বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

দক্ষিণ আফ্রিকা: ৮ বছর পর প্রথম স্বর্ণ পদক প্রাপ্তি উদযাপন

এ পোস্ট টি লন্ডন ২০১২ অলিম্পিক সংক্রান্ত বিশেষ কাভারেজের অংশ।

সাঁতারু ক্যামেরন ভ্যান ডার বুরগের স্বর্ণ পদক প্রাপ্তিতে দক্ষিন আফ্রিকাতে তাঁর প্রতি অভিনদন বর্ষিত হচ্ছে। ২০০৮ সালের বেইজিং অলিম্পিকে বিষণ্ণ ব্যর্থতার পর দক্ষিন আফ্রিকার পক্ষে তিনি প্রথম স্বর্ণ পদক লাভ করেন। রবিবার  ৫৮.৪৬ সেকেন্ডে বিশ্ব রেকর্ড গড়ে ১০০ মিটার বুক সাঁতারে তিনি স্বর্ণ পদক জয় করেন। পুরুষ সাঁতারুদের মধ্যে তিনিই দক্ষিন আফ্রিকার পক্ষে তিনিই প্রথম স্বর্ণ পদক জয় করেন। পদক প্রাপ্তিতে এখন তাঁকে ‘গোল্ডেন বয়’ ও ট্রেন্ডিং অন টুইটার নামে ডাকা হচ্ছে।

দক্ষিণ আফ্রিকার চারপাশে আনন্দ, ভয়েস অব কেপ এফ এম তাঁর বিজয়ের বিষয়ে প্রচার করেন:

সাঁতারু ক্যামেরন ভ্যান ডার বার্গের স্বর্ণ জয়ে দক্ষিন আফ্রিকা জুড়ে আনন্দের বন্যা । ২০১২ সালের লন্ডন অলিম্পিকে দেশের পক্ষে তিনি ১০০ মিটার বুক সাঁতারে প্রথম স্বর্ণ পদক লাভ করেন, তিনি নতুন বিশ্ব রেকর্ড স্থাপন করেন।

টুইটারে ক্যামেরন তাঁর আনন্দ প্রকাশ করেছেন:

@ক্যামেরনভিডিবার্গ: আমি একজন অলিম্পিক চ্যাম্পিয়ন! 🙂 আপনার টুইটে বিনয় প্রকাশ করছি। আবেগে আচ্ছন্ন! সারাজীবন যেভাবে ছিলাম কিন্তু http://instagr.am/p/Nsg12grbC3/

আমি একজন অলিম্পিক চ্যাম্পিয়ন! ছবি @ক্যামেরনভিডিবারগ-এর সৌজন্যে

দক্ষিন আফ্রিকার অধিকাংশ সংবাদপত্রে তাঁর সংবাদটি শিরোনামে পরিণত হয়েছে:

দক্ষিন আফ্রিকার ব্লগীয় পরিমণ্ডলের প্রতিক্রিয়া :

তাঁর সাথে কাজ করার বিষয়টি জেসন ভন বারগ বর্ণনা করেন:

অডির দূত হিসেবে ক্যামেরনের সাথে আমার সাক্ষাৎ ও কাজ করার সৌভাগ্য হয়েছে, সে হচ্ছে আমাদের আশেপাশের মানুষদের মধ্যে সবচেয়ে ভাল। কাজেই গত রাতে তাঁকে অলিম্পিকে গৌরবান্বিত হতে দেখে খুব ভাল লাগল। শাবাস ক্যামি দি ফিশ!

হারিকেনভেনেসা ক্যামেরনের ছবি দেখে অনুভুতি প্রকাশ করেনঃ

জনাব ক্যামেরন ভ্যান ডার বার্গের প্রতিভাকে আমরা আগেই চিহ্নিত করতে পেরেছিলাম। ২০১১ সালে প্রকাশিত মারি ক্লেরের নগ্ন ছবির মতই তাঁর স্বর্ণ পদকটিও নগ্ন। একটু বিপদগামী, সতর্ক চাউনির কুকুরগুলোকে এটা সাহায্য করবে।

দক্ষিন আফ্রিকার টুইটার পরিমণ্ডলের প্রতিক্রিয়া:

@পেবলসপ্রজেক্ট: @ক্যামেরনভিডিবার্গ তুমি আমাদের নায়ক। সারা দেশ তোমার জন্য গর্বিত।

@সোয়ামনিএমঃ  @ক্যামেরনভিডিবার্গ তুমি গত রাতে আমাদের সম্মানিত করেছ আর তোমার রঙ হল সোনালী

@ভেরাসনি: আমি বলতে চাই যে ক্যামেরন ভ্যান ডার বার্গ প্রিটোরিয়ার। আর এটা আমার নিজের শহর। দক্ষিণ আফ্রিকানরা যেটা নিয়ে হাসাহাসি করে…

@আব্রামজি: শাবাশ ক্যামেরন ভ্যান ডার বার্গ। তুমি দক্ষিন আফ্রিকাকে গর্বিত করেছ। আমাদের জন্য প্রথম পদক! আমরা সোনা জিতেছি। @ টিম_এস এ_২০১২ @অলিম্পিকএসএ@লীড_এস এ @রিকনিথলিং

@ডিজেক্লেও১: দক্ষিণ আফ্রিকা অলিম্পিকে স্বর্ণ পদক জিতেছে, ক্যামেরন ভ্যান বার্গ নতুন বিশ্বরেকর্ড করেছেন। # প্রাউডসাউথআফ্রিকান

এ পোস্ট টি লন্ডন ২০১২ অলিম্পিক- এর বিশেষ কাভারেজের অংশ।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .