বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

ভারত: গুগল অনুসন্ধানের লগারিদম পরিবর্তনের প্রভাব

ওয়ার্ল্ড ওয়াইড ওয়েবে (ডাব্লিউ ডাব্লিউ ডাব্লিউ) সবচেয়ে বেশি ব্যবহৃত সার্চ ইঞ্জিন (অনুসন্ধান যন্ত্র) গুগল সার্চ ইঞ্জিন ‘পেজর‌্যাংক’ নামের একটি পেটেন্টকৃত লগারিদমের কারণে প্রাথমিকভাবে সফল, কারণ এটি একটি নির্দিষ্ট অনুসন্ধানের শব্দসমষ্টির অবস্থান ক্রমানুসারে ওয়েবের পৃষ্ঠাগুলোকে সাজাতে সাহায্য করে। বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পৃষ্ঠা সংযুক্ত ওয়েবপৃষ্ঠাগুলির গুরুত্বপূর্ণ হওয়ার সম্ভাবনাও বিবেচনা করে পেজর‌্যাংক লগারিদমটি মানবসৃষ্ট সংযোগগুলোকে বিশ্লেষণ করে।

জনপ্রিয় সার্চ ইঞ্জিনটির এই ব্যাপারটির রাশ টেনে নিজ নিজ গ্রাহকের ওয়েবসাইটের গুগল অবস্থান উন্নীত করতে সার্চ ইঞ্জিন অপ্টিমাইজেশনর (অনুসন্ধান যন্ত্রের অনুকূল করার) একটি পেশাদারী পরামর্শক ইন্ডাস্ট্রির উদ্ভব ঘটেছে। অবস্থান উন্নীত করতে অপ্টিমাইজেশন পরামর্শক ব্যবহারকারী ওয়েবসাইট মালিকদের জন্যে গুগল সুনির্দিষ্ট নির্দেশাবলী প্রকাশ করলেও সংযোগ উৎপাদনের জন্যে সার্চ ইঞ্জিনের লগারিদমকে প্রভাবিত করতে অনেকেই অনৈতিক উপায় উদ্ভাবন করেছে। তাই গুগল এই অভিযোগটি গুরুত্বের সঙ্গে নিয়েছে।

গুগলের অনুসন্ধান যন্ত্রে সাম্প্রতিক (পেঙ্গুইন নামের) লগারিদমে পরিবর্তন যুক্তরাষ্ট্র থেকে আউটসোর্স হয়ে বেশিরভাগ ভারতের মতো দেশে চলে আসা নিম্নমানের সার্চ ইঞ্জিন অপ্টিমাইজেশন/লিংক গঠনের পরিষেবা খাতে প্রভাব ফেলেছে। একটি প্রতিবেদন দাবি করেছে যে এই উন্নয়নটি মুম্বাই, দিল্লি এবং ব্যাঙ্গালোরের কর্মসংস্থানে প্রভাব ফেলেছে এবং ইন্টারনেট কর্মীরা বিক্ষোভ মঞ্চস্থ করেছে। তবে এই তথ্যটি অন্য কোন উৎস দ্বারা যাচাই করা হয়নি।

শিল্পটিতে লগারিদম পরিবর্তন থেকে উদ্ধার পেতে বিস্তর আলোচনা চলছে। বিশেষজ্ঞরা বলেছেন যে গুগলের নতুন লগারিদিমটি ওয়েবস্প্যাম (অযাচিত ওয়েব উপাদান) এবং ব্ল্যাক হ্যাটের সার্চ ইঞ্জিন অপ্টিমাইজেশন কৌশল ব্যবহারকারী সাইটগুলোকে দূর করবে।

পণ্যমূল্য এবং পণ্যের তুলনা করার একটি পোর্টালের সহ-প্রতিষ্ঠাতা অজয় ​​বর্মা  মিডিয়ানামাতে একটি অতিথি পোস্টে লিখেছেন:

গুগলের নতুন প্রস্তাবিত বৈশিষ্ট্যগুলো মঞ্চটিকে (প্ল্যাটফর্ম) ব্যাপকভাবে পরিবর্তিত করছে না, শুধুমাত্র দৃশ্যমানতার পরিবর্তন ঘটছে। এটি কিছু কিছু জাংক (আবর্জনা) প্রকাশকদেরও ছাঁকতে সাহায্য করবে। ‘বিজ্ঞাপনে ক্লিক'কে স্বচ্ছ একটি বৈশিষ্ট্য মনে করা হলেও বিভিন্ন প্রতিবেদনে এক্ষেত্রে কম-বেশি ২০% জালিয়াতির হারের আশংকা করা হয়েছে। সুনামে বিশ্বাসভিত্তিক খরচ সম্পর্কে সবারই ভাল ধারণা রয়েছে। তাই এই পরিচ্ছন্নতার প্রয়োজন পড়েছিল।

অজয় উপসংহার টেনেছেন এভাবে:

গুগলের পক্ষ থেকে এটি একটি স্বাগত পদক্ষেপ। বৈশিষ্ট্যগত পরিবর্তনে ছোট একটি ধাপ অনলাইন বিজ্ঞাপনের ক্ষেত্রে একটি বিশাল উল্লম্ফন হিসেবে প্রমাণিত হতে পারে।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .