কষ্ট হত।

সাংবাদিক লুইস বারেইরো (@লুইসবারেইরো) [স্প্যানিশ ভাষায়] লিখেছে:

আমার ২০ বছরের সাংবাদিকতা জীবনে এই প্রথম কোন রাষ্ট্রপতির ভাষণ আমাকে উদ্দীপ্ত করল।

— লুইস বারেইরো (@লুইসবারেইরো) ১৫ আগস্ট, ২০১৩

এক মন্ত্রীসভা যেখানে কলোরাডো দলের সদস্যদের নয়, বিশেষজ্ঞদের অধিপত্য

কার্টেসেরের মন্ত্রীসভার সদস্যদের বেছে নেওয়ার বিষয়টি আরেক বিস্ময়ের সৃষ্টি করেছে। কলোরাডোর রাষ্ট্রপতিদের (জেনারেল আলফ্রেডো স্ট্রেসনারের স্বৈরশাসনের পতনের পর থেকে এ পর্যন্ত যে কয়জন রাষ্ট্রপতি এসেছে, কার্টেসের তার মধ্যে সপ্তম) জন্য সাধারণ বিষয় হচ্ছে তারা নিজ দলের সদস্য এবং রাজনীতিবিদদের নিয়ে মন্ত্রীসভা গঠন করে। তবে, কার্টেসের মন্ত্রী হিসেবে মূলত যে সমস্ত নারী ও পুরুষকে বেছে নিয়েছেন, তাদের কোন রাজনৈতিক পরিচয় নেই যদিও বেসরকারি খাতে অথবা তারা যে বিষয়ে অভিজ্ঞ সে সব ক্ষেত্রে তাদের কর্মের মুল্যায়ন করা হয়। তার নতুন মন্ত্রীসভার পূর্নাঙ্গ তালিকা এখানে তুলে ধার হল [স্প্যানিশ ভাষায়]।

দলের নেতার বিষয়টিকে সহজভাবে গ্রহণ করেনি এবং এমনকি কলোরাডোর সদস্যরা অন্য দলের মন্ত্রী, যেমন নতুন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী, ফ্রান্সিস্কো দে ভার্গাসের শপথ গ্রহণের সময় দুয়ো ধ্বনি উচ্চারন করে।

পুনরুজ্জীবিত আশা

নতুন সরকারের বিষয়ের প্যারাগুয়ের জনগণ দারুণ উদ্দীপ্ত, ফেসবুক এবং টুইটারের মন্তব্যে যার উল্লেখ দেখা গেছে। প্যারাগুয়ের অনেক নাগরিক #উননুয়েভোরুম্বো ( এক নতুন দিক নির্দেশনা) নামক হ্যাশট্যাগ ব্যবহার করছে, যেখানে নতুন রাষ্ট্রপতির যোগাযোগ দলটি ফেসবুকের [স্প্যানিশ ভাষায়] মাধ্যমে তাদের প্রস্তাবনা রেখেছে, পরোক্ষ ভাবে তাদের প্রচারণার মোটো তুলে ধরেছে এবং  # ট্রাসপাসোডেমান্ডোপি (. নামক হ্যাশট্যাগ সৃষ্টি করেছে।

এখন এই নিয়ে হল ১৬ তম… ইতোমধ্যে ১৫ জন অতিক্রান্ত হয়েছে… নতুন আশা  #উননুয়েভোরুম্বো.. @হোরাসিও_কার্টেস, আপনার প্রতি আমার আস্থা আছে …..

 @হোরাসিও_কার্টেসকে আমাদের রাষ্ট্রপতি হিসেবে শপথ নিতে দেখে আমার চোখে পানি এসে গেল!! আপনার প্রতি সমগ্র জাতির আস্থা রয়েছে!! #উননুয়েভোরুম্বো

একটি গৃহ, যেখানে চাকুরী আছে, একটি পরিবার, যেখানে স্বাস্থ্য আছে, যুবক, যাদের শিক্ষা আছে, একটি রাষ্ট্র, হোরাসিও কার্টেস কারণে যার ভবিষ্যৎ আছে। @হোরাসিও_কার্টেস #প্যারাগুয়ে #উননুয়েভোরুম্বো

রাষ্ট্রপতিকে গ্রহণ করার অনুষ্ঠানে একদল বিক্ষোভকারী ছদ্মবেশে সমবেত হয় ফ্রেড্রিকো ফ্রাঙ্কো দ্বারা রাষ্ট্রপতি পদ থেকে ফার্নান্ডো লুগো এবং তার স্ত্রীর অপসারণের প্রতিবাদে (লুগোকে অপসারণ করে ফ্রাঙ্কো নয় মাস তার পদে আসীন ছিল)। বিক্ষোভকারীরা পোস্টার এবং ব্যানার প্রদর্শন করে, যেখানে তাকে অভ্যুত্থানের নেতা এবং চোর হিসেবে অভিহিত করে।

নেতাকে গ্রহণ করার মধ্যে দিয়ে প্যারাগুয়ে রাজনৈতিক এবং কূটনৈতিক অচলাবস্থা থেকে বেরিয়ে এলো যার শুরু হয়েছিল ২২ জুন,২০১২ তারিখে নির্বাচিত রাষ্ট্রপতি প্রাক্তন বিশপ ফার্নান্ডো লুগোর [স্প্যানিশ ভাষায়] অপসারণ-এর মধ্যে দিয়ে, আর এই ঘটনার পর মারকোসার নামক অর্থনৈতিক ফোরামদেশটির সদস্য পদ স্থগিত করে ।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .