বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

মালি: সাংবাদিক অপহরণে্র প্রতিবাদে মিডিয়া কর্মীদের ধর্মঘট

বৃহস্পতিবার ১২ই জুলাই, ২০১২ তারিখ রাতে মালির সংবাদপত্র ল্লাঁ’দিঁপঁদ (স্বাধীন) এর ৬২ বছর বয়স্ক পরিচালক এবং বামাকো প্রেসের বর্ষিয়ান পুরুষ সাউতি হায়াদারাকে মুখোশ পরিহিত লোকেরা অপহরণ করে নিয়ে গিয়ে পিটিয়ে রাস্তার উপর ফেলে রেখে গিয়েছে। এই অপহরণের পরিস্থিতিটি সম্পর্কে মালির সংবাদ ওয়েবসাইট জর্ণাল দু মালি’র [ফরাসী ভাষায়] এমডিডি’র আরো কিছু বলার আছে:

Ils sont venus le chercher au bureau. Ils ont tiré en l'air pour intimider le personnel et brutalisé notre patron”, raconte un journaliste. C'était vers 21h30. Ils ont ensuite emmené Saouti Haidara sur la route Sénou vers l'aéroport. Après avoir été battu par ces individus mal intentionnés, l'homme qui a pu être suivi par ses collaborateurs, a été relâché 4h après et transporté à la clinique mère-enfant du Luxembourg. ” Nous y avons passé toute la nuit et ils lui ont cassé une main

“তারা তার খোঁজে অফিসে এসেছিল। ফাঁকা গুলি ছূঁড়ে কর্মচারীরাদের ভয় দেখানোর পর তারা আমাদের কর্তাকে পিটিয়েছিল,” ব্যাখ্যা করেছেন এক সাংবাদিক। “তখন রাত সাড়ে ন’টার কাছাকাছি। তারপর তারা সেনু সড়ক ধরে বিমানবন্দর দিকে সাউতি হায়দারাকে নিয়ে গিয়েছিল।” অসৎ উদ্দেশ্যে আসা এই লোকগুলোর হাতে প্রহৃত হওয়ার চার ঘন্টা পরে আক্রান্ত ব্যক্তি মুক্তি পাওয়ার পর – হয়তো তার সহ-কর্মীরা তাকে অনুসরণ করে গিয়ে – তাকে লুক্সেমবার্গ মাতৃ-শিশু ক্লিনিকে ভর্তি করে। “আমরা সারারাত সেখানে কাটিয়েছি, তারা তার একটি হাত ভেঙ্গে দিয়েছে।”

আক্রান্ত হওয়ার পর লোকটির ছবি মালির টেলিভিশনে সম্প্রচারিত হয়। [ফরাসী ভাষায়]

এক সপ্তাহ পূর্বে মালির সংবাদপত্র ল্ল’রোরে-এর আব্দেররহমান কিতা একই পরিণতি ভোগ করেছেন

২২শে মার্চ, ২০১২ তারিখের অভ্যূত্থানের পর থেকে লে প্রেতোয়া সংবাদপত্রের বিরামা ফল এবং আফ্রিকেবল টেলিভিশন চ্যানেলের আব্দুলায়ে বারিসহ ব্যাপকভাবে গ্রেপ্তারের সংখ্যা বেড়ে গিয়েছে

সংবাদপত্র এবং বেসরকারী রেডিও চ্যানেলগুলো তাদের সহকর্মীদের উপর হামলার প্রতিবাদ জানাতে আগামী মঙ্গলবার ১৭ই জুলাই একটি ধর্মঘটের ঘোষণা দিয়েছে।

মালি সংবাদ ওয়েবসাইট জর্নাল দু মালি’র এমডিডি আরো যোগ করেছেন [ফরাসী ভাষায়]:

Aujourd'hui, c'est l'indignation générale après l'agression du doyen de la presse. Saouti Haidara souffre de plusieurs contusions et d'une fracture de la main. Le président de l’Union nationale des journalistes du Mali (UNAJOM), Ibrahim Famakan Coulibaly et celui de la maison de la presse de ce pays, Makan Koné, ont “condamné” cet acte. M. Koné a annoncé “la tenue d’une Assemblée générale dès ce vendredi matin à 8 heures (heure locale) à la Maison de la presse, qui sera suivie d’une marche de protestation contre cet enlèvement et les précédents”. M. Koné a aussi annoncé “la suspension de toutes les publications au Mali à partir de lundi prochain, toujours dans le cadre de la protestation” [..] L'organisation de défense des journalistes Reporters sans frontières (RSF) s'était inquiétée en mai des violations de la liberté de la presse au Mali depuis le coup d'Etat militaire du 22 mars,

সংবাদমাধ্যমের শীর্ষস্থানীয়দের উপর হামলার পর আজ চারিদিকে এই ব্যাপক ঘৃণামিশ্রিত ক্রোধ।  নেই নিম্নলিখিত. সাউতি হায়াদারার বিভিন্ন স্থানে কালশিরা পড়েছে এবং একটি হাত ভেঙ্গে গিয়েছে। মালির জাতীয় সাংবাদিক ইউনিয়নের (ইউএনএজেওএম) সভাপতি ইব্রাহিম ফামাকান কুলিবালি এবং মালির প্রেস হাউসের সভাপতি মাকান কোনে এই আইনের প্রতি “নিন্দা” জ্ঞাপন করেছে। জনাব কোনে “শুক্রবার সকাল ৮টায়  (স্থানীয় সময়) মালি প্রেস হাউসে একটি সাধারণ সভা তার পরে এই অপহরণ এবং পূর্ববর্তী ঘটনাগুলোর বিরুদ্ধে প্রতিবাদস্বরূপ একটি মিছিল অনুষ্ঠানের” ঘোষণা দিয়েছেন।” এছাড়াও জনাব “প্রতিবাদ হিসেবে আগামী সোমবার থেকে মালির সমস্ত প্রকাশনা স্থগিত” ঘোষণা করেছেন […] মে মাসে সাংবাদিকদের সুরক্ষার সংগঠণ রিপোর্টার্স উইদাউট বর্ডারস ২২শে মার্চ তারিখের সামরিক অভ্যুত্থানের পর থেকে মালির সংবাদপত্রের স্বাধীনতা লঙ্ঘন সম্পর্কে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .