বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

দক্ষিণ কোরিয়া: ম্যাডকাউ আতংকে আবার মার্কিন গোমাংসবিরোধী বিক্ষোভ

এপ্রিলে ক্যালিফোর্নিয়ায় ম্যাডকাউ রোগ সনাক্তকরণের পরে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র থেকে গরুর মাংস আমদানি অব্যাহত থাকার ফলে হাজার হাজার দক্ষিণ কোরীয় এই সপ্তাহে মোমবাতি বিক্ষোভ করেছে। চার বছর আগে ২০০৮ সালে কয়েক অযুত সংখ্যক লোক গরুর মাংসের পরিকল্পিত আমদানির বিরুদ্ধে মোমবাতি প্রতিবাদের জন্যে জড়ো হলে, সরকার রোগের প্রাদূর্ভাব দেখা দেয়া মাত্রই আমদানি বন্ধের প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল।

না রাখা প্রতিশ্রুতিটি এখন জনরোষের পুণঃসঞ্চার করে চার বছর পুরোনো মোমবাতি বিক্ষোভের সেই ঐতিহ্যটিকে ফিরিয়ে এনেছে।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র থেকে গরুর মাংস আমদানির বিরুদ্ধে বিক্ষোভ।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র থেকে গরুর মাংস আমদানির বিরুদ্ধে বিক্ষোভ। ছবি, টুইটার ব্যবহারকারী @উল্লেখযোগ্য১৯৮০

টুইটার ব্যবহারকারী @উল্লেখযোগ্য১৯৮০ একটি ছবিসহ টুইট করেছেন [কোরীয়]:

[촛불시즌2][2012년5월2일7시청계광장][…]”작은 실천이 세상을 바꿉니다.”

[মোমবাতি আলোর (বিক্ষোভ) দ্বিতীয় কাল] [অপরাহ্ন ৭টা, ২রা মে, ২০১২, সিটি হল চোয়েঙ্গিয়ে স্কোয়ার] […] “ক্ষুদ্র কর্মগুলোই বিশ্বের পরিবর্তন ঘটায়”
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র থেকে গরুর মাংস আমদানির বিরুদ্ধে বিক্ষোভ।

টুইটার ছবি, @উন্মুক্তবৃক্ষ২০

আরেক ব্যবহারকারী @উন্মুক্তবৃক্ষ২০ উপরের ছবিটি টুইট করে [কোরীয়] বলেন:

2009년 광우병 촛불이 처음 밝혀진지 딱 4년만입니다. 4년 전 그날처럼 국민들이 같은 마음으로 한 자리에 모여 촛불을 높이 들고 있네요. 미국산 소 수입 즉각 중단하십시오!

ম্যাডকাউ রোগের (দাগযুক্ত মাংসের) বিরুদ্ধে ২০০৯ সালে মোমবাতিগুলো জ্বালানোর পুরো চার বছর হয়েছে। ২০০৯ সালের ঐদিনগুলোর একই মানসিকতা নিয়ে কোরীয় জনগণ তাদের মোমবাতিগুলো প্রজ্জ্বলনের জন্যে এখন একত্র হয়েছে। অনুগ্রহ করে অবিলম্বে মার্কিন গরুর মাংস আমদানী থামান!
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র থেকে গরুর মাংস আমদানির বিরুদ্ধে বিক্ষোভ।

টুইটার ছবি, @হায়োজিনলাভলাভ।

কিম হায়ো-জিন (@হায়োজিনলাভলাভ)  অনেক রাত পর্যন্ত অব্যাহত  বিক্ষোভের একটি দৃশ্য  থেকে টুইট করেছেন।

이 시간 청계광장. 미국산 광우병 소고기 수입 반대 집회. 어김없이 촛불을 들다. 시간이 지날수록 더 많은 사람들이 모이고 있어요.

এখন চিয়োঙ্গি স্কোয়ারে ম্যাডকাউ রোগ সংক্রমিত মার্কিন গরুর মাংস আমদানি বিরুদ্ধে একটি বিক্ষোভ চলছে। আমরা আমাদের মোমবাতি জ্বালিয়েছি। সময়ের সঙ্গে সঙ্গে আরো মানুষ জড়ো হচ্ছে।
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র থেকে গরুর মাংস আমদানির বিরুদ্ধে বিক্ষোভ।

টুইটার ছবি, @সিসিফাস৭৯

ব্যবহারকারী @সিসিফাস৭৯-এর একটি টুইট বলছে [কোরীয়]:

촛불 4주년 광우병 쇠고기 반대 촛불집회 현장입니다. 4년 전 그때의 공기가 이곳에서 느껴집니다. http://twitpic.com/9gcd4i

ম্যাডকাউ রোগের (-দাগযুক্ত মাংসের) বিরুদ্ধে মোমবাতিগুলো প্রজ্জ্বলন বিক্ষোভের একটি দৃশ্য – যেটা আমরা চার বছর আগে করেছিলাম। আমি এখানে একই গন্ধ অনুভব করছি।
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র থেকে গরুর মাংস আমদানির বিরুদ্ধে বিক্ষোভ।

টুইটারের ছবি, @গ্রী

টুইটার ব্যবহারকারী @গ্রী উপরের ছবিটি টুইট করে [কোরীয়] বলেন:

다시 모이고, 다시 밝힌 촛불들이 외칩니다. “거짓말 정부 못 믿겠다. 광우병 쇠고기 수입 중단하라!”

মোমবাতিগুলো আবার একত্র হয়ে আবার জ্বলে উঠে চিৎকার করে বলছে, “আমরা এই মিথ্যেবাদী সরকারকে আর বিশ্বাস করি না। ম্যাডকাউ রোগের দাগযুক্ত গরুর মাংস আমদানী বন্ধ করুন।”

উপরের ছবিটিতে বিক্ষোভকারীরা মোমবাতি এবং পতাকা নেড়ে “জনগণের সার্বভৌম রক্ষা কর” এবং “মার্কিন গোমাংস আমদানি বন্ধ কর” ব্যানার হাতে নিয়ে গান গাইতে দেখা যাচ্ছে। বিক্ষোভস্থলে প্রায় ৪,০০০ পুলিশ কর্মকর্তা মোতায়েন এবং কয়েকজন বিক্ষোভকারীকে গ্রেপ্তার [কোরীয়] করা হয়।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র থেকে গরুর মাংস আমদানির বিরুদ্ধে বিক্ষোভ।

টুইটারের ছবি, @ওয়াইটিএনম্যানিয়া

দক্ষিণ কোরীয় জাতীয় কেবল সংবাদ চ্যানেলের কর্মচারীদের ওয়াইটিএন শ্রমিক ইউনিয়ন (@ওয়াইটিএন) পুলিশের (উপরোক্ত) বিক্ষোভকারীদের আটকে দেয়ার একটি ছবি টুইট করেছে:

4년만에 다시 모인 청계광장 광우병 규탄 촛불집회에 앵그리 YTN 조합원들도 참석! 경찰 청계광장을 미리 점거해서 자리가 비좁네요!

চার বছর পরে প্রতিবাদকারীরা দাগযুক্তের (মার্কিন গরুর মাংসের) বিরুদ্ধে আবার মোমবাতি প্রজ্জ্বলন বিক্ষোভ মঞ্চস্থ করার জন্যে চোয়েঙ্গিয়ে স্কোয়ারে জড়ো হয়েছে। ইতোমধ্যে স্কোয়ারটি পুলিশ দখল করে ভীড় সৃষ্টি করে রাখলেও আমরা, ক্ষুদ্ধ ওয়াইটিএন সদস্যরা, এখানে উপস্থিত ছিলাম।

২০০৮ সালে গণ বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ে এক মাস অব্যাহত থাকে। নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের পর বর্তমানে দক্ষিণ কোরিয়া বিশ্বে মার্কিন গরুর মাংসের চতুর্থ-বৃহত্তম আমদানিকারক।

@ডাব্লিউজেএসফ্রি পোস্ট করেন  একটি ভিডিও, যাতে ব্যাখ্যা করা হয়েছে মানুষ আমদানির একটি গল্পিত গল্প নিয়ে এতো চিন্তিত কেন।

http://www.youtube.com/watch?feature=player_embedded&v=0OpLlKpXhk8

২রা মে, ২০১২ একটি গণ প্রতিবাদ শুরু হয়ে আরেকদিন অব্যাহত থাকে এবং মনে হচ্ছে আগামী পুরো সপ্তাহ জুড়ে অব্যাহত থাকবে। প্রথম দিনে কয়েক হাজার মানুষ জড়ো হয়েছিলো এবং এদের মধ্যে হাজারখানেক  [কোরীয়] পরের দিন পর্যন্ত সমাবেশ অব্যাহত রাখে।

দক্ষিণ কোরিয়ার প্রভাবশালী একজনের মিডিয়া মিডিয়া মঙ্গু মা এবং নানীর সঙ্গে বিক্ষোভে অংশ নেয়া একজন তরুণীর ছবি  আপলোড করে। তাদের ধরে রাখা ব্যানারে লেখা আছে যে “আমদানি বন্ধ কর (ডান দিকে দু’টি)” এবং “আমাদের সার্বভৌমত্ব রক্ষা কর(বাম দিকে)।”

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র থেকে গরুর মাংস আমদানির বিরুদ্ধে বিক্ষোভ।

টুইটার ছবি, মিডিয়া মঙ্গু

@ জেএইচ ও মাই ‘ল  দ্বিতীয় দিনে তার বিক্ষোভের পক্ষে যুক্তি দিয়ে টুইট করেছেন:

(내가 오늘도 청계광장을 가는 이유) 1.촛불시위는 이제 시작일 뿐이다 2. 어제는 국민의 힘을 제대로 보여 주지 못했다. 3. MB정부, 쇠고기 수입중단 안하고 있다 4.자식의 안전을 걱정해야 하는 아버지다 5. 그곳에 가면 기분이 좋다.

(কেন আমি আজকে আবার চিয়োঙ্গি স্কোয়ারে যেতে চাই) ১. এটি শুধু সান্ধ্যকালীন বিক্ষোভ। ২. গতকালকের প্রতিবাদটি জনগণের শক্তি দেখানোর জন্যে যথেষ্ট ছিল না। ৩.  এমবি সরকার [প্রেসিডেন্ট লি মাইউং বাকের আদ্যক্ষর] এখনো আমদানী স্থগিত করেনি। ৪. শিশুদের বাবা হিসেবে আমি আমার সন্তানদের স্বাস্থ্য সম্পর্কে উদ্বিগ্ন। ৫. শুধু একারণে যে আমি সেখানে থেকে ভাল বোধ করি।

এমনকি প্রায় প্রত্যেকটি বিষয়ে সরকারের পক্ষ নেয়া দেশের একেবারে কট্টর-ডানপন্থী সংবাদপত্র পর্যন্ত একটি পরিসংখ্যান  [কোরীয়] প্রকাশ করেছে যে ৭২.৫ শতাংশ কোরীয় জনগণ মার্কিন গরুর মাংস আমদানীর স্থগিত রাখতে চায়। ইতোমধ্যে  একটি অপেক্ষাকৃত প্রগতিশীল সংবাদপত্র প্রেশিয়ান একটি পুরোনো সংবাদপত্র থেকে একটি সরকার বিজ্ঞাপনের একটি ছবি পুণরুদ্ধার করেছে  [কোরীয়]। সরকার স্বাস্থ্য বিভাগের টাকায় ছাপা বিজ্ঞাপনটি বলছে, “জনস্বাস্থ্যের চেয়ে বেশী গুরুত্বপূর্ণ কিছুই নাই। আপনাদের রক্ষা করার জন্যে আমাদের উপর নির্ভর করুন” এবং “মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে কখনো গরুর মাংসে ম্যাডকাউ রোগের সংক্রমণ সনাক্ত হলে আমরা তৎক্ষণাৎ আমদানী বন্ধ করে দিব।”

সরকারের দ্বিতীয় প্রতিশ্রুতিটি ছিল যে আমদানীকৃত সকল গরুর মাংস এবং রোগ প্রাদূর্ভাবের উৎস পুঙ্খানুপুঙ্খভাবে পরিদর্শন করবে, যাকে অনেক টুইটার ব্যবহারকারী যেমন @ইয়োজি০৮০২ [কোরীয়] মনে  করেন এমনকি পরিদর্শন শুরুর বহু আগেই ফলাফলের নির্ভুলতা সম্পর্কে সন্দেহের উদ্রেক করে।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .