বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

স্পেনঃ সংকটের চরম পর্যায়ে আশার আলো

এই অনুচ্ছেদটি ইউরোপে সংকট-এর উপর আমাদের বিশেষ প্রতিবেদন।

১২ মে, ইন্ডিগনাডো মিছিলটি শুধু টিকে থাকার জন্য বিস্তৃত হয় নি, এটি আরো শক্ত সামাজিক সমর্থন পেয়েছে। প্রায় এক বছরব্যাপী চলার পর, ১৫এম (এটি ২০১১ এর ১৫ মে শুরু হয়েছিল বলে তারিখের নামে এর নামকরণ করা হয়েছে) আরো একবার ইউরোপিয়ান সংকটের সময় সরকারের ব্যবস্থা ও কর্মকাণ্ড নিয়ে দশ হাজার অসুখী ও ক্রুদ্ধ মানুষকে একত্র করেছে।

যদিও এই বিস্তৃতি সারা বিশ্ব পর্যন্ত ছড়িয়েছে, তারপরও মাদ্রিদ ও বার্সেলোনা এই ইন্ডিগনাডো আন্দোলনের কেন্দ্র হিসেবে আছে। ১২ মে মাদ্রিদের পুয়ের্তো ডেল সোলে (সূর্যের দরজা) সামাজিক বিদ্রোহের নিদর্শন হিসেবে প্রায় রাত ৮টার সময় একটি গণমিছিল হয়েছে। চারটি মিছিল রাজধানীর চারটি প্রাণকেন্দ্র থেকে সেন্ট্রাল প্লাজার সামনে শান্তিপূর্ণ ও উৎসবমুখর পরিবেশে মিলিত হয়। ১০ টার দিকে যখন সরকার এই বিস্তৃতির সমাপ্তির বৈধতা ঘোষণা করল, তখন কিলোমিটার জিরোতে (সোল) মানুষের ভিড় আরো বাড়তে লাগল এবং পুলিশ সমাবেশ ভাঙার চেষ্টা করে নি। পরিকল্পনা মত, শান্তভাবে এগিয়ে যাওয়ার পর আবার তারা ড্রাম বাজিয়ে ও চিৎকার করে তাদের দাবিগুলো তুলেছিল। তারা ইন্ডিগনাডো আন্দোলনের এক বছর পূর্তি উপলক্ষে “শুভ জন্মদিন” গানও গেয়েছিল। পরে, এর প্রদর্শকরা কর্মকর্তাদের সরাসরি চিৎকার করে বলেছিলঃ “আমাদের সাথে যোগ দিন!”

"সূর্যের(সোল) চাবি" লেখা সংবলিত মাদ্রিদ প্লাজায় একটি পোস্টার। এলেনা অ্যারোন্তেসের সৌজন্যে।

তারপরও, ভোরে কর্তৃপক্ষ বাকি ৩০০ প্রদর্শককে কেন্দ্র থেকে সরে যাওয়ার জন্য মধ্যস্ততা করেছে। তারা বেশ কয়েকটি স্প্যানিশ শহরে অভিযান চালিয়েছে। পূর্ববর্তী বছরে, এই আন্দোলন ব্যাহত হয় নি এবং “ইন্ডিগনাডোস”-রা রাস্তায় থেকে সভা ও অন্যান্য কাজ করতে সক্ষম হয়েছিল। এবার, যারা “কোন আক্রমণ নয়” বলে উপস্থিত ছিল, তাদের সবাইকে সরে যেতে বাধ্য করা হয় ও ১৮ জনকে গ্রেফতার করা হয়। তার পরের দিনগুলোতে তারা পুলিশি আক্রমণ, ভয় সৃষ্টির ও তাদের কন্ঠ রুদ্ধ করার চেষ্টাকে প্রত্যাখ্যান করে।

#AcampadaSol (#CampSol)[es] ব্লগে সোল লিগ্যাল কমিশন কর্তৃক ঐ আন্দোলন সম্পর্কিত একটি বার্তার অংশ বিশেষ দেয়া হয়েছে। এটি নিচের উপসংহারটি তুলে ধরেছেঃ

Una vez más, los derechos se conquistan ejerciéndolos. Porque el espacio público es patrimonio de la ciudadanía, un ágora de intercambio de ideas sobre aquello que nos afecta para la contrucción colectiva de un futuro común. Esta es una de las premisas sobre las que ha de asentarse un estado que aspire a considerarse democrático.

আরো একবার, লড়াই করে সত্যের জয় হল। কারণ, মতবিনিময়ের জন্য জনগণই পারে ভবিষ্যতের জন্য সংবদ্ধ ব্যবস্থা নিতে। এটি এমন একটি জায়গা যা গণতন্ত্রকে নিজে থেকেই তার শক্ত অবস্থান গড়ে তোলার কথা বলেছে।

ব্লগার প্রিন্সিপিয়া মারসুপিয়া তার অনুচ্ছেদ দি রিমুভাল ফ্রম দি সোল অ্যান্ড দি বিগেস্ট হিউমিলেশন অফ মাই লাইফ–এ [es] জোরপূর্বক উচ্ছেদের পর, সামাজিক নেটওয়ার্ক গুলিতে তার পর্যবেক্ষণ বলেছেনঃ

En mi opinión, el gobierno debería sentirse muy satisfecho de que la desesperación generada por la crisis se canalice en un movimiento como el 15M, mayoritariamente pacífico. Basta recordar episodios pasados de sufrimiento social (cierre de astilleros en Galicia o de explotaciones mineras en Asturias) para comprender que cuando manda la desesperanza, la violencia estalla. En el pasado, los ingredientes habituales de una protesta eran las barricadas de neumáticos ardiendo y los cócteles molotov. El símbolo 15M son las tiendas de campaña.

আমার মতে, সরকারের খুব খুশি হওয়া উচিত যে, সংকটের সময় এই অবাধ্যতা ১৫এমের মত আন্দোলনে রূপ নিয়েছে যা মূলত শান্তিপূর্ণ। সামাজিক ভোগান্তির শুধুমাত্র একটিই উদাহরণ আছে, যার জন্য আক্রমণের মাধ্যমে নিয়ন্ত্রণে এসেছিল। এর আগে, সাধারণ মিছিল গুলো পোড়া চাকার ব্যারিকেড আর মলোটভ ককটেইল ব্যবহৃত হত। ১৫এম এর প্রতীক হল তাঁবু খাটানো।

এই অনুচ্ছেদটি ইউরোপে সংকট-এর উপর আমাদের বিশেষ প্রতিবেদন।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .