বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

রাজাকে অপমান করায় বাহরাইনের ছয় টুইটার ব্যবহারকারী কারাগারে

মাইক্রো ব্লগিং সাইটে কিং হামাদ বিন ঈসা আল খলিফাকে অপমান করার অভিযোগে বাহরাইনের একটি আদালত ছয় টুইটার ব্যবহারকারীদের প্রত্যেককে এক বছরের কারাভোগে দন্ডিত করেছে।

বাহরাইন সরকার পরিচালিত সংবাদ সংস্থা অনুযায়ি, “ছয় সন্দেহভাজন”কে পাঁচটি পৃথক ক্ষেত্রে অভিযুক্ত করা হয়েছে, যেগুলো “মত প্রকাশের স্বাধীনতার অপব্যবহার এবং টুইটারে মহামান্য রাজাকে মানহানি করা”র সাথে সম্পর্কিত।

লন্ডন ভিত্তিক বাহরাইন প্রেস এসোসিয়েশন অনুযায়ী দন্ডিত যারা ​​[আরবী ভাষায়]:

المحكمون بالسجن في بتهمة إهانة الملك في هم: المحامي مهدي البصري، محمود طارش، محسن عبدعلي، حسن عبدعلي، حسن عبدعلي، عمار مكي.

@বাহরাইনপ্রেসঃ টুইটারে রাজাকে অপমান করায় কারাগারে দন্ডিতরা হলেন: আইনজীবী মাহাদি আল বাঁশরি, মাহমুদ তারেশ, মহসীন আব্দালি, হাসান আব্দালি, হাসান আব্দালি এবং আম্মার মাক্কি।

Tweets that won't land you in trouble in Bahrain

এই টুইটটি বাহরাইনে আপনাকে ঝামেলায় ফেলতে পারে 

হাসান আব্দালির নাম দুবার প্রদর্শিত হয়েছে। এটি দুজন পৃথক ব্যক্তি বা একটি ভুল কিনা তা গ্লোবাল ভয়েসেস অনলাইন বের করতে পারেনি। গ্লোবাল ভয়েসেস এর একটি প্রশ্ন এই পোস্টটি লেখার সময় অনুত্তরিত রয়ে গেছে।

অ্যাসোসিয়েশনটি আরও লিখেছেঃ

@বাহরাইনপ্রেসঃ বিপিএঃ এই শাস্তিকে ন্যায়বিরূদ্ধ বিধান বিবেচনা করা হয়েছে যা মত প্রকাশের স্বাধীনতাকে লঙ্ঘন করে।

এদিকে মানবাধিকারের জন্য বাহরাইন যুব সমাজ বলেছে, পাঁচ টুইটার ব্যবহারকারীদের কারাগারে এক বছরের জন্য দন্ডিত করা হয়েছে – তাদের অবিলম্বে মুক্তির জন্য দাবি জানাইঃ

মানবাধিকারের জন্য বাহরাইন যুব সমাজ (BYSHR) দাবি করেছে:

  1. মতা প্রকাশের স্বাধীনতার কারণে গ্রেপ্তার করা ব্যক্তিদের ​​অবিলম্বে মুক্তি দেওয়া এবং তাদের বিরুদ্ধে সমস্ত অভিযোগ তুলে নিতে হবে।
  2. বাহরাইনে সামাজিক মিডিয়ার বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা তুলে নিতে হবে।
  3. ইন্টারনেট তথ্য বিনিময় বিনামূল্যে রক্ষা করা এবং তা সীমাবদ্ধ করা যাবে না ।

দণ্ডাদেশটি অনলাইনে ব্যাপক সমালোচনার সম্মুখীন হয়েছে।

বাহরাইনের মুক্তির প্রার্থনাকারীরা এই দণ্ডাদেশ নীরব অন্য বিদ্রোহীদের জন্য এটি একটি হুমকি হিসেবে দেখছেন:

@ফ্রিডমপ্রেয়ারসঃ গত বছর টুইটার ব্যবহারকারীরা ৬ মাস দন্ডিত হয়েছিল। এই বছরের তা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১ বছরে। যদি এটা বন্ধ না হয়, তবে পরবর্তীতে এটি ৫ বছর হবে। #বাহরাইন

গ্রেট ব্রিটেনের কেমব্রীজ থেকে লেখক টবি ম্যাথিএসেন টুইট করেছেনঃ

@টবিম্যাথিএসেনঃ বাহরাইনের আদালত রাজাকে অপমান করায় ছয় টুইটার ব্যবহারকারীকে এক বছরের কারাভোগে দন্ডিত করেছে। টুইটার প্রভাবকে সীমিত করার চেষ্টায় এটি আরেকটি জিসিসি সাইন।

এবং গবেষক মার্ক ওয়েন জোন্স চ্যালেঞ্জ জানিয়েছেন:

@মার্কওয়েনজোন্সঃ যদি তারা টুইটারে রাজাকে অপমান করে তবে সবাই গ্রেফতার হতে পারে না। নাকি পারে …? #বাহরাইন

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .