বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

উগান্ডা: রাজনীতিবিদের উপর পুলিশী যৌন-লাঞ্ছনার প্রতিবাদে ব্রা পরে বিক্ষোভ

এমাসের প্রথম দিকে উগান্ডাতে এ৪(ফর)সি (পরিবর্তনের জন্যে সামাজিক কর্মী) নিষিদ্ধ করা হলে এক্টিভিস্টসরা এর নতুন নাম দেয় “৪(ফর)জিসি” যার মানে হলো “ঈশ্বর এবং আমার দেশের জন্যে” (উগান্ডার সরকারি নীতিবাক্য)। নেতৃস্থানীয় ব্যক্তিত্ব বিরোধীদলীয় নেতা ৪(ফর)জিসি সদস্য কর্ণেল ড. কিজ্জা বেসিগিয়ে, ম্যাথিয়াস ম্পুউগা, ইনগ্রিড তুরিনাওয়েসহ আরও অনেকে সারা দেশে সমাবেশ আয়োজন অব্যাহত রাখেন। এবারের সমাবেশটি ২০শে এপ্রিল, ২০১২ শুক্রবার কাম্পালার নানসানা’তে অনুষ্ঠিত হয়েছিল।

গণতান্ত্রিক পরিবর্তনের ফোরামের জন্যে মহিলা লীগের চেয়ারপারসন এবং উগান্ডার মুখ্য মহিলা রাজনীতিবিদ ইনগ্রিড তুরিনাওয়ে সভাস্থলে আসার সঙ্গে সঙ্গে পুলিশ কর্মকর্তারা তাকে গ্রেপ্তার করতে আসে। তাদের একজন ইচ্ছাকৃতভাবে তার ডান স্তন ধরে চাপ দিতে শুরু করে। তার প্রতি একজন পুলিশ কর্মকর্তার (এই) যৌন-লাঞ্ছনা দেখিয়ে এনটিভি উগান্ডা একটি ভিডিও ফুটেজ প্রদর্শন করলে  উগান্ডাবাসীরা তাদের ক্রুদ্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করে।

ইনগ্রিড তুরিনাওয়ে যৌনভাবে লাঞ্ছিত হচ্ছেন। উগান্ডার সৌজন্যে

উগান্ডার পুলিশের মুখপাত্র ইবনে স্যেনকুম্বি উপস্থিত হয়ে অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন যে একজন মহিলা পুলিশ কর্মকর্তা গ্রেপ্তারের কাজটি করেছেন। এর ফলে এনটিভি জনগণকে পরিষ্কারভাবে দেখানোর জন্যে ধীর গতিতে ভিডিও ফুটেজটি প্রদর্শন করে।

ঘটনাটির পরে নারী এক্টিভিস্টরা প্রকাশ্যে তাদের ব্রা পর্যন্ত বিবস্ত্র হয়ে মহিলা রাজনীতিবিদদের বিরুদ্ধে পুলিশের নৃশংসতার প্রতি ক্রোধ এবং নিন্দা জানায়। শেষ পর্যন্ত তাদের ছয়জনকে গ্রেপ্তার এবং আটক করা হয়।

উগান্ডার কমিউনিটি টুইটারে ঘটনাটি সম্পর্কে রাগান্বিত প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করে:

@তুসিমেস্যামসন বলেছেন:

@তুসিমেস্যামসন: #ইনগ্রিডতুরিনাওয়ে বনাম @উগান্ডাপিএফ কাণ্ড দেখার পর আমার মনে হয় তাবৎ বিশ্বের #এমিনবারোরা পুলিশে যোগ দিতে চাইবে। করুণ দৃশ্য।

@গ্যাব্রিয়েলগুদা মনে করেন:

@ডিউকড্যানি৪: আসলেই ইতিহাস নিজের পুনরাবৃত্তি করে। হঠাৎ করেই আমরা ১৯৭০-এর এবং ১৯৮০ দশকের প্রথমে ফিরে যাচ্ছি। #বর্বরতা #ইনগ্রিডতুরিনাউয়ে  # উগান্ডা

নারী এক্টিভিস্টরা ব্রা পর্যন্ত বিবস্ত্র হয়ে প্রতিবাদ জানাচ্ছে।

নারী এক্টিভিস্টরা ব্রা পর্যন্ত বিবস্ত্র হয়ে প্রতিবাদ জানাচ্ছে। ছবি urbanlegendkampala.com এর সৌজন্যে

@উগান্ডানেট প্রশ্ন করেছে:

@উগান্ডানেট: যদি তারা ইনগ্রিড তুরিনাউয়ের প্রতি প্রকাশ্যে এটা করতে পারে, তবে চিন্তা করুন কেউ দেখলে তারা অন্য মহিলাদের প্রতি কী করে? #উগান্ডা #ইনগ্রিডতুরিনাউয়ে

@পিমাগেলাহ উগান্ডার পুলিশকে বলেছেন যে:

@পিমাগেলাহ #ইনগ্রিডতুরিনাউয়ে’কে গ্রেপ্তারকারীরা মহিলা যে ছিল, @উগান্ডাপিএফ-এর এই অজুহাত দেখানো বন্ধ হোক। এতে কিছু পরিবর্তন হবে না, এটা শেষ পর্যন্ত যৌন সহিংসতাই থেকে যাবে

@ইজন্যায়াগা মনে করেন পুলিশের নৃশংসতা ইনগ্রিডের রাষ্ট্রপতিসম মর্যাদা সৃষ্টি করেছে:

@ইজন্যায়াগা: #প্রিয়মুসেভেনি আপনি শুধু #ইনগ্রিডতুরিনাউয়ে’কে একজন প্রেসিডেন্ট পদপ্রার্থী বানিয়ে দিন।

@পিমাগেলাহ ইনগ্রিডকে লাঞ্ছনাকারী কর্মকর্তাটিকে গ্রেপ্তার করার অনুরোধ করেছেন:

@পিমাগেলাহ: একজন মহিলার অশোভন আক্রমণ একটি অপরাধ। উগান্ডার পুলিশের অবশ্যই তাদের লাঞ্ছনাকারী কর্মকর্তাকে গ্রেপ্তার করে অভিযুক্ত করা উচিৎ #ইনগ্রিড# তুরিনাউয়ে#উগান্ডাপুলিশথামাও

@জয়ডোরিনবীরা  ইনগ্রিডকে লাঞ্ছনাকারী পুলিশ কর্মকর্তাটিকে বরখাস্ত করা সম্পর্কে টুইট করেছেন:

@জয়ডোরিনবীরা: #ইনগ্রিডতুরিনাউয়ে’কে লাঞ্ছনাকারী #উগান্ডাপুলিশকর্মকর্তা’টিকে যৌন লাঞ্ছনার অভিযোগে বরখাস্ত করা হয়েছে; আমার এটার প্রমাণ দরকার #কুডবিভার্বাল

বিরোধীদলীয় নেতৃবৃন্দ এবং তাদের সমর্থকরা উগান্ডা ২০১১ সাল থেকে হয়েছে জনসমাবেশ এবং বিক্ষোভ করে আসছে। উত্তর আফ্রিকা বিপ্লবে অনুপ্রাণিত হয়ে উগান্ডার বিরোধী দলগুলো শহুরে কেন্দ্রগুলোতে কাজের জায়গায় হেঁটে যাওয়ার সময় উগান্ডাবাসীদের ডেকে ডেকে জ্বালানি এবং খাদ্যের উচ্চমূল্যের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ মঞ্চস্থ করছে।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .