বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

মন্টিনিগ্রোর প্রথম প্রাইড প্রদর্শনী সমকামী-বিরোধী প্রতিবাদকারীদের সহিংস বাঁধায় ব্যাহত

মন্টিনিগ্রোর প্রথম সমকামী প্রাইড প্রদর্শনী সহনশীলতার পরিবর্তে বুদভাতে পুলিশ বাহিনী এবং এলজিবিটি বিরোধীদের মাঝে সংঘর্ষের নৃশংসতার মধ্য দিয়ে শেষ হয়েছে। এর ফলে গ্রেপ্তার, হতাহত এবং পরিশেষে প্রদর্শনীতে অংশগ্রহনকারীরা নৌকায় করে স্থান ত্যাগ করে। কেননা, শহরের মধ্য দিয়ে পুলিশবাহিনী তাঁদের নিরাপদে যাওয়ার রাস্তা নিশ্চিত করতে পারেনি।

মন্টিনিগ্রোর পুলিশ বিভাগের [এসআর] মতে, ২৪ জুলাই, ২০১৩ তারিখের প্যারেডটিতে কেবলমাত্র ৪০ জন লোক অংশ নিয়েছে, কিন্তু প্যারেডের সমগ্র রাস্তা জুড়ে প্রায় ২ হাজার লোক জড়ো হয়েছে এবং প্রায় ৫০০ লোক সক্রিয়ভাবে বাহুবল প্রয়োগের মাধ্যমে এই আয়োজনটি থামাতে উদ্যত হয়।

মিহাইল ইফ্রিমভের মতো কেউ কেউ, এই মুহুর্তে প্যারেডে কি ঘটছে তা নিয়ে সামাজিক মাধ্যমে মন্তব্য করেছেনঃ

মিহেইল ইফ্রিমোভ (@ইফ্রিমিহেইল): “সমকামীদের হত্যা কর” প্রতিবাদকারীদের এমন চিৎকার শুরুর পর#মন্টিনিগ্রোর প্রথম সমকামী প্রাইড সহিংস রূপ নেয়

যেখানে ১৯৭৭ সাল থেকে মন্টিনিগ্রোতে এলজিবিটি – দের সম্পর্কে সম্পূর্ণরূপে উদারমনা আইন রয়েছে, যা সাবেক যুগোস্লাভিয়ার একটি অংশ হিসেবে এলজিবিটি এবং অন্যান্য অপ্রচলিত জীবনাচরণগুলো, প্রতিদিনের জীবন এবং সমাজের ওপর প্রায়ই ভ্রূকুটি করে। ২০১২ সালের নভেম্বরে মন্টিনিগ্রোর উপ প্রধানমন্ত্রী ডুস্কো মারকোভিক ঘোষণা করেছেন যেভাবেই হোক, সরকার কিছু কিছু ক্ষেত্রে সমকামী বিবাহকে বৈধ স্বীকৃতি দিতে বিবেচনা করবে।

অ্যাড্রিয়াটিক সমুদ্র তীরের অন্যতম পর্যটন আকর্ষণ বুদভাতে গতকাল যে ঘটনা ঘটেছে সে সম্পর্কে এ অঞ্চলের এবং সমগ্র পৃথিবীর ইন্টারনেটবাসীরা এবং অনেক প্রধান ধারার প্রচার মাধ্যমের চ্যানেলগুলো এ ঘটনা ঘটার পরের দিন প্রতিক্রিয়া জানায়।  টুইটার ব্যবহারকারী জাজ মন্তব্য করেছেন এবং এ ঘটনা নিয়ে টুইটারে একটি ভিডিও পোস্ট করেছেনঃ

জাজ (@জাজিফার): সম্পূর্ণ অসম্মতি http://t.co/ewoURfsu2d #SeaSidePride #EqualityForAll #Montenegro

বুদভার পুরনো শহরের ক্যাফে মালিকরা, যেখান দিয়ে সমকামী গর্ব প্যারেডটি অতিক্রম করেছে, সে মালভূমিটি পরিশুদ্ধ করতে একজন পাদ্রিকে ডেকে নিয়ে এসেছিলেন। ধর্মীয় অনুষ্ঠানটি পরিচালনাকারী পাদ্রি ফাদার বোরিস রাদোভিক প্রচার মাধ্যমকে বলেছেন, “এটি একটি লজ্জাকর প্যারেড, কোন গর্ব প্যারেড নয়”, যা বেশীরভাগ সামাজিক মাধ্যম ব্যবহারকারীদের থেকে প্রায়ই বিদ্রুপ ও অপমান কুড়াচ্ছে। যেমন @টালামবাসাকোবাসা নামক ব্যবহারকারীর টুইটের মতোঃ

টালামবাসামিকোবাসা (@টালামবাসাকোবাসা): হাহাহা http://t.co/F2nMWC94yZ এতো বিখ্যাত রাদোভিকের [চরমপন্থী বক্তব্যের জন্য পরিচিত সাবেক রাজনীতিবিদ] সাথে তাঁর কিসের সম্পর্ক; আমি মনে করি তাঁদের বক্তব্য একই রকম #Budva #Montenegro #paradacg #seasidepride

বর্তমানে ভিয়েনায় বসবাসকারী সারাজিভোর একজন সাংবাদিক ও ভাষাবিদ নেনাদ মেমিক টুইটারে আরো বলেছেনঃ

নেদাদ মেমিক (@নেদাদমেমিক): পরে #এলজিবিটির‍্যালির #বুদভাতে, একজন স্থানীয় যাজক প্রত্যাশা করেছেনঃ “আমি #মন্টিনিগ্রোর অসুস্থতা এবং শয়তান থেকে সুরক্ষার জন্য প্রার্থনা করছি”।

ফেসবুকে হ্যাশট্যাগ #মন্টিনিগ্রো – এর অধীনে অনেক প্রতিক্রিয়ায় দেখা গেছে একটি বিরাট অংশ গতকালের প্যারেডের ওপর আক্রমণের নিন্দা করেছে এবং মন্টিনিগ্রোতে এলজিবিটি সম্প্রদায়ের প্রতি আরো সহনশীল হওয়ার তাগিদ দিয়েছে।

যদিও ফ্রিল্যান্স সাংবাদিক এলেক্স হোগবার্গ, এই টুইটটিতে সাধ্যমত সংক্ষেপে বলার চেষ্টা করেছেনঃ

অ্যালেক্স হোগবারগ (@অ্যালেক্সহোগবারগ): সুসংবাদ হল #মন্টিনিগ্রোয় ১ম #সমকামীপ্রাইডর‍্যালি ছিল। খারাপটি হল: সমকামী-বিরোধী র‍্যালির চেয়ে ৫ গুন বড় ছিল। http://t.co/pjogFhXEbR

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .