বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

মেক্সিকো: ভাইরাল ভিডিওর শিশুরা রাষ্ট্রপতি নির্বাচনী প্রচারণাকে কাঁপিয়ে দিয়েছে

মেক্সিকোর পরবর্তী রাষ্ট্রপতি নির্বাচনী প্রচারণার প্রেক্ষাপটে, ৯ এপ্রিল, ২০১২-এ, শুরু হওয়া নুয়েস্ট্রো মেক্সিকো ডেল ফিউচুরা [স্প্যানিশ ভাষায়], (যার মানে হচ্ছে আমাদের ভবিষ্যতের মেক্সিকো) নামক এক আন্দোলন, একটি ভিডিও প্রকাশ করেছে, যার শিরোনাম হচ্ছে, “নিনোস ইনকোমাডোস এক্সিজেন এ ক্যান্ডিডেটস) (প্রার্থীদের প্রতি শিশুদের এক অস্বস্তিকর আহ্বান)।

৪ মিনিট, ২ সেকেন্ডের এই ভিডিওতে মেক্সিকোর প্রতিদিনের বেদনাদায়ক ঘটনার দৃশ্যাবলী প্রদর্শন করা হয়েছে (ডাকাতি, অপহরণ, সংঘর্ষ, সরকারি দুর্নীতি, ট্রাফিক জ্যাম এবং পরিবেশ দূষণ), আর সে ঘটনাবলিতে অভিনয় করেছে শিশুরা।

Si éste es el futuro que me espera, no lo quiero. Basta de trabajar para sus partidos y no para nosotros. Basta de arreglar el país “por encimita”. Doña Josefina, don Andrés Manuel, don Enrique, don Gabriel, se acabó el tiempo, México ya tocó fondo. ¿Sólo van a ir por la silla o van a cambiar el futuro de nuestro país?

আমার জন্য এই এই রকম একটা ভবিষ্যত অপেক্ষা করছে। আপনারা দলের জন্য কাজ করা বন্ধ করুন এবং আমাদের জন্য নয়। দেশের উন্নয়নের যে চিত্র তুলে ধরার চেষ্টা করছেন জনাব জোসেফিন, মি: আন্দ্রে ম্যানুয়েল, মি. এনরিকে, মি. গ্যাব্রিয়েল, সেই সময় এখন শেষ হয়ে গেছে। ইতোমধ্যে মেক্সিকো তলানিতে গিয়ে ঠেকেছে। আপনারা কি কেবল রাষ্ট্রপতির আসনে বাসার জন্য আপনাদের লক্ষ্য স্থির করেছেন, নাকি আপনারা আমাদের দেশের ভবিষ্যত পরিবর্তন করতে যাচ্ছেন?

ভাইরাল (দ্রুত ছড়িয়ে পড়া) ভিডিওটি সবজায়গায় ছড়িয়ে পড়ে এবং ফেসবুকে ও টুইটারে হাজার হাজার নাগরিক তা শেয়ার করে, সাধারণত ভাইরাল ভিডিও দ্রুত প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি করা।

ভিভের মেক্সিকোর কাতিয়া আলবিটের [স্প্যানিশ ভাষায়], এই ভিডিওর প্রশংসা করেছে, কিন্তু ভিডিও নিয়ে তার সংশয় প্রকাশ করেছেন এবং এই ভিডিওর নির্মাণের পেছনে কারা সেই নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে:

Desgraciadamente, me cuesta trabajo dejarme llevar tan fácil porque, tras la emoción, lo primero que pienso es: este video no es cosa de niños. La producción es demasiado buena y bien cuidada. Y entonces me pregunto ¿quién está detrás de esto? La respuesta más inmediata es Nuestro México del Futuro. Ellos se definen como “un movimiento social sin precedente a escala nacional que ha convocado a todos los mexicanos a expresar su visión sobre el México en el que les gustaría vivir” -yo me niego a calificarlo de “movimiento social”, es lo malo de estudiar sociología, nada nos complace-.

দুর্ভাগ্যজনকভাবে, আমি খুব সহজেই এই ভিডিওর একটি বিষয়টি এড়িয়ে যেতে পারিনি, কারণ আবেগের বাইরেও, এই ভিডিও দেখে প্রথমেই আমার মনে হয়েছে যে, এটা আসলে শিশুদের কাজ না, এর প্রোডাকশন খুব ভালো মানের এবং এটি দারুণভাবে নির্মিত। এবং এরপরে আমি বিস্মিত যে, এর পেছনে কারা কাজ করেছে? এর তৎক্ষণাৎ উত্তর হচ্ছে, এটি নুয়েস্ত্রো মেক্সিকো দেল ফিউচুরার তৈরি। তাদের কাজকে এক সামাজিক আন্দোলন হিসেবে চিহ্নিত করা হচ্ছে, যা কিনা জাতীয় পর্যায়ের মানসম্পন্ন কাজ নয়। মেক্সিকোর সকল নাগরিক যে ভাবে বাঁচতে চায়, সে ভাবে মত প্রকাশের জন্য এই আন্দোলন আহ্বান জানায়। আমার মতে সামাজিক আন্দোলন হিসেবে এটা যোগ্য নয়, সমাজবিজ্ঞানের গবেষণার জন্য এটা ক্ষতিকর, কোন কিছু আমাকে মুগ্ধ করেনি।

এস্টুপেদিসস সিন সেন্টিডো [স্প্যানিশ ভাষায়] ব্লগের ভিটোচা নামের আরেকজন ব্লগার, বর্তমান পদ্ধতির সমালোচনা এবং এর ফলে যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়, সে বিষয়ে ভিন্নমত পোষণ করে তার মতামত ব্যক্ত করেছে, এবং তার মতে এই ধরণের সমালোচনা এক ধরনের “রীতি” মাত্র:

Contrario a la muy probablemente opinión mayoritaria, que aplaude ese ejercicio de libertad de expresión de traumatizantes efectos mediáticos, a mi no me causa furor justiciero. Y no sólo por mi tendencia natural a ejercer de advocatus diavoli, ni por la indignación tipo señora gorda histérica que ha producido en la clase política y en la intelectualidad inorgánica, el empleo de niños actores para intervenir en el proceso electoral federal en curso, violando las disposiciones legales, sino por la esencia del mensaje que forma parte de una tendencia en boga entre la sociedad civil.

A principios de los años noventa comenzó a gestarse en la escena política mexicana una moda que en ese momento tenía una razón de ser y resultaba efectiva en sus propósitos. Era la moda de constituir grupos críticos, formados por empresarios, intelectuales, ex guerrilleros, curas liberacionistas y activistas ambientales y de derechos humanos.

এটা সম্ভবত সেই সংখ্যাগরিষ্ঠের মতামতের বিপরীত এক মতামত, যে সংখ্যাগরিষ্ঠ মতামত বাক স্বাধীনতার বিষয়টির প্রশংসা করে, প্রচার মাধ্যম দ্বারা চেতনা আক্রান্ত করার কারণে, কিন্তু এই বিষয়টি আমাকে অন্ধ ক্রোধে আক্রান্ত করে না। এবং যা বিশ্বাস করি না সেই বিষয় নিয়ে যুক্তি (ডেভিলস এ্যাডভোকেট) প্রদান করার মত বিষয় নিয়ে খেলা আমার প্রাকৃতিক প্রবণতা নয়, অথবা মোটা ঐতিহাসিক কোন রমণীর মত ক্ষুব্ধ নই, যা কিনা রাজনৈতিক শ্রেণীর অথবা অজৈব বুদ্ধিজীবীর কাছ থেকে আসে। বর্তমান কেন্দ্রীয় নির্বাচন প্রক্রিয়ায় হস্তক্ষেপের জন্য শিশু অভিনেতাদের নিয়োগের মাধ্যমে, আইন ভঙ্গ করা হয়েছে, কিন্তু যে বার্তা এতে প্রদান করা হয়েছে, তা সুশীল সমাজের মধ্যে প্রচলিত একটি রীতি।

৯০-এর দশকে মেক্সিকোর রাজনৈতিক পটভূমিতে এ রকম একটি ধারা শুরু হয়, যে মুহুর্তটি ছিল যৌক্তিক এবং তার উদ্দেশ্য কার্যকর হয়েছিল। সে সময় এই রকম একটা ধারায় ব্যবসায়ী, বুদ্ধিজীবী, প্রাক্তন সৈনিক, উদারনৈতিক যাজক এবং মানবাধিকার কর্মীর মত সমালোচকদের জন্ম হয়।

লেখক তার চিন্তাকে যৌক্তিক করার চেষ্টা করেছে:

Ser ciudadano no se agota en andar denunciando con el índice flamígero, ni en el áurea impoluta que se forma al pertenecer a una organización de la sociedad civil que no quiere contaminarse incursionando en actividades políticas. Tampoco significa promover una percepción maniquea y bastante rudimentaria de “ciudadanos buenos vs. políticos malos”, ni en frases soeces del tipo “estamos hasta la madre”.

Ser ciudadano, y esto lo dicen algunos personajes con más o menos “cierta” credibilidad ganada al paso de los años e incluso de los siglos, como Hobbes, Rousseau, Montesquieu y más recientemente Hannah Arendt, es ser parte activa de lo público que es la fuente primigenia de su condición de cive, es decir el que vive en la civitas, que a su vez tiene su origen en la polis, formada por los pólites o politkós (ciudadanos).

একজন নাগরিক হিসেবে আমি এক প্রজ্বলিত সুচি অনুসারে সম্পূর্ণভাবে পরিচালিত নই, অথবা সোনালী সময় বা আদি কোন নাগরিক প্রতিষ্ঠানের একজন হিসেবে, যে নিজেকে দুষিত করতে অনিচ্ছুক। এটি একটি মানিবাদ নামক চিন্তাকে ধরতে চায়, অথবা সঠিকভাবে ভালো বনাম মন্দ নাগরিকের মাঝে চিহ্নিত ধারণাকে কমিয়ে আনতে চায়, অথবা “আমরা সেখানে এটা রেখেছিলাম” এর মত এক বাজে শব্দকে ব্যবহার করতে চায়

বিগত সময়ে নাগরিক এবং বিভিন্ন ব্যক্তিত্ব এই কথাটি বলেছে, যা কম বেশী গ্রহণযোগ্যতা অর্জন করেছে। বিভিন্ন শতকে যার মধ্যে অন্তর্ভুক্ত রয়েছে, হবস, রুশো, মন্টেস্কু এবং খুব সম্প্রতি হান্নাহ আরন্ডাট-এর মত ব্যক্তিত্বরা, যিনি জনতার এক সক্রিয় অংশ হবেন, যিনি সুশীলদের সর্বোচ্চো এক উৎস হবেন, অথবা একজন নাগরিক, যিনি একজন সিভিটাসের (সুশূীল সামাজিক সংগঠন) মধ্যে বাস করবেন, সামাজিক সংগঠন-এর মাঝে, যা কিনা আইনের মাধ্যমে নাগরিকদের একত্রিত করে, যার উৎপত্তি পলিওস অথবা শহরে, যা কিনা পলিটেস অথবা পলিটিক্স, কিংবা নাগরিকদের দ্বারা গঠিত।

রাজনৈতিক অঙ্গনে অন্তত বেশ কয়েকজনকে বিরক্তি করার উদ্দেশ্য নির্মিত এই ভাইরাল ভিডিও মনে হচ্ছে তার উদ্দেশ্য সাধন করেছে, যেমন মার্কো এন্টোনিও গোমেজ লোভেরা [স্প্যানিশ ভাষায়] সংবাদ প্রদান করেছে যে:

El día de hoy en el pleno algunos diputados dieron su opinión al respecto del video que muestra a unos niños representando la situación actual del país y que increpa a los candidatos a la presidencia sobre la finalidad de sus actos.

El diputado priista Miguel Ángel García Granados pidió a la Secretaría de Gobernación retirar el spot del aire y no escudarse tras el pretexto de permitir la libertad de expresión.

আজ সংসদীয় বিশাল এক প্রতিনিধি এই ভিডিওর ব্যাপারে তাদের শ্রদ্ধাপূর্ণ মতামত প্রদান করেছে যা কিনা দেশটির বর্তমান পরিস্থিতি শিশুদের অভিনয়ের মাধ্যমে তুলে ধরছে, এবং রাষ্ট্রপতি পদপ্রার্থীদের তিরস্কার করেছে।

ইনষ্টিটিউশনাল রেভেল্যুশনারী দলের প্রতিনিধি মিগুয়েল এঞ্জেল গার্সিয়া গ্রানাডোস স্বরাষ্ট্র সচিবের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন, যেন এটি প্রচার না করতে দেওয়া হয় এবং মত প্রকাশের স্বাধীনতার নামে তৈরী করা এই ভিডিওর দ্বারা যেন বিভ্রান্ত না হয়।

যেহেতু এই ভিডিওর ব্যাপারে আইন প্রণেতারা তাঁদের অস্বস্তি প্রকাশ করেছে, এই প্রেক্ষাপটে বিশেষ করে সাংবাদিক কার্লোস মারিন গার্সিয়া [স্প্যানিশ ভাষায়] প্রশ্ন করেছে, কেন তখন কোন সমালোচনা করা হয়না, যখন রাজনীতিবীদেরা তাদের নির্বাচনী প্রচারণায় শিশুদের নিয়োগ প্রদান করেন:

Impúdicos y desvergonzados, cuando se trata de políticos en campaña besuqueando a niñas y niños, no ven “uso”: simplemente se hacen pendejos.

লজ্জাজনক এবং ঘৃণার বিষয় হচ্ছে যে, যখন রাজনীতিবিদেরা তাদের নির্বাচনী প্রচারণার জন্য ছোট ছোট বালিকা বা বালকদের নিয়োগ প্রদান করে এবং তারা সাধারণ ভাবে একে তাদেরকে “ব্যবহার” হিসেবে দেখে না। তারা আসলে বদমাইশ।

টুইটারে, গ্র্যাব্রিয়েল গুয়েরা (@ গ্র্যাব্রিয়েলগুয়েরা) স্প্যানিশ ভাষায়, এই ভিডিও নিয়ে কেবল আইনপ্রণেতা নয়, তার সাথে সাধারণ মানুষের মাঝেও প্রশ্ন ওঠাকে বিচিত্র মনে করছে:

Hay quienes se molestan más por un video que por la realidad que refleja… Eso SÍ es el mundo al revés…

তবে এমন অনেক রয়েছে যারা ভিডিওর চেয়ে বাস্তবে যা প্রতিফলিত হয়, তাই নিয়ে চিন্তিত… সত্যিকার অর্থে এটা এমন এক পৃথিবী, যা নিজেকে উল্টে ফেলছে। …

এ্যালেসিয়া কোরচেয়ুয়েরা ( @টপ_রোপিং_এলে) [স্প্যানিশ ভাষায়] সব জায়গায় এই ভিডিওর ছড়িয়ে পড়া নিয়ে তার খুশী ব্যক্ত করেছেন:

Ya vieron el video de los #NiñosIncómodos? uff, está buenísimo, a mi me gustó y coincido, “si ese es el futuro que me espera, no lo quiero”

আপনারা কি ইতোমধ্যে #নিনোসইনকমডোস নামক [অস্বস্তিদায়ক শিশু] নামক ভিডিওটি দেখেছেন]? ওহ দারুণ। আমি এই ভিডিওটা পছন্দ করেছি এবং আমি এর সাথে একমত, “যদি এ রকম কোন ভবিষ্যৎ আমাদের জন্য অপেক্ষা করে, তাহলে আমি সেই ভবিষ্যত চাই না”।

তার অংশের জন্য, ডিয়োস_পাদরে [স্প্যানিশ ভাষায়] নামক একাউন্টের এ্যাডমিনিসট্রেটর দেখাচ্ছেন যে:

Es más que obvio que detrás de los “niños incomodos” están unos adultos muy “acomodados”.

এই বিষয়টি একেবারে নিশ্চিত যে “অস্বস্তিকর শিশু” নামক ভিডিওর পেছনে অত্যন্ত “স্বস্তিদায়ক” একদল প্রাপ্তবয়স্ক নাগরিক রয়েছে।

@জেসিসুদিয়াস-এর [স্প্যানিশ ভাষার] মত কয়েকজন ব্যবহারকারী এই ভিডিও নিয়ে প্রশ্ন করেছে্ন। তাদের মতে এই ভিডিওর উদ্দেশ্য “ভিন্ন”, এমনকি যদিও তারা ঠিক বলেনি এর উদ্দেশ্য কি হতে পারে:

#niñosincómodos la mayoría de los mexicanos ya no somos tan tontos para caer en chantajes de ese tipo el trasfondo de su petición es otra

##নিনোসইনকমোডস : সংখ্যাগরিষ্ঠ নাগরিকরা এতটা বোকা নয় যে তারা এই রকম একটা ভিডিওর দ্বারা প্রতারিত হবে। এর পেছনে ভিন্ন উদ্দেশ্য রয়েছে।

ভাইরাল ভিডিও, সব সময় নানা ধরনের প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি করে, এবং নিশ্চিত ভাবে মেক্সিকোর রাষ্ট্রপতি নির্বাচন ঘনিয়ে আসার সাথে সাথে ব্লগস্ফেয়ার এবং সামাজিক নেটওয়ার্ক সাইটে উত্তেজনাকর এ রকম আরো ভিডিও দেখা যাবে। আমরা তা নজর রাখব।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .