বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

আর্জেন্টিনাতে আসন্ন ‘মনসান্তো আইন’ স্বাগত নয়

আর্জেন্টিনার কৃষি, পশুসম্পদ এবং মৎস্য মন্ত্রণালয় [স্প্যানিশ ভাষায়] জিন-পরিবর্তিত বীজ উৎপাদনকারী কোম্পানীগুলোর মেধাস্বত্ব্ব সুরক্ষার জন্যে একটি নতুন আইন নিয়ে কাজ করছে। এই আইনটি আরো অগ্রসর হলে আর্জেন্টিনা তার খাদ্য সার্বভৌমত্ব হারাতে পারে এই বিবেচনায় বিভিন্ন খাতগুলো ক্ষুদ্র উৎপাদকদের ‘বীজ আইন’ বা ‘মনসান্তো আইন’  নামে ডাকা এই বিলটির (খসড়া আইন) তীব্র সমালোচনা করছে।

এই আইন আর্জেন্টিনার জন্যে যে পরিণতি বয়ে আনতে পারে সে সম্পর্কে ওয়েবসাইট পার্তিদো পিরাতা  [স্প্যানিশ ভাষায়] (পাইরেট পার্টি) লিখেছে:

Quiere legalizar la policía de semillas que tan nefastos resultados tuvo en EEUU y Europa. Esta ley le daría la propiedad de las semillas a Monsanto. Porque bastaría que las semillas que siembran nuestros campesinos y chacareros estén contaminadas por el gen para ser propiedad de Monsanto, los productores de semillas no podrán acopiar sus semillas.

[আইনটি] মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং ইউরোপে বিপর্যয়কর ফল সৃষ্টিকারী বীজ নীতিকে বৈধ করতে চায়। এই আইনটি মনসান্তোকে বীজগুলোর মালিকানা দিবে। আমাদের ক্ষুদ্র চাষী এবং জমির মালিকরা যেসব বীজ বুনবে সেগুলো মনসান্তো’র সম্পত্তি বলে বিবেচিত জিন দিয়ে সংক্রমিত হয়ে পড়বে এবং বীজ উৎপাদনকারীরা তাদের বীজ সংগ্রহ করতে পারবে না।

ত্রিবুনা দে পেরিওদিস্তাস [স্প্যানিশ ভাষায়] (সাংবাদিকদের ট্রিবিউন)-এ কার্লোস ফোর্তে কৃষিমন্ত্রী নরবের্তো ইয়াহুয়ারকে উদ্বৃতি দিয়েছেন:

Marcha contra Monsanto en Buenos Aires, Argentina, 17 de septiembre 2012. Foto de Maximiliano Ramos, copyright Demotix.

১৭ই সেপ্টেম্বর, ২০১২ তারিখে আর্জেন্টিনার বুয়েনস আয়ার্সে মনসান্তোর বিরুদ্ধে বিক্ষোভ। ছবি: ম্যাক্সিমিলিয়ানো র‌্যামোস, সর্বস্বত্ত্ব ডেমোটিক্স।

“En los últimos tiempos se compraban semillas de tecnología que pasaban a ser propiedad exclusiva de los productores, y después esos campos generaron cantidades que excedían a la que necesitaban para una nueva resiembra, por lo que se produjo un comercio que no tiene prácticamente control. Lo lógico es que todo el desarrollo que hacen tanto el Estado como empresas privadas tengan un respaldo en el resguardo de esa propiedad intelectual.”

“সাম্প্রতিককালে ক্রয়কৃত জৈবপ্রযুক্তিগত বীজ উৎপাদনকারীদের একচ্ছত্র সম্পত্তি হবে এবং তারপর ঐসব জমিতে উৎপাদিত বীজ বপনের নতুন বীজের পরিমাণের প্রয়োজনের চেয়ে বেশি হয়ে পড়বে ফলে কার্যতঃ নিয়ন্ত্রণহীন বাণিজ্য পরিস্থিতি সৃষ্টি হবে। কাজেই যুক্তিসঙ্গত বিষয় হলো যে মেধাস্বত্ত্ব সুরক্ষার অধীনে থাকবে রাস্ট্র এবং বেসরকারি সংস্থা পরিচালিত সমস্ত উন্নয়ন।”

ফোর্তে এছাড়াও এই নতুন আইনের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করার জন্যে বিভিন্ন সংস্থার উপস্থাপিত ১০টি উদ্দেশ্য [স্প্যানিশ ভাষায়] সম্পর্কে লিখেছেন:

Las organizaciones Movimiento Nacional Campesino Indígena (MNCI), CLOC-Vía Campesina Argentina, GRAIN, Amigos de la Tierra y Acción por la Biodiversidad accedieron a un borrador del proyecto de fines de agosto al que calificaron como un intento de “subordinar la política nacional de semillas a las exigencias de la UPOV (Unión Internacional para la Protección de Obtenciones Vegetales) y las transnacionales”.

En una declaración de “10 motivos para luchar contra el proyecto de ley” señalaron que la norma propuesta “sólo fomenta la privatización y protege la propiedad sobre lo que es un patrimonio colectivo de los pueblos, especialmente de las comunidades campesinas y los pueblos indígenas”.

মুভিমিয়েন্তো ন্যাশনাল ক্যাম্পেসিনো ইন্ডিজেনা (এমএনসিআই,জাতীয় কৃষক ও আদিবাসী আন্দোলন), সিএলওসি- ভায়া ক্যাম্পেসিনা আর্জেন্টিনা (চাষীদের পথ আর্জেন্টিনা), অ্যামিগোস দে লা টিয়েরা (পৃথিবীর বন্ধুরা) এবং অ্যাক্সিওন পোর লা বিওদিভার্সিদাদ  (জীববৈচিত্র্য জন্যে অ্যাকশন) আগস্ট মাসের শেষের দিকে বিলটির একটি খসড়া পেয়েছে, যাকে তারা “ইউপিওভি (আন্তর্জাতিক নতুন উদ্ভিদ বৈচিত্র্য সুরক্ষা ইউনিয়ন) এবং বহুজাতিক কর্পোরেশনগুলোর দাবির কাছে জাতীয় বীজ নীতির নতি স্বীকার” করার একটি প্রচেষ্টা বলে অভিহিত করেছে।

“বিলটির বিরুদ্ধে যুদ্ধ করার ১০টি উদ্দেশ্য” [এসব সংস্থার] একটি ঘোষণায় জোর দিয়ে বলা হয়েছে যে প্রস্তাবিত আইনটি “শুধু জনগণের বিশেষতঃ গ্রামীণ সম্প্রদায় এবং আদিবাসীদের মালিকানাধীন সমষ্টিগত ঐতিহ্যের ব্যক্তিগতকরণের প্রচার এবং সুরক্ষা করবে মাত্র।”

ফোর্তে আরও যোগ করেছেন:

Mientras esto ocurre, los grandes medios callan respecto a este tema. Lo mismo sucede con referentes políticos, tanto del oficialismo como de la oposición. La única que ha hablado claramente es Cristina Kirchner. Eso sí, a favor de Monsanto.

এটা ঘটার সময় বড় বড় মিডিয়া কোম্পানিগুলো এই বিষয়টি সম্পর্কে নীরব রয়েছে। একই ঘটনা ঘটেছে ক্ষমতাসীন ও বিরোধী উভয় দলগুলোর রাজনীতিবিদদের ক্ষেত্রে। শুধু স্পষ্টভাবে বলেছেন [রাষ্ট্রপতি] ক্রিস্টিনা কির্চনার। (এবং) অবশ্যই মনসান্তোর পক্ষে।

এদিকে, মনসান্তো সয়াবিন তেলের ফলন বাড়ানোর একটি নতুন প্রযুক্তিবাণিজ্যিকীকরণের অনুমোদন [স্প্যানিশ ভাষায়] সম্পর্কিত সংবাদ প্রচার করছে:

“Hoy vemos con agrado que se están dando las condiciones necesarias para avanzar con un nuevo modelo de negocios que reconozca la propiedad intelectual a las invenciones tecnológicas en soja. Así, continuaremos trabajando junto a los productores y a toda la cadena para contar con un modelo consolidado al momento del lanzamiento comercial de la tecnología”.

Monsanto, junto con todos los actores de la cadena de soja, se encuentra finalizando un proceso de consenso que permita el establecimiento de un modelo de negocios que reconozca y respete los derechos de propiedad intelectual sobre las tecnologías patentadas, de modo de estar en condiciones de lanzar comercialmente INTACTA RR2 PRO en el año 2013 en el norte del país.

“আজ আমরা খুশি যে সয়াবিনের প্রযুক্তিগত উদ্ভাবনে মেধাস্বত্ত্ব স্বীকার করে নেয়া একটি নতুন ব্যবসায়িক মডেল নিয়ে এগিয়ে যাওয়ার প্রয়োজনীয় শর্ত পূরণ হয়েছে। এভাবে আমরা প্রযুক্তিটির বাণিজ্যিক প্রবর্তনের সময় একটি সুদৃঢ় মডেল পাওয়ার জন্যে উৎপাদক এবং সমগ্র (উৎপাদন) শৃংখলের সঙ্গে কাজ অব্যহত রাখবো।”

মনসান্তো সয়া শৃংখলে ভূমিকা পালনকারী সবাইকে সঙ্গে নিয়ে দেশটির উত্তরাঞ্চলে ২০১৩ সালে বাণিজ্যিকভাবে ইন্ট্যাক্টা আরআর২ প্রো চালু করতে পারার জন্যে পেটেন্ট করা বিভিন্ন প্রযুক্তির মেধাস্বত্ত্ব স্বীকৃত এবং এর প্রতি শ্রদ্ধাশীল একটি ব্যবসায়িক মডেল প্রতিষ্ঠা করার একটি ঐক্যমত্য প্রক্রিয়া সম্পন্ন করছে।

মনসান্তো বেরিয়ে যাও” [স্প্যানিশ ভাষায়] স্লোগানের অধীনে ২রা ডিসেম্বর, ২০১২ তারিখে ফেসবুকের মাধ্যমে একটি ‘মহা আয়োজন’ করা হয়েছে। একই আয়োজন করা হয়েছিল ১৭ই সেপ্টেম্বর তারিখে।

কুচারাআর্জেন্টিনা (চামচ আর্জেন্টিনা) বিক্ষোভগুলোর একটির নিচের ভিডিওটি ভাগাভাগি করেছে:

El mega evento se desplegó copando la Plaza San Martín con el objetivo de repudiar el accionar criminal de la empresa, el uso de agrotóxicos y rechazar la modificación a la ley de semillas que propone el gobierno nacional, que ya se conoce como “Ley Monsanto”.

কোম্পানীটির বিভিন্ন অপরাধমূলক কর্ম,  কীটনাশকের ব্যবহারের নিন্দা জ্ঞাপন এবং ‘মনসান্তো আইন’ নামে ইতোমধ্যে পরিচিত জাতীয় সরকার প্রস্তাবিত বীজ আইনের সংশোধনীগুলো প্রত্যাখ্যান করার মহা আয়োজনটি প্লাজা সান মার্টিনের মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে।

আলোচিত ছবিটি [স্প্যানিশ ভাষায়] পাওলা বার্রীয়স এস্কুডেরা, ফেসবুকের মাধ্যমে।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .