বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

নতুন মিডিয়াতে ‘বৃহৎ’ রাশিয়াকে দেখে নিচ্ছে ‘ক্ষুদ্র’ জর্জিয়া

এই পোস্টটি আমাদের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক ও নিরাপত্তা সংক্রান্ত কাভারেজের অংশ।

রাশিয়ার দক্ষিণে অবস্থিত জর্জিয়া আপনার সাধারণ ছোট্ট রাষ্ট্র: যার একটি অতি ক্ষুদ্র জনসংখ্যা, উন্নয়নশীল অর্থনীতি এবং বৃহত্তম প্রতিবেশী রাশিয়ার সঙ্গে আঞ্চলিক বিবাদ রয়েছে। ২০০৮ সালের আগস্ট মাসে ক্ষুদ্র দেশটিকে রাশিয়া স্বল্প সময়ের জন্যে আক্রমণ করেছিল এবং জর্জিয়া যে এই শক্তি প্রদর্শনের বিরুদ্ধে দাঁড়াতে পা্রেনি তাতে কেউ তেমন অবাক হয়নি।

সংজ্ঞা অনুসারেই একটি ক্ষুদ্র রাষ্ট্রের নিরাপত্তা হুমকি মোকাবেলা করার মতো যথেষ্ট সামরিক বা অর্থনৈতিক শক্তি থাকে না। ছোট রাষ্ট্রগুলোর এরকম “শক্ত ক্ষমতা” সুবিধা না থাকলেও প্রতিকূলতাকে প্রভাবিত করার একমাত্র উপায় হিসেবে তাদের প্রায়শই “নরম ক্ষমতা” থাকে। বিভিন্ন স্বাদের এই নরম ক্ষমতাগুলো প্রথাগতভাবেই ব্যয়বহুল এবং কোনভাবেই প্রকাশ্য কূটনীতি ও মিথ্যা প্রচারণা নয়। এই বিশ্বব্যাপী যোগাযোগের যুগে ভাগ্যক্রমে জর্জিয়ার ক্ষেত্রে নরম ক্ষমতার ব্যবহার সহজতর।

(ন্যাটোতে যোগদান করতে চাওয়া এবং দীর্ঘসময় বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থায় রাশিয়াকে প্রবেশে বাধা দেয়ায়) রাজনৈতিকভাবে প্রতিকূল পরিস্থিতিটির কারণেই রুশ জনসাধারণের মধ্যে জর্জিয়ার বিস্ময়করভাবে একটি ভাল অবস্থান রয়েছে। আংশিকভাবে এর কারণ হলো এই দেশটির সঙ্গে রাশিয়ার ঐতিহাসিক সম্পর্ক এবং জর্জিয়ার খাদ্য ও মদের প্রতি রুশদের আসক্তি। আরেকটি কারণ হলো জর্জিয়ার অনলাইন সম্প্রদায়ের নরম ক্ষমতার ব্যবহার।

ছবিটি আপলোড করেছেন ফ্লিকার ব্যবহারকারী সামারএসএসও

ছবিটি আপলোড করেছেন ফ্লিকার ব্যবহারকারী সামারএসএসও সিসি বাই-এনডি ২.০

অধিকাংশ জর্জিয়াবাসী জর্জীয় ভাষায় ব্লগ করলেও রাশিয়ার সবচেয়ে জনপ্রিয়  ব্লগ করার মঞ্চ লাইভজার্নালে (এলজে) রুশ ভাষায় কথা বলা বিশাল একটি জর্জীয় বাহিনী রয়েছে (এরকম ২০০ ব্লগারের একটি তালিকা এখানে [রুশ] পাওয়া যাবে। এরকম ব্লগারের কখনো কোন পরিচিত মুখ থেকে থাকলে সেটা হবে সিওয়াইএক্সওয়াইএমইউ [রুশ] এর।) প্রতিদিন গড়ে চল্লিশটি মন্তব্য এই আবখাজীয় ব্লগারকে আরইউনেট (রাশিয়া্র ইন্টারনেট) এর অনুসরণকারীদের কাছে একটি পরিচিত “মুখ”-এ পরিণত করেছে।

ওয়াইএক্সওয়াইএমইউ রুশ ব্লগারদের প্রায়শই রুশো-জর্জীয় সম্পর্ক নিয়ে তর্কে লিপ্ত করে দেন। উদাহরণস্বরূপ, তিনি ২০০৮ সালের সংঘাতটি ব্যাপকভাবে কাভার করে আপাতদৃষ্টিতে যে কারো রাডারের সম্মুখীন করে ফেলেছিলেন। ২০০৯ সালে তার টুইটার এবং ব্লগ ডিডস আক্রমণের শিকার হয়েছিল যেভাবে সম্প্রতি শিকার হয়েছিল রুশ বিরোধীদলীয় সদস্যরা।

ঘটনাক্রমে রুশ বিরোধীদলীয় সদস্য ওলেগ প্যানফিলভ  [রুশ] (ওলেগপ্যানফিলভ২) বর্তমানে জর্জিয়াতে বসবাস এবং সেখান থেকে ব্লগ করেন। তার মূল ব্লগ হ্যাক করেছিল কুখ্যাত হ্যাকার হেল (দোজখ), এখন দিনে সাতটি পোস্ট লিখেছেন যাতে তিনি হয় ক্রেমলিনের সমালোচনা নয়তো জর্জীয় বিপরীতটির গুণাবলীর চাটুকারী করেন।

সাধারণভাবে, এসব এবং অন্যান্য ব্লগাররা রুশদেরকে জর্জিয়ার দৈনন্দিন জীবন সম্পর্কে প্রায়শই ছবির মাধ্যমে [রুশ]  একটি ধারণা দেন। তাদের কেউ কেউ সাকাশভিলি সরকারের সমালোচনা করলেও তারা প্রায়শই প্রবর্তিত সংস্কারের একটি উজ্জ্বল পর্যালোচনা করেন। জর্জীয় ব্লগাররা তাদের রুশ পাঠকদের সম্পর্কে সচেতন। বাস্তবে, ১৪ই জুনের তিবলিসি গোলটেবিলের [রুশ] বর্ণনা অনুসারে তাদের অনেকেই বিশেষ করে এই পাঠকদের দৃষ্টি আকর্ষণ করার জন্যে রুশ ভাষায় লিখে থাকেন।

ইতোমধ্যে জর্জীয় সরকার ভিন্ন একটি পন্থা গ্রহণ করেছে। সম্প্রতি শীর্ষস্থানীয় রুশ ছবি-ব্লগার রুস্তেম আদাগামভকে জর্জিয়ার অর্থনীতি মন্ত্রণালয় ঘুরে দেখার আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। ফিরে আসার পর তিনি বেশ কয়েকটি পোস্ট লিখেছেন সেগুলো ভ্রমণ লেখা এবং পুনর্গঠিত জর্জীয় বিচার বিভাগ এবং পুলিশ বাহিনীর [রুশ] বিশাল বিজ্ঞাপন প্রতিলিপির একটি মিশ্রণ।

আদাগামভ জর্জিয়ার বিভিন্ন সরকারী সংস্থার আমন্ত্রিত রুশ ব্লগারদের নিয়মিত প্রবাহে শুধুমাত্র সর্বশেষ একজন। আপাতদৃষ্টে দুর্নীতিমুক্ত জর্জীয় পুলিশ একটি বিশেষ জনপ্রিয় বিষয়। গতবছর আরেকজন ছবি-ব্লগার জায়াল্ট পূর্ববর্তী লেখকদের বিভিন্ন পোস্ট [রুশ]  থেকে সংকলিত প্রায় একইরকম একটি পোস্ট [রুশ] করে ভাড়াটে-ব্লগিংয়ের নানা অভিযোগ আকর্ষণ করছে।

জর্জিয়ার সরকার নতুন মিডিয়ার দক্ষ ব্যবহারের মাধ্যমে রুশ জনগণকে অন্তর্ভুক্ত করার একটি সচেতন কৌশল অনুসরণ করছে বলে মনে হলেও, শীঘ্রই এটি যে ফলাফল দেখতে পাবে তা নিশ্চিত নয়। সর্বোপরি, প্রকাশ্য কূটনীতি একটি কার্যকরী গণতন্ত্রের অধীনেই সবচেয়ে ভাল কাজ করে।

ISN logoবিশ্বজুড়ে আন্তর্জাতিক সম্পর্ক এবং নিরাপত্তা বিষয় সম্পর্কে নাগরিক কণ্ঠস্বর অন্বেষণের অংশ হিসাবে এই পোস্ট এবং এর স্প্যানিশ, আরবি এবং ফরাসি অনুবাদের দায়িত্ব আন্তর্জাতিক নিরাপত্তা নেটওয়ার্ক (আইএসএন) এর। এই পোস্টটি প্রথম প্রকাশিত হয় আইএসএন ব্লগে, এরকম আরো গল্পের জন্যে এখানে দেখুন।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .