বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

সৌদি প্রতিবাদকারীর আদালতের বিচার প্রত্যাখ্যানঃ “আমি নারীদের অবনতি সহ্য করব না”

এই পোস্টটি আমাদের “সৌদি আরবে আদালতের বিচারে সংস্কারবাদীরা” এর বিশেষ কাভারেজের একটি অংশ:

সৌদি নাগরিক ও রাজনৈতিক অধিকার বিষয়ক সমিতির সহ প্রতিষ্ঠাতা ডঃ আব্দুলকারেম আল-খুদার চলমান বিচারের পঞ্চম অধিবেশন আজ অনুষ্ঠিত হয়েছে। পূর্ববর্তী সেশনের মতই, বিচারক প্রকাশ্য আদালতে মহিলাদের উপস্থিত থাকার অনুমতি দেওয়া প্রত্যাখ্যান করা অব্যাহত রেখেছেন। তিনি বলেছেন, তাঁরা আদালতে নয়; বাড়িতে থাকবে।

শেষবারের মত যখন ডাঃ আল-খুদার নারী ও পুরুষের উভয়ের বিচারের সময় উপস্থিত থাকার অনুমতি ছাড়া আদালতে প্রবেশ করতে অস্বীকার করেন, তখন বিচারক তাঁর বিরুদ্ধে চার মাসের গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন। তারপর থেকে ডাঃ আল-খুদার বুরাইধাহ পাবলিক কারাগারে আটক রয়েছেন।

এখানে একটি ভিডিও আপলোড করা হয়েছে যেখানে তাকে আদালত ভবন ত্যাগের সময় হাতকড়া পড়া অবস্থায় দেখা যাচ্ছে। সেখানে তিনি বলেছেন:

ما دخلنا السجن إلا طلبا لإصلاح حال هذه الأمة. أسأل الله أن يحقق ذلك أو يميتنا دونه.

আমি এই জাতির অবস্থার উন্নয়নের চেষ্টার জন্য কারারুদ্ধ হয়েছিলাম। আমি এটা অর্জন করা জন্য প্রার্থনা করছি অথবা আমার মৃত্যুর জন্য প্রার্থনা করুন।

Dr. al-Khudar, handcuffed, before the session.

আদালত সময়ের পরে হাতকড়া পড়া অবস্থায় ডাঃ আল-খুদার। এসিপিআরএ টিউব থেকে নেওয়া হয়েছে। 

যখন বিচারক মহিলাদের (ডাঃআল-খুদারের মা ও স্ত্রী সহ) বিচার প্রক্রিয়ায় অংশগ্রহণ করার অনুমতি প্রত্যাখ্যান অব্যাহত রাখেন, তখন তিনি কথা বলতে এবং নোট লিখতে অস্বীকার করেন। নোটটি তার আইনজীবী সেশনের শেষে পড়ে শোনান:

والله لن تضهد المرأة باسم الإسلام بتحريف النصوص عن معناها ومراد الله فيها؛ وأما إن اضهدت باسم النظام فيحاسب من قام بذلك.”

আমি শপথ করছি যে, কোরআনের অর্থ বিকৃতির মাধ্যমে ইসলামের নামে নারীদের অধ:পতন আমি সহ্য করব না। অবনতি যদি আইনের নামে হয়, তবে যারা এটি লিখবেন তাঁদের ​​দায়ী করা উচিত।

এই পোস্টটি আমাদের “সৌদি আরবে আদালতের বিচারে সংস্কারবাদীরা” এর বিশেষ কাভারেজের একটি অংশ:

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .